তখনও পাননি কোনো চাকরি, ছোটো বেলার প্রেমের সাথে বিয়ে করতে KK কে করতে হয়েছিল সেলসম্যানের কাজ

জনপ্রিয় গায়ক কে কে (KK) তথা কৃষ্ণকুমার কুন্নাথ মঙ্গলবার রাতে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন। খবর সামনে এসেছে 53 বছর বয়সী এই গায়ক হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। কলকাতার গুরুদাস কলেজের নজরুল মঞ্চে তিনি একটি অনুষ্ঠানে গান গাইতেও গিয়েছিলেন। যখন তিনি গান শেষ করে হোটেলে আসেন তখন নিজেকে অসুস্থ বোধ মনে করেন। তৎক্ষণাৎ তাকে একটি বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলেও চিকিৎসকরা মৃত বলে ঘোষণা করে। পরে তার এই মৃত্যুর খবর সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে নেমে আসে শোকের ছায়া। তিনি আজ আমাদের মাঝে না থাকলেও তার শৈশব জীবনের একটি স্বরণীয় উপাখ্যান বলতে যাচ্ছি। আজকের প্রতিবেদনে আমরা আপনাকে জানাতে চলেছি তার প্রেম কাহিনী। আসুন জানা যাক!

হ্যাঁ, এই গায়ক সুদর্শনের দিক দিয়ে কোন অংশে কম ছিলনা এবং তার শৈশব জীবন ছিল দারুণ রোমান্টিক। তার প্রেম কাহিনী এক সাক্ষাৎকারে তিনি নিজেই জানিয়েছিলেন। আসলে কেকে (KK) নিজেই বলেছেন তার ছোটবেলার প্রেম পূর্ণতা পেয়েছে। বর্তমানে তার দুই ছেলে ও তার স্ত্রী আছেন। তার ছোটবেলার প্রেমিকা লক্ষী জ্যোতিকে তিনি বিয়ে করেছিলেন। তবে বিয়ে করাটা তার কাছে সহজ কাজ ছিল না। কারণ, যে সময়ে বিয়ের ব্যাপারে আলোচনা চলছিল সেই সময় তিনি পুরোপুরি বেকার ছিলেন।

এদিকে যখন তিনি ব্যাচেলার বেকার ছিলেন তখন জ্যোতির বাবা-মা দাবি করেছিলেন বিয়ে করার জন্য তাদের চাকরি থাকা জরুরি। এবং জ্যোতিকে বিয়ে করার জন্য তিনি একটি সেলসম্যান কাজের সাথে যুক্ত হয়েছিলেন। এই কাজ তিনি প্রায় তিন মাসের মত করেছিলেন। কিন্তু কৃষ্ণকুমার কুন্নাথের স্বপ্ন ছিল অন্য। এরই মাঝে তিনি 1991 সালে মিউজিক অ্যালবাম ‘পাল’ প্রকাশিত করেন। তার এই অ্যালবামটি শ্রোতাদের কাছে খুবই জনপ্রিয় হয়ে উঠেছিল তারপর তাকে আর পিছনে ফিরে তাকাতে হয়নি।

আমরা আপনাকে বলি এরপর কৃষ্ণকুমার কুন্নাথ বলিউড জগতে তার সুর দিয়ে প্রভাব বিস্তার করেছে। তিনি অনেক সুপারহিট কন্ঠ শ্রোতাদের উপহার দিয়েছেন। জানিয়ে রাখি কেকে -র বলিউড এন্ট্রি হয়েছিল ‘তদাপ তদাপ কে ইস দিল সে আহো নিকালতি রাহি’ গানের মধ্য দিয়ে ‘হাম দিল দে চুকে সনম’ ছবিতে চিত্রায়িত হয়েছিল। এরপর তিনি 2004 সালে ‘তু আশিকি হে’ গানের জন্য জাতীয় পুরস্কার অর্জন করেছিলেন।

Related Articles

Back to top button