বিশ্বের সবচেয়ে সুখী প্রাণী, যার হাসি দেখে মন মোহিত হবে আপনারও

বৈচিত্র্যময় পৃথিবীতে দেখা মেলে নানা ধরণের প্রাণীদের। কোনো প্রাণী দেখে মানুষ খুব ভয় পায়, আবার কোনোটাকে দেখে মানুষ সহজেই আকৃষ্ট হয়ে যায়। আপনিও এমন ধরনের প্রাণী দেখে থাকবেন বা শুনে থাকবেন। তবে আজ আপনাদের আর এক ধরণের প্রাণীর সাথে পরিচয় করিয়ে দেব, যা বিশ্বের সবচেয়ে সুখী প্রাণী (The Happiest Animal in the world) হিসাবে পরিচিত। প্রাণীটির নাম কুয়োক্কা (Quokka), যার মুখে সব সময় হাসি(Smile) দেখা যায়।

Australian Quokka

কোথায় দেখা মিলবে বিশ্বের সবচেয়ে সুখী প্রাণীর? কেমনই বা দেখতে তাদের?

প্রাণীটির দেখা মেলে অস্ট্রেলিয়ায়(Australia). অস্ট্রেলিয়ার পশ্চিমাঞ্চলীয় রোটেনেস্ট দ্বীপে (Rottnest Island) এদের বাস। এদের মুখের গড়ন এমনই, যা দেখলে মনে হয় যেন এরা হাসছে। এই প্রাণীদের মুখমন্ডলে সবসময় হাসি থাকে বলে এদের বিশ্বের সবচেয়ে সুখী প্রাণী বলা হয়ে থাকে। মার্সুপিয়ালস (Marsupials) শ্রেণীভুক্ত এই প্রাণীগুলি দেখতে ক্যাঙ্গারুর (kangaroo) মতো এবং এরা আকৃতির দিক থেকে বিড়ালের (Cat) মতো হয়।

প্রাণীবিজ্ঞানীরা( Animal Scientist) ধরেই নিয়েছিলেন যে, এই প্রজাতির প্রাণীগুলি পৃথিবী থেকে বিলুপ্ত(Extinct) হয়েছে। তবে সম্প্রতি এর কিছু ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় (Social Media) ভাইরাল(Viral) হয়েছে। ফরেস্ট ডিপার্টমেন্টের (Forest Department Officer) অফিসার পারভীন কাসওয়ান(Parveen Kaswan) তাঁর টুইটার(Twitter) অ্যাকাউন্টে কুয়োক্কার কিছু সুন্দর ছবি শেয়ার করেছেন।

মিষ্টি হাসির সাথে দারুন পোজে সেলফি তুলতে পছন্দ করে কুয়োক্কা

Quokka

স্থানীয় লোকেরা প্রাণীটির নাম দিয়েছেন কুয়োক্কা। প্রাণীবিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, এই প্রাণীগুলি মিশুকে প্রকৃতির (Friendly) হয়ে থাকে। এরা মানুষের সাথে মিশতে চায়, তবে মানুষের কোনো ক্ষতি এরা করেনা। শুধু তাই নয় প্রাণীটি ফল খাওয়ার পাশাপাশি, আদর খেতেও খুব পছন্দ করেন বলে জানাচ্ছেন বিজ্ঞানীরা। দেশ-বিদেশী পর্যটকদের(tourist) মধ্যে প্রাণীটির দারুন জনপ্রিয়তা রয়েছে। সোশ্যাল মিডিয়ায় এর ছবি ভাইরাল হওয়ার পর থেকে অস্ট্রেলিয়ার ওই অঞ্চলে পর্যটকের ভিড় আরো বাড়ছে। পর্যটকেরা প্রাণীগুলির সাথে সেলফি(Selfi) তুলছেন এবং প্রাণীগুলিও আনন্দের সাথে ফটো ফ্রেমে বন্দী হচ্ছে। প্রাণীগুলি সেলফি তুলতে খুব পছন্দ করে, যে কারণে কোন পর্যটক যখনই তার সাথে সেলফি তুলছে তখনই মিষ্টি হাসির সাথে দারুন পোজ দিচ্ছে প্রাণীগুলি। এই কারণে এদেরকে ‘সেলফি ফ্রেন্ডলি অ্যানিমালও'(Selfi Friendly Animal) বলা হয়ে থাকে। এগুলি সাধারণত দলবদ্ধভাবে থাকতে পছন্দ কর এবং রাতের দিকেই এরা বাইরে বেরোতে পছন্দ করে।

Related Articles

Back to top button