World Records: বিশ্ব রেকর্ড তৈরি করতে অভিনব কেরামতি দেখালেন ব্যাক্তি, বের করে আনলেন চোখের মণি

আজকাল প্রায় শোনা ও দেখা যায় যে মানুষ নিজেকে সুন্দর করে তোলার জন্য বিভিন্ন ধরণের প্লাস্টিক সার্জারি করিয়ে থাকে। এমনকি নিজেকে সুন্দর করে তোলার জন্য মানুষ নিজের বডি বা শরীরেও অনেক প্রকারের সার্জারি করায় মানুষ। আর এই সার্জারির পিছনে খরচ হয় লাখ লাখ টাকা। বিশেষ করে বলিউড/হলিউড বা বিভিন্ন নামী-দামি লোকেরা এইসব সার্জারি করিয়ে থাকার তালিকায় আগে রয়েছে। তবে তবে কিছু কিছু ব্যক্তি এমন রয়েছে যারা নিজেদের অদ্ভুদ অদ্ভুত সার্জারি করে রেকর্ড তৈরি করেছে ও তাদের নাম যুক্ত হয়েছে গিনিস বুক অফ ওয়ার্ল্ড রেকর্ডে। আজ আমরা আমাদের আর্টিকেলে এমনি এক ব্যক্তির বিষয় আলোচনা করবো।

আমরা যেই ব্যক্তির বিষয় আলোচনা করতে চলেছি তিনি ব্রাজিলের বাসিন্ধা। তিনি নিজের চোখের এমন সার্জারি করিয়েছেন যে তার চোখের জন্য তার নাম যুক্ত হয়েছে গিনিস বুক অফ ওয়ার্ল্ড রেকর্ডে। সিডনি ডি কারভালহো (Sidney De Carvalho) নামের এই ব্যক্তি তার চোখের মণি পুরোপুরি বের করে নিতে পারেন। এটি একটি বিরল অবস্থা, যার কারণে সিডনি ডি কারভালহো (Sidney De Carvalho) এটি করতে সক্ষম হয়েছেন। গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডস অনুসারে, তিনি গত বছরের ১০ জানুয়ারি ব্রাজিলের সাও পাওলোতে এই কীর্তি করেছিলেন। তারপর একজন অপটোমেট্রিস্ট প্রোপ্টোমিটার নামক একটি যন্ত্র ব্যবহার করে সিডনি ডি কারভালহোর চোখের প্রোট্রুশন পরিমাপ করেন। গিনেস বুক সিডনিকে তার ২০২৩ সংস্করণে অন্তর্ভুক্ত করেছে।

জানিয়ে দি যে সিডনি নিজের মুখের পেশীকে কাজে লাগিয়ে চোখ ঠেকড়ে বার করার এই কাজটি করেন। তার আইবল তিনি ১.৮ সেমি পর্যন্ত প্রসারিত হতে পারে। গিনিস বুক অফ ওয়ার্ল্ড রেকর্ডে (Gunnies book of world record) এই কারণে নিজের নাম দাখিল করার পর সিডনি বলেছিলেন ‘ আমি এতো খুশি যে ভাষায় তা বর্ণনা করতে পারবো না’।

এছাড়া আরো জানিয়ে দি যে সিডনি   ব্রাজিলের বাসিন্দা। স্বেচ্ছায় গ্লোব লাক্সেশনের কারণে তারা চোখ বন্ধ করতে সক্ষম হন, যা একটি বিরল চিকিৎসা অবস্থা। তিনি বলন যে তার বয়স যখন ৯ বছর, তখন তিনি আয়নার সামনে নিজের মুখ দেখে এই অনন্য প্রতিভা সম্পর্কে জানতে পেরেছিলেন। গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডস (Gunnies book of world record) অনুসারে, সিডনি ২০০৭ সালে ১.৩ সেমি রেকর্ডটি ভেঙেছেন।

Related Articles

Back to top button