Video: রাস্তায় হবে না কোনো জ্যাম, ভীড় কমাতে বের হলো এই অভিনব উপায়

সারা বিশ্বের মধ্যে জনসংখ্যার দিক থেকে প্রথম স্থানের অধিকারী হচ্ছে চীন (China)। যেখানে দ্বিতীয় স্থান দখল করে রয়েছে ভারত। এত বিপুল জনসংখ্যার কারণে চীনের রাস্তাঘাটে প্রায়ই যানজট লেগেই থাকে। এতে মানুষের সময় ও অর্থ দুটোই নষ্ট হয়। চীনে সড়কে প্রায়ই কয়েক কিলোমিটার দীর্ঘ যানজট দেখা যায়। সেই জন্য এই যানজট সামাল দেওয়ার একটা নতুন প্রযুক্তি এনেছে চিন।

Road

এই প্রযুক্তির ফলে যানজট সামাল দেওয়া অনেকটা সহজ হয়েছে এবং যানবাহন চলছে দ্রুত গতিতে। এই প্রযুক্তিটি পৃথিবীর প্রায় সমস্ত দেশের মানুষই পছন্দ করছে। চীনের এই বিশেষ প্রযুক্তিটির নাম হচ্ছে রিভার্সেবল লেন পলিসি (Reversible Lane Technology)। এই প্রযুক্তির ফলে রাস্তার মধ্যে থাকা ডিভাইডারকে অতি সহজেই সরানো যায়। এর ফলে যে দিকে যানজট বেশি হচ্ছে সেদিকের ডিভাইডারটিকে সরিয়ে দেওয়া হয়।

ফলে যানজট কমে যায় এবং যানবাহন দ্রুত গতিতে চলতে থাকে। চীনে রোবট ব্যাপক পরিমাণে ব্যবহার করা হয়। কিন্তু এখন এই রোবটগুলি রাস্তায় ট্রাফিক নিয়ন্ত্রণের ব্যবস্থাপনার কাজে ব্যবহার হচ্ছে। কিছুদিন আগেই চীনের পররাষ্ট্র মুখপাত্র একটা ভিডিও শেয়ার করেছেন যেটিতে এই বিপরীতমুখী লেনগুলির কার্যকারিতা দেখানো হয়েছে। যেটি চীনের ট্রাফিক প্রবাহকে ব্যাপকভাবে উন্নত করে তুলেছে।

এ বিশেষ প্রযুক্তির ছোট্ট ক্লিপ ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়া ব্যাপকভাবে ভাইরাল হচ্ছে। এটি এখনও পর্যন্ত মিলিয়নের বেশি মানুষ দেখেছেন। মানুষ এই প্রযুক্তি ব্যাপকভাবে পছন্দ করছে। শুধু চীনেই যে প্রযুক্তি ব্যবহার করা হচ্ছে তা নয়। 1963 সালে প্রথমবারের মতো এই প্রযুক্তি ব্যবহার হয়েছিল সান ফ্রান্সের বিখ্যাত গোল্ডেন গেট ব্রিজে।

 

এছাড়াও এর আগে 2016 সালে চীনের গুয়াংডাং প্রদেশে এই একই ধরনের কৌশল ব্যবহার করা হয়েছে। বেইজিং, চাংসা, নানজিং এবং জিনানের মতো অন্যান্য শহর গুলিতে যানজটের পরিচালনা করার জন্য এই প্রযুক্তি ব্যবহৃত হচ্ছে। এছাড়াও বিশ্বের উন্নত কয়েকটি দেশ যেমন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, মেক্সিকো, ফ্লোরিডার মত আরো কয়েকটি দেশ গুলি যানজটের সমস্যার মোকাবিলা করার জন্য এই নীতি গ্রহণ করছে।

Related Articles

Back to top button