বাঁদরকে উত্যক্ত করার ফল হাতেনাতে পেল এই ছেলে, দিল এমন শিক্ষা যা দেখে আপনিও নিজের হাসি থামাতে পারবেন না

সোশ্যাল মিডিয়ার (Social media)  সাথে জুড়ে নেই এরকম মানুষ নেই বললেই চলে। আমরা সোশ্যাল মিডিয়াকে আজকাল বিভিন্ন কারণে ব্যবহার করে থাকি। যেমন কেউ সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করে ব্যবসার কাজের জন্য, জিনিস কেনা-বেচার, কেউ সোশ্যাল মিডিয়া কন্টেন্ট ক্রিয়েক করে উপার্জন করে আবার কেউ কেউ শুধু এন্টারটেন্টমেন্টের জন্য সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করে। আর এন্টারটেন্টমেন্টের জন্য সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করা লোকেদের সংখ্যাই একটু বেশি।

সোশ্যাল মিডিয়ায় (social media) আমরা রোজই অনেক ধরনের ফটো, ভিডিও ও খবর দেখতে পাই। এই সব ভিডিওর মধ্যে কিছু কিছু ভিডিও বা খবর এমন থাকে যা দেখার পর আমরা অবাক হয়ে যাই বা এমন কিছু দেখতে পাই তা দেখে আমাদের হাসতে হাসতে পেট ব্যাথা হয়ে যায় বা এমন কিছু দেখি যা আমাদের মনকে খুশি করে তোলে এবং এমনো কিছু দেখি যা আমাদের জীবনকে প্রেরণা বা মোটিভেশন দেয়া ।সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি হাস্যকর ভিডিও অত্যন্ত পরিমানে ভাইরাল (Viral video) হচ্ছে। এই ভিডিও দেখলে আপনি কিছুটা অবাক হবেন আর হাসতে হাসতে পাগল হয়ে যাবেন। আসুন এই ভিডিওয়ের বিষয় বিস্তারিত জেনেনি।

সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া ভিডিওতে (Viral video) দেখা যাচ্ছে যে একটি বাদরের সামনে একটি ছোট বাচ্চা ছেলে বসে রয়েছে ও বাচ্চা (kid) ছেলেটি বাদরটিকে (monkey) জ্বালাচ্ছে বা খ্যাপাচ্ছে। প্রথমে বাদরটি বাচ্চাটিকে (kid)  কিছু বলছিলনা বা কিছু করছিল না শুধু রাগ দেখছিল ও বাচ্চাটির দিকে তাকিয়েছিল। তারপর বাচ্চাটি অত্যধিক মাত্রায় জ্বালানো শুরু করলে বাদরটি (Monkey) লাফ মেরে বাচ্চাটিকে একটা জোরে লাথি মারে। তাহলে দেখলেন তো আপনি যে অকারণে বাদরকে জ্বালাতন করে বাদরটি বাচ্চাটির সাথে কি করলো? বানররা যেমন বুদ্ধিমান তেমনি দুষ্টুও হয়, যারা তাদের প্রেমে পড়ে তার সাথে তারা ভালো ব্যবহার করে এবং যে তাদের জ্বালাতন করে বা বিরক্ত করে, তখন বানররা তাদের খারাপভাবে বিরক্ত করে। কখনো কখনো বানর রাগে কামড়ায়। এই কারণে বলা হয় যে বানরকে কখনই জ্বালাতন করা বা বিরক্ত করা উচিত নয়।

মানুষ এই ভিডিওটি অনেক দেখছে। ভিডিওটি ইনস্টাগ্রামে শেয়ার করেছেন গুরু সিং নামের এক ইউজার। ভিডিওটি এখনো পর্যন্ত ২ লাখের বেশি লাইক পেয়েছে ও এই ভিডিওটিতে মানুষ প্রচুর মন্তব্য করছেন। একজন ব্যবহারকারী লিখেছেন- এটি একটি কুংফু বাঁদর আরেকজন লিখেছেন- বাঁদরও বেশ দারুন স্টাইল মারে দেখছি।

Related Articles

Back to top button