কথা দিয়ে কথা রাখলো Google, এবার আমেরিকা জাপানের সাথে ভারতেও আসছে এই বিশেষ সুবিধা

‘গুগাল ম্যাপ’ নামটি এখন আমাদের জীবনের অতি প্রয়োজনীয় ও অতি পরিচিত একটু বস্তু হয়ে উঠেছে। বিশেষ করে যেই সব ব্যক্তিরা ট্যাক্সি চালিয়ে নিজের জীবিকা নির্বাহ করে তাদের জন্য গুগাল ম্যাপ তাদের কাজ করা প্রায় অসম্ভব বলা যেতে পারে। কারণ গুগাল ম্যাপ আমাদের অচেনা-অজানা রাস্তায় দিশা দেখায় যার সাহায্যে ড্রাইভাররা তাদের গাড়ি নিয়ে সঠিক গন্তব্যে সহজে পৌঁছাতে পারে।

এছাড়া সাধারণ মানুষকে দৈনন্দিন জীবনেও গুগাল ম্যাপের অনেক প্রয়োজন লাগে। যেমন যদি কেউ পথ হারিয়ে গেলে ফেলে তাহলে সেই ব্যক্তি ম্যাপ দেখে বা ম্যাপে যে ভয়েস ডায়েরেকসন থাকে তার মাধ্যমে সঠিক পথ খুঁজে নিতে পারি। এছাড়া আমাদের আসে পাশে কোথায় কোন দোকান, বাজার, পার্লার, অফিস, স্কুল, কলেজ আছে সেইসব যাবতীয় তথ্য আমরা গুগাল ম্যাপের মাধ্যমে জানতে পারি এবং এই ম্যাপের ডায়েরেকসন সিস্টেম দ্বারা ম্যাপ দেখে সেখানে সহজে পৌঁছেও যেতে পারি। তাই বলা যেতে পারে গুগাল ম্যাপ আমাদের জীবনের অতি প্রয়োজনীয় একটি বস্তু। আজ আমরা আমাদের এই আর্টিকেলে আলোচনা করবো গুগাল ম্যাপে আসা একটি নতুন ফিচারের বিষয়। আসুন জেনেনি কি এই নতুন ফিচারটি।

img 20220616 100243

গুগালের যেই নতুন ফিচারটি এসেছে সেটি কোন রাস্তায় কত টোল ট্যাক্স দিতে হবে এবং কোন রাস্তায় টোল ট্যাক্স দিতে হবে না সেই সংক্রান্ত তথ্য বলে দেবে গুগাল ম্যাপ। চলতি বছরের গত এপ্রিল মাসে এই পরিসেবা শুরু করার ঘোষণা করে দিয়েছিল তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থা গুগাল। মাত্র দুই মাসের মধ্যে অ্যান্ড্রয়েড ও আইওএস সফ্টওয়ারের জন্য এই পরিষেবার সূচনা করেছে গুগাল সংস্থা। টোল ট্যাক্স সংক্রান্ত সঠিক তথ্য পাওয়ার জন্য নিয়মিত স্থানীয় ভাবে টোল কেন্দ্রগুলির সঙ্গে যোগাযোগ রাখবে বলে জানিয়েছে গুগাল সংস্থা।

সূত্র থেকে জানা গেছে যে ভারতের পাশাপাশি আমেরিকা, জাপান ও ইন্দোনেশিয়ায়ও গুগাল চালু করেছে এই পরিসেবা। ভবিষ্যতে আরো অন্য দেশ গুলিতেও তারা এই পরিসেবা ছড়িয়ে দেবেন বলে জানিয়েছেন। জানিয়ে দি টোল ট্যাক্সের পরিসেবা ছাড়া আরেকটিও ফিচার যুক্ত করেছে গুগাল। এই নতুন ফিচারটি হলো গুগল ম্যাপে দেখা যাবে বিভিন্ন শহরের ‘এয়ার কোয়ালিটি ইন্ডেক্স’ বা বায়ু দূষণের মাত্রা।

Related Articles

Back to top button