দেখতে আসা পর্যটকদের নোংরা ভাষায় গালিগালাজ দিয়ে চিড়িয়াখানার নাম ডোবালো ৫ তোতা পাখি

তোতা পাখিরা কথা বলতে পারে তা কম বেশি সবারই অজানা নয়। তারা যা শোনে সেটাই বলে। কিন্তু উড্ডম গালি গালাজ করে তা কখনো শুনেছেন?? হ্যাঁ এরমই বিব্রতকর ঘটনা ঘটেছে ব্রিটেনের এক চিড়িয়াখানা। চিড়িয়াখানার কর্তৃপক্ষ এই নিয়ে যথেষ্ঠ সমস্যায়ও রয়েছে।

এক সপ্তাহ আগে যুক্তরাজ্যের লিঙ্কনশয়ার ওয়াইল্ডলাইফ পার্কে ৫ টি আফ্রিকান তোতা পাখি আনা হয়েছিল। তবে ভিন্ন ভিন্ন লোকের কাছ থেকেই তোতা পাখি গুলো কেনা হয়েছিল। পার্কের ১ টা খাঁচাতেই ৫ টি তোতা রাখা হয়েছিল।

পার্কের কর্মকর্তারা দেখেন, পাখি গুলো একে অপরকে গালি দেওয়া শুরু করেছে। এরপর দর্শনাথীদেরও গাল দিতে শুরু করে। শুধু গাল নয় অশ্লীল ভাষাও দিতে শুরু করে। অনেকে সেটা মজার ছলে দেখলেও, এবার অভিযোগ আসতে শুরু করে তোতা পাখি গুলোর নামে পার্কের কর্তৃপক্ষের কাছে। কারণ পার্কে বাচ্চারাও যায়।

শেষ পর্যন্ত পাখি গুলোকে আলাদা করে দেওয়া হয়। পার্কের কর্মকর্তারা মনে করেন, এক সাথে থাকার সময় তোতা গুলো একে অপরের ভাষা শিখেছে। পার্কের কর্মকর্তারা এটাও মনে করেন, সময়ের সাথে সাথে নতুন ভাষা তারা শিখবে। তবে চিন্তার ভাঁজ পড়েছে পার্কের প্রধান নির্বাহী নিকোলাসের।

 

তিনি জানিয়েছেন, ‘এই তোতারা যেমন গালি দিত, লোকেরা তাদের নিয়ে হাসত এবং লোকেরা যত বেশি হাসত, তত বেশি গালাগালি করত। এরপর পার্কে আসা শিশুদের কথা মাথায় রেখে আমরা সেখান থেকে এসব তোতাপাখি সরিয়ে আলাদা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আমি আশা করি এই তোতারা বিচ্ছেদের পরে কিছু নতুন শব্দ শিখবে, কিন্তু এই সময়ে তারা যদি আরও খারাপ ভাষা শিখে তবে আমি জানি না কী করব।’

Related Articles

Back to top button