বাজেটের দিক থেকে বলিউডের একাধিক ফিল্ম কে পিছনে ফেলে ভারতের সবচেয়ে ব্যয়বহুল সিনেমা’র খেতাব পেয়েছে দক্ষিণী এই ৫ টি সিনেমা

২০২২ সাল দক্ষিনী সিনেমার জন্য একটি সোনালী বছর প্রমাণিত হয়েছে। একের পর এক সুপারহিট ছবি রিলিজ হয়েছে এবছর। প্রায় প্রত্যেকটি সিনেমাই রেকর্ড ব্রেকিং বক্সঅফিস সংগ্রহ করেছে যা রীতিমতো বলিউডের ভবিষ্যত নিয়ে ভাবাচ্ছে। এই সব প্যান-ইন্ডিয়া স্তরের মুভি গুলি সিক্যুয়েল অর্থাৎ একাধিক পার্টে রিলিজ করছেন ছবি নির্মাতারা। একিসঙ্গে এই বিগ বাজেট ছবি গুলিকে আরও আকর্ষণীয় বানাতে, এর সিক্যুয়ালগুলির পিছনে জলের মত টাকা ঢালছেন তাঁরা। আজ আপনাদের এরকমই কিছু দক্ষিণ ভারতীয় ছবির সিক্যুয়েল সম্পর্কে বলব, যার বাজেট ছিল প্রথম অংশের থেকেও অনেক বেশী। আসুন জেনে নিন।

 

১. KGF: Chapter 2

আন্তর্জাতিক গ্যাংস্টার রকি ভাইকে নিয়ে রচিত গল্প ‘কেজিএফ চ্যাপ্টার 2’ ২০২২ সালে রিলিজ হওয়া সেরা অ্যাকশন ফিল্মগুলির মধ্যে একটি । ছবিতে অভিনয় করেছেন যশ, সঞ্জয় দত্ত, রাভিনা ট্যান্ডন, শ্রীনিধি শেঠি,প্রকাশ রাজ প্রমুখরা। প্রশান্ত নীল পরিচালিত এই ছবিটির সাফল্য দর্শক থেকে ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি সকলকেই অবাক করে দিয়েছে। সেইসাথে বিগ বাজেটের এই ছবিটি ২০১৮ সালের চলচ্চিত্র ‘KGF চ্যাপ্টার 1’-এর সিক্যুয়েল। প্রথম ছবিটির বাজেট যেখানে ছিল ৮০ কোটি সেখানে দ্বিতীয় অংশের জন্য ১০০ কোটি টাকা খরচ করেছেন নির্মাতারা।

২. Pushpa: The Rise

২০২১ সালে লকডাউনের পরে রিলিজ হয়েছিল ‘পুষ্প দ্য রাইজ’ ফিল্মটি । স্টাইলিশ স্টার আল্লু অর্জুন এবং অভিনেত্রী রশ্মিকা মন্দনা অভিনীত এই ছবিটি বিশ্বব্যাপী দুর্দান্ত সফলতা পেয়েছে। লাল চন্দন মাফিয়া পুষ্পার গল্প দর্শকদের এতোই পছন্দ হয়েছিল যে এর সিক্যুয়েল দেখার জন্য অধীর আগ্রহে তারা অপেক্ষা করছে। এজন্য এই ছবির দ্বিতীয় অংশ অর্থাৎ ‘পুষ্প দ্য রুল’-নিয়ে নির্মাতারাও তড়িঘড়ি কাজ শুরু করে দিয়েছেন। ছবির প্রথম অংশের বাজেট ছিল ১৭০ থেকে ২০০ কোটি টাকা। তবে ছবির দ্বিতীয় অংশের জন্য দ্বিগুন বাজেট অর্থাৎ ৪০০ কোটি টাকা খরচ করতে চলেছেন নির্মাতারা।

৩. Bahubali

এই তালিকায় এসএস রাজামৌলির ছবি ‘বাহুবলী’-র নামও রয়েছে। ছবিটির প্রথম অংশ ২০১৫ সালে মুক্তি পায় ‘বাহুবলী দ্য বিগিনিং’ নামে এবং দর্শকদের কাছ থেকে বেশ ভালো সারা পেয়েছিল ছবিটি। এই ছবির প্রথম অংশের বাজেট ছিল প্রায় ১৮০ কোটি টাকা। এর পরে, ২০১৭ সালে, ‘বাহুবলী: দ্য বিগিনিং’ ছবির দ্বিতীয় পর্ব ‘বাহুবলী দ্য কনক্লুশণ’ নিয়ে হাজির হন নির্মাতারা। রিলিজের পর এই ছবি এতটাই সফলতা পেয়েছিল যে আজও বক্সঅফিস আয়ের তালিকায় শীর্ষস্থান অধিকার করে আছে। সেইসঙ্গে, এর দ্বিতীয় অংশটি তৈরি করতে নির্মাতারা প্রায় ২৫০ কোটি টাকা ব্যয় করেছিলেন।

৪.Enthiran

‘এনথিরান’ মুভিটি একটি ভারতীয় তামিল-ভাষার বৈজ্ঞানিক কল্পকাহিনী ভিত্তিক অ্যাকশন ফিল্ম সিরিজ ছিল যার পরিচালনা করেছিলেন এস. শঙ্কর। এই ছবির হিন্দি সংস্করণটির নাম ছিল ‘রোবট’। ছবিতে রজনীকান্ত এবং ঐশ্বরিয়া রাইকে প্রধান ভূমিকায় দেখা গিয়েছিল। ২০১০ সালে এর প্রথম অংশটি রিলিজ হয়েছিল এবং ১৬২ কোটি টাকা বাজেট ছিল ছবিটির। প্রথম অংশের ব্যাপক সাফল্য দেখে ছবির নির্মাতারা দ্বিতীয় অংশের জন্য প্রায় ৫০০ কোটি টাকা খরচ করে বসে, কিন্তু দুর্ভাগ্যবশত ফ্লপ হয়ে যায় ছবিটি। ২০১৮ সালে মুক্তি পেয়েছিল ‘এনথিরানের’ দ্বিতীয় পর্ব ‘2.O’.

৫. Singham

২০১০- এর হিট অ্যাকশন ফিল্ম সিরিজ ছিল ‘সিংহম’। তামিল ভাষার এই ছবির তিনটি অংশ এখনও পর্যন্ত মুক্তি পেয়েছে। ছবিতে অভিনেতা সূর্য প্রধান ভূমিকায় অভিনয় করেছিলেন এবং সাথে ছিলেন আনুশকা শেঠি, প্রকাশ রাজ,বিবেক প্রমুখরা। ছবিটিতে একজন সৎ, নিষ্ঠাবান পুলিশ অফিসারের গল্প তুলে ধরা হয়েছে। এই ছবির প্রথম অংশ তৈরী করতে খরচ হয়েছিল মাত্র ১৫ কোটি টাকা। এর পর আসে ‘সিংহম 2’ যাতে ৪৫ কোটি টাকা খরচ হয় এবং সবশেষে ‘সিংহাম 3’-এর বাজেট ছিল প্রায় ৬৫ কোটি টাকা।

Related Articles

Back to top button