একসময় সালমানের চাকরের ভূমিকায় অভিনয় করা জেঠালাল আজ সালমানের সাথে করেন একাধিক ফিল্মের প্রমোশন

জনপ্রিয় টিভি সিরিয়াল “তারক মেহতা কা উল্টা চশমার” প্রিয় চরিত্র হলো জেঠালাল। যিনি এই চরিত্রে অভিনয় করেন, তিনি হলেন দিলীপ জোশীর। সম্প্রতি অভিনেতার ৫৪ তম জন্মদিন ছিল। এবছরের জন্মদিনটি বেশ ধুমধামের সাথেই উদযাপন করেছেন প্রবীণ অভিনেতা। অনেক টিভি তারকা এবং ভক্তরা তাঁকে জন্মদিনের শুভেচ্ছাবার্তা পাঠিয়েছেন এবং ভালোবাসায় ভরিয়ে দিয়েছেন।

অভিনেতা দিলীপ যোশী আজ টিভি জগতের একটি বড় নাম হলেও তাঁর ক্যারিয়ারে ছিল প্রচুর চড়াই-ওতরাই গেছে একটা সময়ে। তবে তাঁর দুরন্ত কমেডি দিয়ে ভক্তদের হৃদয় জিতে নেওয়া জেঠালাল একসময় সালমান খানের চাকরের ভূমিকাতেও অভিনয় করেছেন। আসুন আজ এই প্রতিভাবান অভিনেতার, শুন্য থেকে শুরু করে জনপ্রিয়তার শীর্ষে পৌঁছানোর কাহিনী সংক্ষেপে আপনাদেরকে জানাই।

সালমান খান অভিনীত ‘ম্যায়নে পেয়ার কিয়া’ দিয়ে দিলীপ তাঁর ক্যারিয়ার শুরু করেছিলেন। ছবিতে সালমানের চাকর রামুর ভূমিকায় দেখা গিয়েছিল তাঁকে। সেসময় দর্শকদের তাঁর অভিনয় বেশ পছন্দ হয়েছিল। এছাড়া সালমান খানের সঙ্গে ‘হাম আপকে হ্যায় কৌন’-ছবিতেও স্ক্রিন শেয়ার করেছিলেন, যেখানে তাঁকে মাধুরী দীক্ষিতের ভাইয়ের ভূমিকায় দেখা গিয়েছিল। দিলীপ জোশী শাহরুখ খানের ‘ফির ভি দিল হ্যায় হিন্দুস্তানিতেও’ অভিনয় করেছিলেন।

দিলীপ জোশী তাঁর কর্মজীবনে অনেক ফিল্ম এবং অনেক টিভি শোতেই কাজ করেছিলেন। কিন্তু সেসবের কোনোটাই দর্শকদের মনে দাগ কাটতে পারেনি। তবে তারক মেহতা শো-এর জেঠালাল হয়ে লাইমলাইট পেয়েছেন তিনি। ২০০৮ সালে তারক মেহতা সিরিয়ালের জন্য দিলীপ যোশীকে মনোনীত করেছিলেন শো এর নির্মাতারা। যা তাঁর জীবনের মোড় ঘুরিয়ে দিয়েছিল। তিনিও তাঁর কৌতুক চরিত্রটি ফুটিয়ে তুলতে কোনোরকম অলসতা করেননি। যার জন্য আজও ভক্তরা তাঁকে মাথায় করে রেখেছেন।

আপনাদের জানিয়ে রাখি, দিলীপ জোশী যখন প্রথম অভিনয় জগতে পা রেখেছিলেন তখন তাঁর পারিশ্রমিক ছিল মাত্র ৫০ টাকা। এমনকি ‘তারক মেহতা কা উল্টা চশমা’ শো-এ চান্স পাওয়ার আগে পুরো একবছর বেকার হয়ে বাড়িতে বসে থাকতে হয়েছিল তাঁকে। আজ সেই দিলীপ জোশী নিজের ক্ষমতায় ‘তারক মেহতা কা উল্টা চশমা’-এর সর্বোচ্চ পারিশ্রমিকপ্রাপ্ত অভিনেতা হয়েছেন। অভিনেতা দিলীপ যোশী হয়তোবা তাঁর কর্মজীবন একজন ব্যাকস্টেজ আর্টিস্ট হিসাবে শুরু করেছিলেন কিন্তু প্রকৃত খ্যাতি পেয়েছিলেন ‘জেঠালাল’ হয়ে। তারপর থেকে আজও তিনি রয়েছেন খ্যাতির শীর্ষে।

Related Articles

Back to top button