নদীর তলদেশে পাওয়া গেল ৩,৪০০ বছর পুরনো শহর, দেখুন ছবি

এর আগে অনেক বারই হাজার বছর বা তারও আগের বহু পুরনো জিনিসের আবিষ্কার হয়েছে। এবার প্রত্নতাত্ত্বিকদের একটি আন্তর্জাতিক দল ইরাকের কুর্দিস্তান অঞ্চলে ৩,৪০০ বছরের পুরনো একটি শহর (City) আবিষ্কার করেছে। টাইগ্রিস নদীর তলদেশে হাজার হাজার বছরের পুরনো এই শহরের (City) সন্ধান পাওয়া গেছে। সম্প্রতি এ তথ্য জানিয়েছেন প্রত্নতত্ত্ববিদরা।

প্রত্নতাত্ত্বিকদের দল বলেছে যে তারা ইরাকের টাইগ্রিস নদীর তলদেশ থেকে একটি ৩,৪০০ বছরের পুরানো শহরের অনেক অবশেষ খুঁজে পেয়েছে। যেটি ১৪৭৫ খ্রিস্টপূর্ব থেকে ১২৭৫ খ্রিস্টপূর্বাব্দের মধ্যে মিতান্নি সাম্রাজ্য দ্বারা বসতি স্থাপন করেছিল। টাইগ্রিস নদীর তীরে মসুল বাঁধে জল কম থাকায় এই শহরের আবিষ্কার সম্ভব হয়েছিল।

পাওয়া ধ্বংসাবশেষের মধ্যে রয়েছে মাটির ইটের দেয়াল, বেশ কয়েকটি টাওয়ার, বহুতল ভবন এবং অন্যান্য বড় স্থাপনা। যা মিতান্নি সাম্রাজ্যের এই প্রাচীন শহরটি নিয়ে কৌতূহল সৃষ্টি করে। এটি জাখিকু এই সাম্রাজ্যের মধ্যে একটি বাণিজ্য কেন্দ্র হওয়ার সম্ভাবনার উপরও জোর দেয়। প্রত্নতত্ত্ববিদ ড. ইভানা পুলজিজ উল্লেখ করেছেন যে ভবনগুলি পুরু মাটির দেয়াল দিয়ে যত্ন সহকারে ডিজাইন করা হয়েছিল।

এখান থেকে মাটির ১০টি কিউনিফর্ম ট্যাবলেটও পাওয়া গেছে। কিউনিফর্ম লেখার একটি প্রাচীন শৈলী। বর্তমানে এটি অনুবাদের জন্য পাঠানো হয়েছে। মজার ব্যাপার হলো, নিমজ্জিত হওয়া সত্ত্বেও শহরের মাটির ইটের দেয়ালগুলো অলৌকিকভাবে ভালোভাবে সংরক্ষিত ছিল। ১৯৮০ এর দশকের গোড়ার দিকে এখানে মসুল বাঁধ নির্মিত হলে শহরটিকে সমাহিত করা হয়েছিল।

তবে খরার কারণে তা আবারও পৃষ্ঠে দেখা গেছে।প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ডুবে যাওয়ার আগে এই স্থানটি প্রত্নতাত্ত্বিকদের দ্বারা পুঙ্খানুপুঙ্খভাবে তদন্ত করা হয়নি। তবে ডিসেম্বর থেকে এই অঞ্চলে তীব্র খরার মধ্যে প্রাচীন শহরের একটি অংশ আবার পৃষ্ঠে ফিরে এসেছে। প্রত্নতাত্ত্বিকরা বলছেন, এই আবিষ্কারের পর মিতান্নি সাম্রাজ্য সম্পর্কে আরও তথ্য সামনে আসবে। তিনি এটিকে সাম্প্রতিক দশকে একটি গুরুত্বপূর্ণ প্রত্নতাত্ত্বিক আবিষ্কার বলে বর্ণনা করেছেন।

Related Articles

Back to top button