দীঘায় সমুদ্রের নিচে গড়ে উঠবে ‘আন্ডারওয়াটার পার্ক’, এই সুড়ঙ্গ হবে পর্যটকদের বিরাট আকর্ষনের

পর্যটকদের কাছে দীঘার জনপ্রিয়তা বাড়াতে তৈরী হবে সুড়ঙ্গ, এই প্রকল্পে সমুদ্র তলদেশ ও সামুদ্রিক প্রাণী দৃশ্যমান হবে

দীঘা (Digha) পশ্চিমবঙ্গের পর্যটন স্থান গুলির মধ্যে অন্যতম। প্রতিবছর এখানে মানুষের ভিড় অনন্য। তবে এবার দিঘার আকর্ষণীয়তা বাড়াতে সমুদ্রের নিচে গড়ে উঠবে আন্ডার ওয়াটার পার্ক। যা দীঘার সমুদ্র সৈকত, থিয়েটার, মিউজিয়াম ও সায়েন্সসিটির পাশাপাশি এই পার্কও দর্শনীয় হয়ে উঠবে। প্রস্তাবিত সাবমেরিন মিউজিয়ামের সংলগ্ন স্থানেই তা গড়ে উঠবে।

Digha beach

হ্যাঁ, দীঘায় নতুন আন্ডারওয়াটার পার্ক (Underwater Park) গড়ে উঠতে চলেছে পশ্চিমবঙ্গ সরকারের উদ্যগতায়। জলের তলা দিয়ে থাকবে অ্যাক্রলিকের সুড়ঙ্গ। হাউজিং ইনফ্রাস্ট্রাকচার ডেভলপমেন্ট কর্পোরেশন (HIDCO) ইতিমধ্যেই এই প্রকল্পের নকশা ও পরিকল্পনার জন্য ভারতীয় আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলিকে প্রস্তাব দিয়েছে। ওল্ড দিঘার (Old Digha) কাছে একটি মেরিন অ্যাকোয়ারিয়াম ও রিজিওনাল সেন্টার থাকলেও সেটি বিশ্বমানের নয়। যার ফলে পর্যটকদের কাছে তেমন জনপ্রিয়তা পায়নি।

কিন্তু নতুন আন্ডারওয়াটার পার্কটি একেবারে আলাদা হতে চলেছে। উদ্যগতাদের দাবি এটি সিঙ্গাপুরের ধাঁচে গড়ে তোলার পরিকল্পনা। দীঘার জগন্নাথ মন্দিরের প্রকল্পটি নিয়ে তোড়জোড় চলছে। সেখান থেকে এই আন্ডার ওয়াটার পার্ক নিয়ে চিন্তাভাবনা। মনে করা হচ্ছে এই সুড়ঙ্গ তৈরি হলে পর্যটকদের কাছে দীঘা আরও আকর্ষণীয় হয়ে উঠবে।

এটি পরিদর্শনের জন্য থাকবে টিকিটের ব্যবস্থা। আশেপাশে ও উপর দিয়ে সামুদ্রিক প্রাণীকূলের চলাফেরা লক্ষ্য করা যাবে। এখানে অনুভবও করা যাবে সমুদ্রের তলদেশ কেমন হয়। এতে করে মানুষের সামুদ্রিক প্রাণীর প্রতি আগ্রহ আরও বাড়বে।

Underwater park

নির্মাণ সংস্থা হিডকোর দাবি, এটি পেশাদার ভাবে গড়ে তোলা হবে। সাধারণত এটি সরাসরি ভাবে সমুদ্রের তলায় গড়ে তোলা সম্ভব না। তাই সমুদ্রের পাড়ে নির্দিষ্ট কোন স্থানে সুড়ঙ্গ করে সমুদ্রের জল প্রবেশ করানো হবে। জল যাতে স্বচ্ছ আছে সেদিকে নজর দেওয়া হবে। এই সুড়ঙ্গ সমুদ্র তলদেশের একটি ছোট রূপ তুলে ধরবে। যেখানে সমুদ্রের তলদেশ, সামুদ্রিক প্রাণী বিভিন্ন বিশষ স্পষ্ট হবে। নির্মাতাদের দাবি সবে এটির পরিকল্পনা চলছে তার বাস্তব রূপ নিতে বেশ কিছুদিন সময় লাগবে। এটি নির্মাণ হলে পর্যটকদের কাছে দিঘার জনপ্রিয়তা আরও বৃদ্ধি পাবে।

Related Articles

Back to top button