হাতে ছিল না কাজ, সংসারে অভাব-অনটন! কোথা থেকে এসেছিল কাঁচা বাদামের আইডিয়া খোদ দাদাগিরির মঞ্চে জানালেন ভুবন

বর্তমান ইন্টারনেট ব্যবস্থা খুবই উন্নত। আজকাল ইন্টারনেটে একবার ভাইরাল হয়ে গেলে রাতারাতি জনপ্রিয় হয়ে ওঠে কোন ব্যক্তি। কোনকিছু জিনিস ভালো করলে বা চোখে লাগার মত কোন জিনিস ইন্টারনেটে শেয়ার হলে ব্যাপকহারে ভাইরাল হয়ে যায়। সোশ্যাল মিডিয়ায় প্লাটফর্মগুলোতে খুব দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে। আজকাল জনপ্রিয় হতে গেলে আগের সময়ের মতো এতটা পরিশ্রম করতে হয় না।

কিছুদিন আগে ইন্টারনেটে জনপ্রিয়তা পেয়েছিলেন বাদাম বিক্রেতা ভুবন বাদ্যকর। তাঁর কাঁচা বাদাম গানটি ইন্টারনেটে শেয়ার হতেই ব্যাপকহারে ভাইরাল হয়েছিল। তাঁর গানটি শুধু দেশে নয় বিদেশেও ছড়িয়ে গিয়েছে। তাঁর সাথে দেখা করতে অনেক ইউটিউবাররা যেমন এসেছে, তেমনি অনেক সেলিব্রেটি তারকারাও কিছু অর্থ সাহায্য করেছেন ভুবন বাবুকে। তেমনি কিছু রাজনীতিবিদও তাঁর সাথে দেখা করেছেন।

একটা সময়ে তিনি পুলিশ স্টেশনে গিয়ে অভিযোগ করেছিলেন, তাঁর গানের জন্য তিনি যথাযোগ্য পুরস্কার বা অর্থ পাচ্ছেন না। এদিকে তাঁর গানটি ব্যবহার করে অনেকে টাকা উপার্জন করছেন। তারপর থেকেই প্রশাসন নড়ে চড়ে বসেছে। অনেক রাজনীতিবিদরাও তাঁর সাথে দেখা করতে আসছে। তাঁর গানটি এতটা জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে, এই গানের রিল বানিয়েছেন তানজানিয়া বা ফ্রান্সের মতো কিছু বিদেশি দেশের ইউটিউবাররা। এবার ভুবন বাদ্যকরকে দেখা গেল দাদাগিরির মঞ্চে।

 

দাদা সৌরভ গাঙ্গুলি তাঁকে জিজ্ঞাসা করেছিলেন, তিনি কেন কাঁচা বাদাম গানটি গেয়ে বাদাম বিক্রি করতেন? তখন ভুবন বাবু জানিয়েছেন, ‘আমি আমার পুরো পরিবারকে নিয়ে একটা ভাঙ্গা বাড়িতে থাকি। আমি ছোট থেকেই খাটছি। ছোট থেকেই আমি সংসারের অভাব দেখেছি। একবার একটা গুদামে দেখি, সেই গুদামের মালিক ভাঙা মোবাইল, ছেড়া চুল, হাঁসের পালক প্রভৃতি নিচ্ছে এবং তার বদলে টাকা দিচ্ছে। তখন থেকেই আমি কাচা বাদাম বিক্রি করি এবং তার সাথে এই গানটি গায়।’