কলেজ ছেড়ে শুরু করেছিলেন এই কোম্পানি, ১৯ বছরের ছেলে এখন দেশের সবথেকে ধনী যুবক

Zepto গ্রসারি ডেলিভারি কোম্পানি আজ ভারতের সফল কোম্পানি

কুইক ডেলিভারি স্টার্টআপ Zepto-এর কো-ফাউন্ডার কৈবল্য ভোহরা ও অদিত পালিচা ২০২২-এ যুক্ত হওয়া সবচেয়ে কম বয়সী উদ্যোক্তা হিসাবে পরিচিত হয়েছেন। মাত্র ১৯ বছর বয়সে কৈবল্য ভোহরা ভারতের সবচেয়ে ধনী ব্যক্তিদের মধ্যে অন্যতম হয়ে উঠেছেন। হুরুন লিস্টে কৈবল্য ভোহরা-র সম্পত্তি প্রায় ১০০০ কোটি বলা হচ্ছে। আর তাই তিনি ১০৩৬ নম্বর স্থানে রয়েছে। তবে অদিত পালিচা ৯৫০ নম্বর স্থানে রয়েছেন। আর তার সম্পত্তির পরিমান হলো ১২০০ কোটি টাকা। এর আগে এনারা দুজন ফোর্বস ম্যাগাজিনের ইনফ্লুয়েনশিয়াল থার্টি আন্ডার থার্টি (এশিয়া লিস্ট)-এ ই-কমার্স ক্যাটাগরিতে অন্তর্ভুক্ত ছিল।

 

Kaivalya Vohra and Aadit palicha

এছাড়া গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো এই দুজন যুবক এনট্রপ্রনোর হুরুন ইন্ডিয়া ফিউচার ইউনিকর্ণ ইনডেক্স ২০২২-এ সবচেয়ে কম বয়সী স্টার্টআপ ফাউন্ডার। কৈবল্য ভোহরা ও অদিত পালিচার এতো অল্প বয়সে সবচেয়ে ধনী ব্যক্তিদের তালিকায় নিজেদের নাম লেখাতে সক্ষম হওয়া এই বিষয়টিকে প্রদর্শন করে যে দেশে স্টার্টআপ বা ব্যবসার প্রভাব বৃদ্ধি পাচ্ছে। হুরুন ইন্ডিয়া রিচ লিস্ট লিখেছে যে ‘একজন টিনেজার এই লিস্টে ডেবিউ করেছে। এই লিস্টে সবচেয়ে যুবক ব্যক্তি হলো ১৯ বছর বয়সী যিনি Zepto কোম্পানিটিকে স্থাপন করেছেন। ১০ বছর আগে এই লিস্টের সবচেয়ে যুবক ব্যক্তি ছিল ৩৭ বছর বয়সী। আর আজ এই তালিকায় সবচেয়ে যুবক ব্যক্তির বয়স মাত্র ১৯ বছর। এই ঘটনা স্টার্টআপ ক্রান্তির প্রভাবের প্রদর্শন করে।

Zepto

কৈবল্য ভোহরা ও অদিত পালিচা এই দুজনেই স্ট্যানফোর্ড ইউনিভার্সিটির স্টুডেন্ট ছিলেন। এই দুজনে কম্পিউটার সাইন্স কোর্সের থেকে ড্রপআউট করেছিলেন এবং এনট্রপ্রনোরশিপের দিকে পদক্ষেপ রেখেছিলেন। ২০২১ এনারা zepto কোম্পানিটির শুরু করেছিলেন। এই কোম্পানিটি খোলার মূল উদ্দেশ্য ছিল যে মহামারীর দিনগুলিতে প্রয়োজনীয় পণ্যগুলির দ্রুত এবং কনট্যাক্টলেস ডেলিভারির চাহিদা মেটানো। পালিচা ১৭ বছর বয়সে উদ্যোক্তা হিসেবে এনট্রপ্রনোরশিপের দিকে তারযাত্রা শুরু করেছিলেন। তিনি ২০১৮ সালে GoPool নামে ছাত্রদের জন্য একটি কারপুল পরিষেবা প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। তার স্টার্টআপ শুরু করার আগে তিনি প্রাইভেসি পলিসির উপর আর্টিফিসিয়াল ইন্টিলিজেন্সের উপর ভিত্তিক প্রোজেক্ট pryvasee-এর সাথে প্রজেক্ট লিডে ছিলেন।

Zepto

জানিয়ে দি ভোহরা ও পলিচা দুবাইয়ে বড় হয়েছেন ও তারা ছোটবেলা থেকেই বন্ধু। তারা প্রথমে কিরানাকার্ট নামে একটি স্টার্টআপ শুরু করেছিলেন। এটি একটি অনলাইন প্ল্যাটফর্ম যা মুম্বাইয়ের স্থানীয় দোকান থেকে রেশন আইটেম সরবরাহ করতো। এই প্ল্যাটফর্মটি জুন ২০২০ থেকে মার্চ ২০২১ পর্যন্ত চালু ছিল। এরপর দুজনে ২০২১ সালের এপ্রিলে zepto কোম্পানির প্রতিষ্ঠা করেছিলেন এবং নভেম্বরে প্রাথমিক ফান্ডিং রাউন্ডে ৬০ মিলিয়ন ডলার সংগ্রহ করেছিলেন। ডিসেম্বরে দ্রুত গ্রোসারি ডেলিভারি প্ল্যাটফর্ম ৫৭০ মিলিয়ন ডলার মূল্যের সাথে ১০০ মিলিয়ন ডলার সংগ্রহ করে। একই সাথে মে মাসে তার সর্বশেষ ফান্ডিং রাউন্ডে Zepto ৯০০ মিলিয়ন ডলার মূল্যায়নের সাথে ২০০ মিলিয়ন ডলার সংগ্রহ করেছে।

Related Articles

Back to top button