বাবা করতেন সাইকেল রিপেয়ারিং এর কাজ, মাথায় আসা দুর্দান্ত আইডিয়াকে কাজে লাগিয়ে আজ ২ কোটি টাকার মালিক ছেলে

আজকে সবাই মনোজ দে (Manoj Dey) কে চেনেন, বিশেষ করে যারা নিজেরাই ইউটিউবার হতে চান। বর্তমানে তিনি ইউটিউব থেকে প্রতি মাসে লাখ লাখ টাকা আয় করছেন। তবে এই অবস্থান অর্জনের জন্য তিনি কতটা পরিশ্রম করেছেন সে সম্পর্কে জানেন কি! আজ এই সম্পর্কেই বলা হবে যাচ্ছি কিভাবে মনোজ দে ইউটিউবে সফল হয়ে মাসে লাখ টাকা আয় করছেন।

মনোজ দে (Manoj Dey) একজন ইউটিউবার, এবং তার দুটি চ্যানেল রয়েছে একটি হল “মনোজ দে” এবং অন্যটি মনোজ দে ভ্লগ৷ তিনি তার প্রথম চ্যানেল “মনোজ দে”-এ ইউটিউব, ট্রিক্স নিয়ে ভিডিও তৈরি করতেন। অন্যান্য চ্যানেলে লাইফস্টাইল ভিডিও আপলোড করতেন। আরেকটি চ্যানেলেই তিনি প্রতিদিন ভিডিও আপলোড করে। মনোজ দে ১২ জুলাই ১৯৯৫ সালে ঝাড়খণ্ডের ধানবাদে জন্মগ্রহণ করেন।

মনোজের বাবা সাইকেল মেরামতের কাজ করতেন। যার কারণে তার সংসারের খরচ চালানোও কঠিন ছিল। তাই তিনি বাচ্চাদের টিউশনি পড়িয়ে বাবাকে সাহায্য করতে শুরু করেন। এরপর ২০১৬ সালে ইউটিউব সম্পর্কে জানতে পারেন মনোজ। আর নিজের একটি ইউটিউব চ্যানেল করার কথাও ভেবেছিলেন। তারপর ২৪ নভেম্বর ২০১৯-এ মনোজ দে তার নিজস্ব ইউটিউব চ্যানেল তৈরি করেন।

তবে মোবাইল রিচার্জ করার টাকাও তাদের কাছে ছিল না। তাই বন্ধুদের কাছ থেকে ধার করে মোবাইল রিচার্জ করতেন মনোজ। এরপর তিনি তার ইউটিউব চ্যানেলে নিয়মিত ভিডিও আপলোড করতে থাকেন। এরপরই বদলে দিয়েছে মনোজ দে-র পুরো জীবন। ইউটিউবে তিনি এতটাই বিখ্যাত হয়ে গেলেন যে আজ ইউটিউব থেকে লাখ লাখ টাকা আয় করছেন।

আজ মনোজও নিজের পরিশ্রমে বাড়ি ও গাড়ি কিনেছে। মনোজ দে এখন একজন বিখ্যাত ভারতীয় ইউটিউবার। এবং তিনি ইনস্টাগ্রাম, ব্লগিং থেকে লক্ষ লক্ষ টাকা আয় করছেন। আজ মনোজ একজন সফল ইউটিউবার হয়ে উঠেছেন এবং তিনি নিজেই ইউটিউব থেকে কোটি কোটি টাকা উপার্জন করেছেন। তিনি আজ ভারতের একজন সফল এবং শীর্ষ য়উটুবের দের মধ্যে একজন।

Related Articles

Back to top button