বাবা চালাতেন ট্রাক, দরিদ্র ঘরের ছেলে হয়েও ছাড়েনি লেখা পড়ার হাল কঠোর পরিশ্রম করে UPSC পরীক্ষায় পাশ করে আজ IAS

কথায় আছে ভাগ্য তাদেরই পক্ষ নেয় যারা খারাপ পরিস্থিতিতে হাল ছেড়ে না দিয়ে নিজেদের এগিয়ে নিয়ে যায়। তবে সেই পরিস্থিতির বিরুদ্ধে কতটা সাহসিকতার সঙ্গে লড়াই করা সেটাই কিন্তু গুরুত্বপূর্ণ। যা নিজের অস্তিত্ব তৈরি করতে সফল করে। মনেপ্রাণে কঠোর পরিশ্রম করলে অবশ্যই সফলতা পাওয়া যায়। আজ এমনই এক ছেলের কথা বলা হবে যার বাবা নিজেই সংগ্রাম করে সাফল্য পেয়েছেন।

ট্রাক চালিয়ে তার পরিবারের দেখভালও করেছেন। এরপর নিজে শিক্ষক হয়েছেন। আর তাঁর নির্দেশিকা থেকে অনুপ্রেরণা নিয়ে তাঁর ছেলে রাকেশ খেয়ালিয়াও (Rakesh Kheyalia) আইএএস অফিসারের পদ পেয়েছেন। তাহলে জেনে নেওয়া যাক তাদের সাফল্যের গল্প।

রাকেশ খায়ালিয়া সিকারের কাতরথালের বাসিন্দা

তিনি সিকারের কাতরথালের বাসিন্দা। আর তার বেড়ে ওঠা খুব দরিদ্র পরিবারে। যেহেতু বাড়িতে সম্পদের অভাব ছিল, তাই নিজেকে প্রমাণ করাটাও একটি কঠিন কাজ। আজ রাকেশ খেয়ালিয়া (Rakesh Khayalia) সকল যুবকদের জন্য অনুপ্রেরণা। তিনি নিজের একটি পরিচয় প্রতিষ্ঠা করেছেন।

রাকেশ খেয়ালিয়ার বাবা ট্রাক চালাতেন

রাকেশের (বাবা বাড়ি টিকিয়ে রাখতে এক সময় ট্রাক চালাতেন। আর নিজের পরিশ্রমের জোরে আজ তিনি নিজেই সরকারি শিক্ষক হিসেবে কাজ করছেন। সম্ভবত এটাই রাকেশের জন্য সবচেয়ে বড় অনুপ্রেরণা। তিনি তাদের শিখিয়েছে, পরিস্থিতির সামনে সবকিছুকে বিশ্বাস না করে নিজের জন্য চেষ্টা চালিয়ে যেতে হবে, সাফল্য অবশ্যই পাওয়া যাবে।

রাকেশ খেয়ালিয়া কলেজের সেই ঘটনা একটি টার্নিং পয়েন্ট হয়ে ওঠে

রাকেশ খেয়ালিয়ার জন্য, তার কলেজের দিনগুলিতে একটি দুর্দান্ত প্রোগ্রাম তার জন্য একটি টার্নিং পয়েন্ট হয়ে দাঁড়ায়। কারণ ওই ঘটনার সব দায়িত্ব ছিল তার। যার সুবাদে আজ তিনি সমাজসেবার প্রতি সচেতন হয়ে উঠেছেন। তিনি আইএএস পরীক্ষার জন্যও ভেবেছিলেন।তার প্রচেষ্টার জোরে, তিনি UPSC পরীক্ষায়ও উত্তীর্ণ হন এবং OBC-এর অধীনে ২৮তম স্থান পেয়ে আইএএস-এর র‌্যাঙ্ক করেন।

Related Articles

Back to top button