১২ বছর বয়স থেকে দিনমুজুরি করে চালাতে হতো ঘর, আজ করেন বার্ষিক ১০০ কোটি টাকার ব্যাবসা

আজ এমন একজন ব্যক্তির কথা বলা হবে যিনি তার জীবনের সেই পর্বটি দেখেছেন যা সম্ভবত কেউ কল্পনাও করতে পারে না। ছোটবেলায় বাড়িতে দারিদ্র্য ও আর্থিক সংকটের পরিবেশ এতটাই ছিল যে, তাকে মজুরের কাজ করতে হয়েছে। তবে সেই ব্যক্তি হাল ছাড়েননি এবং নিজের পরিশ্রমে ভাগ্য পরিবর্তন করেন। আজ তিনি শুধু কোটিপতি নন, অন্যদের জন্যও অনুপ্রেরণা। আসলে রাজস্থানের (Rajasthan)  ভানওয়ারলাল (Vanwarlal) আর্যের কথা বলা হচ্ছে।

১২ বছর বয়সে শ্রম করেছিলেন

ভানওয়ারলাল (Varwarlal) আর্য ১৯৬৯ সালের ১ জুন রাজস্থানের কল্যাণপুর তহসিলের বাগনির ধানিতে জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর পিতার নাম রানারাম মুন্ডন এবং মাতার নাম রাজোদেবী। তাদের বাড়ির আর্থিক অবস্থা খুবই খারাপ ছিল। এ সময় তাকে পেট ভরানোর জন্যও পরিশ্রম করতে হয়েছে। ১২ বছর বয়সে, ভানওয়ারলালের জন্য শ্রমিক হিসাবে কাজ করা খুব কঠিন ছিল। তবে পরিবারের আর্থিক অবস্থার সামনে তিনি ছিলেন অসহায়।

কর্ণাটকের এক শেঠ তাদের দোকানে রেখেছিলেন। শুরুতে তার মালিক তাকে খাবার, কাপড় ও থাকার জায়গা দিতেন। পরে তিনি তাদের ৫০ টাকা বেতনও দিতে থাকেন। এই দোকানটিই ভানওয়ারলালের জীবন বদলে দিয়েছিল।

৩০ হাজার টাকা দিয়ে শুরু করেন পোশাকের ব্যবসা

আসলে এই দোকানে রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘের লোকজন আসতেন। তাঁর নির্দেশে ভানওয়ারলাল সংঘের শাখায় যেতে শুরু করেন। পরে তিনি সঙ্ঘের শাখার সাথে এতটাই অনুরক্ত হয়ে পড়েন যে এর জন্য তিনি চাকরি ছেড়ে দেন। ২২ দিনের ক্যাম্পে যাওয়ার জন্য মালিক তাকে ছুটি দেন না। সংঘ শিবিরে বিপ্লবীদের জীবনের ঘটনাগুলি তাকে প্রভাবিত করেছিল।

বহু বছর সংগ্রামের পর, তিনি সিদ্ধান্ত নেন যে তিনি এখন নিজের কিছু কাজ করবেন। এই চিন্তায় তিনি প্রায় ৩০ হাজার টাকা বিনিয়োগ করে কাপড়ের ব্যবসা শুরু করেন। এক বছরের মধ্যে ভানওয়ারলাল এক লাখ টাকা পর্যন্ত লাভ পান। তারপর ১৯৯০ সালে তিনি একটি দোকান কিনেছিলেন এবং তার ছোট ভাইয়ের সাথে ‘জনতা টেক্সটাইল’ এর ভিত্তি স্থাপন করেন।

তারপর আসে সেই দিন, যেদিনের অপেক্ষায় ভানওয়ারলাল কয়েক দশক ধরে। এখন তিনি এলাকায় খ্যাতি অর্জন করেছেন। এত বিখ্যাত হওয়ার সুবাদে তিনি নিজ এলাকার বণিক সমিতির সভাপতি নির্বাচিত হন।

‘জনতা টেক্সটাইল’-এর টার্নওভার ১০০ কোটির বেশি

তার “জনতা টেক্সটাইল” বাড়ছে এবং তিনি দেশের কোটিপতিদের একজন। তার জনতা টেক্সটাইলের বার্ষিক টার্নওভার ১০০ কোটি ছাড়িয়েছে। তার সামাজিক কাজের জন্য, ভানওয়ারলাল কর্ণাটক রাজ্য উৎসব, সংস্কার ভারতী থেকে যোগ রত্ন-এর মতো অনেক পুরস্কারে সম্মানিত হয়েছেন।

Related Articles

Back to top button