এক সময় ১০০ টাকা দিয়ে শুরু করেছিলেন ব্যাবসা, আজ করেন বার্ষিক ৭ কোটির বিজনেস

ভারতে, গৃহবধূরা কেবল গৃহস্থালির কাজেই সীমাবদ্ধ নয়। এলাকা নির্বিশেষে মহিলারা ঘর এবং বাইরের পৃথিবী উভয়ই ভালভাবে চালাতে পারে।

শেফ নীতা মেহেতা (Nita Meheta)

শেফ নীতা মেহেতা (Nita Meheta), যিনি একসময় গৃহিণী ছিলেন। তিনিও সেই নারীদের মধ্যে একজন যিনি নিজেকে প্রতিষ্ঠা করেছেন। আজ নীতা শর্মার অনুপ্রেরণামূলক গল্প সম্পর্কে বলা হবে, যা প্রতিটি মহিলাকেই অনুপ্রাণিত করবে। তাহলে জেনে নেওয়া যাক নীতা মেহতা সম্পর্কে।

কে এই শেফ নীতা মেহতা

নীতা মেহতা রান্না জগতের একজন পরিচিত মুখ। একজন শেফ হওয়ার পাশাপাশি তিনি একজন কলামিস্ট, লেখক, সাহিত্যিকও। নীতা মেহতা (Nita Meheta) রান্নার সাথে সম্পর্কিত অনেক শো হোস্ট করেছেন এবং অনেক বিখ্যাত রান্নার বইও লিখেছেন। একসময় গৃহিণী ছিলেন নীতা, আজ সুপরিচিত ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের মালিক। একজন সফল গৃহিনী থেকে বড় ব্যবসার মালিক হওয়া নীতার পক্ষে এতটা সহজ ছিল না।

বলা হচ্ছে ১৯৮২ সালের কথা, যখন নীতার স্বামীর ওষুধের ব্যবসা ছিল। তবে সেই ব্যবসা থেকে কোনো আয় হচ্ছিল না। এমন পরিস্থিতিতে নীতা তার স্বামীকে সাহায্য করার সিদ্ধান্ত নেন। যার জন্য তিনি একটি রান্নার ক্লাস শুরু করেছিলেন। একটা সময় ছিল যখন নীতা ছাত্রদেরকে মাত্র ১০০ টাকায় রান্না শেখাতেন।

শেফ নীতা মেহতা সেলিব্রিটি হয়ে উঠেছেন

ধীরে ধীরে, শেফ নীতার ক্লাসগুলি আরও জনপ্রিয় হয়ে ওঠে। এতে উৎসাহিত হয়ে নীতার বন্ধুরা তাকে বই প্রকাশে উৎসাহিত করে। এরপর ১৯৯২ সালে নীতা তার প্রথম বই ‘ভেজিটেরিয়ান ওয়ান্ডারস’ লেখেন। নীতার এই বইটি অনেকেই পছন্দ করেন। নীতা সেই বছর প্রায় ৩,০০০ কপি বিক্রি করেছিল।

যা তাকে আরও বিখ্যাত করে তুলেছিল। বইটির সাফল্যের পর নীতা অন্য বই প্রকাশের কথা ভেবেছিলেন। এখন পর্যন্ত তার ৪০০টি বই প্রকাশিত হয়েছে। তার একটি বই ‘ফ্লেভারস অফ ইন্ডিয়ান কুকিং’ প্যারিস ওয়ার্ল্ড কুক বুক ফেয়ার অ্যাওয়ার্ডে ভূষিত হয়।

কঠোর পরিশ্রমের পর মাল্টি বিজনেস উইমেন হয়েছেন

যখন শেফ নীতার বইগুলি বিখ্যাত হতে শুরু করে, তখন তিনি নিজের প্রকাশনা খোলেন। যার সাথে তিনি ১৯৯৪ সালে স্নাব পাবলিশার্সের মালিক হন। তিনি শিশুদের সম্পর্কিত অনেক বইও প্রকাশ করেন। স্নাব পাবলিশিং শুরু হয়েছিল ৪ লাখ থেকে, কিন্তু আজ এই ফার্ম কোটি টাকা আয় করে। প্রকাশের পর, তিনি মসলার ব্যবসার চেষ্টা করেছিলেন যেখানে তিনি প্রচুর সাফল্য পান।

Related Articles

Back to top button