রাতারাতি লাখপতি হবার সুবর্ণ সুযোগ, বাড়িতে আরশোলা ছাড়তে দিলেই এই কোম্পানি দেবে দেড় লাখ টাকা

উপদ্রবের আরেক নাম হলো আরশোলা(Cockroach). বাড়ির স্বাস্থ্যকর পরিবেশকে অস্বাস্থ্যকর করে তুলতে
এই পোকাগুলোর জুড়ি মেলা ভার। আরশোলা
নানারকম নোংরা আবর্জনায় ঘুরে বেড়ায় এবং এরা রোগজীবাণু ছড়ায়। ঘৃণ্য প্রকৃতির এই প্রাণীটির থেকে কমবেশি সকলেই নিষ্কৃতি পেতে চায়। আর এর জন্য নানা রকমের কীটনাশক প্রয়োগও করে থাকেন অনেকে। কিন্তু আজ আপনাদের এমন একটি খবর বলব, যার পর অনেকেই হয়তো আরশোলাকে আর তাড়াতে চাইবেন না। ভাবছেন কেনো? আসুন আপনাদের ঘটনাটি বিস্তারিত বলি।

Coacroach

আরশোলাকে তো সবাই ঘর থেকেই বিদায় করতে চান। কিন্তু আপনারা জানলে ভীষণই অবাক হবেন যে আরশোলা ঘরে রাখতে দিলেই পাওয়া যাচ্ছে নগদ $২০০০ ডলার বা ভারতীয় মুদ্রায় দেড় লক্ষ টাকা। হ্যাঁ এমনই অদ্ভুত ঘটনা ঘটছে মার্কিন মুলুকে। আসলে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের( United Kingdom) একটি কীটপতঙ্গ ব্যবস্থাপনা কোম্পানি সম্প্রতি সেখানকার বাড়ির মালিকদের একটি অফার দিচ্ছে যেখানে তারা আরশোলার উপদ্রব কীভাবে পুরোপুরি কমানো যায় তা নিয়ে গবেষণা করতে চাইছেন। যার জন্য তাদের বাড়ি ভর্তি আরশোলার প্রয়োজন পড়েছে।

‘দ্য পেস্ট ইনফর্মার'(The Pest Informer)নামের কীটপতঙ্গ নাশক সংস্থা তাদের ওয়েবসাইটে এই অফারের বিশদ বিবরণ পোস্ট করেছেন। যেখানে তারা বলেছেন – আমেরিকান আরশোলাগুলোকে তারা গ্রাহকদের বাড়িতে ছেড়ে দিতে চান এবং একটি নির্দিষ্ট কীটপতঙ্গ নিয়ন্ত্রণ কৌশল নিয়ে পরীক্ষা করতে চান এবং তাদের পদ্ধতি কতটা কার্যকর হতে চলেছে? তা নির্ধারণ করতে চান। সেজন্য তারা একমাসের জন্য বাড়ি লিজ (Lease) নিতে চাইছেন এবং বদলে ২০০০ ডলার গৃহকর্তাদের অফার করছেন। তাদের এখন মূল লক্ষ্য আরশোলার উপদ্রব থেকে মুক্তি পাওয়ার নতুন উপায় খুঁজে বার করা।

Coacroach

একটি বিবৃতিতে, সংস্থাটি জানিয়েছে যে তারা ৫-৬ জনকে খুঁজছে, যারা তাদের বাড়িতে ১০০ টি আরশোলা ছেড়ে দিতে ইচ্ছুক। তবে কোম্পানি একটি শর্ত রেখেছেন। তারা জানিয়েছেন ৩০ দিন সময়কালের মধ্যে গৃহকর্তা বাড়িতে অন্য কোন কীটনাশক ব্যবহার করতে পারবেন না। যাইহোক, যদি তাদের এই নতুন গবেষণাটি বিফল হয়ে যায় তাহলে কোম্পানিটি আরশোলা গুলির উপরে অন্য বিকল্পগুলি প্রয়োগ করবে এবং তাদের মারবার চেষ্টা করবে। সেইসাথে আরশোলার জন্য যদি গৃহকর্তার যদি কোনরকম সমস্যা তৈরি হয় অথবা ঘর অপরিচ্ছন্ন হয়ে যায় তাহলে সংস্থাটি সমস্ত দায়িত্ব নেবে। প্রসঙ্গত জানিয়ে দিই, আমেরিকান আরশোলা গুলির শক্ত খোলস, স্থিতিস্থাপকতা এবং তারা যে গতিতে প্রজনন করে থাকে তা থেকে পরিত্রাণ পাওয়া সত্যিই চ্যালেঞ্জয়িং।

Related Articles

Back to top button