দৈত্যাকারের এই মাছটি বিশ্বের সবচেয়ে ভারি মাছ, এর ওজন শুনলে কপালে উঠবে চোখ

অদ্ভুতাকারের এই মোলা মাছ বিশ্বের সবচেয়ে ভারী মাছ, প্রাণীদের মধ্যে এই মাছের প্রজনন ক্ষমতা সবচেয়ে বেশি

এমন অনেক সামুদ্রিক প্রাণী আছে যা আমাদের অবাক করে থাকে। তার মধ্যে বিভিন্ন ধরনের সামুদ্রিক মাছ খুব আশ্চর্যজনক। যদি বলা হয় সমুদ্রের সবচেয়ে বড় মাছ তিমি হাঙ্গর। কিন্তু জানেন কি সমুদ্রের সবচেয়ে ভারী হারের মাছ কোনটি? আসুন তাহলে এই নিবন্ধে জেনে নেওয়া বিশ্বের সবচেয়ে ভারী ওজনের মাছ (Heaviest fish) সম্পর্কে।

Mola fish

আমরা আপনাকে যে মাছের কথা বলতে যাচ্ছি সেটি হার সহ বিশ্বের সবচেয়ে ভারী মাছ। এই মাছ দেখতে পুরো দৈত্যাকারের। এই প্রজাতির পরিপূর্ণ এক মাছ বিশ্বের সবচেয়ে ভারী হাড়ের মাছে পরিণত হয়েছে। মিডিয়া রিপোর্ট অনুযায়ী, এই মাছের ওজন ২,৭৪৪ কেজি। আশ্চর্যের বিষয় হলো এই মাছের লার্ভা হওয়া দেখলে আপনি অবাক হবেন। মাছটি দেখতে অদ্ভুত হলেও লাভ হয় খুব সুন্দর।

সাগরে বসবাসকারী এই মাছটির কথা বলা হচ্ছে সানফিশ (Sandfish) প্রজাতির (মোলা নামে পরিচিত)। যার দৈর্ঘ্য ৩ মিটারেরও বেশি। এই মাছ তিন প্রজাতির রয়েছে। যার মধ্যে ১.ওশান সানফিশ (মোলা মোলা-মোলা মোলা), ২.জায়ান্ট সানফিশ (মোলা আলেকজান্দ্রিনি-মোলা অ্যালেক্সান্ডরিনি) ৩. হুডউইঙ্কার সানফিশ (মোলা টেক্টা-মোলা টেক্টা)। এই মাছগুলি গভীর সমুদ্র জলে বসবাস করে।

২০২১ সালে ভারি মোলা (Mola) মাছ মৃতকারে পাওয়া গিয়েছিল:-

2021 সালের ডিসেম্বর মাসে পর্তুগালের আজোরেস দ্বীপপুঞ্জের ফয়েল দ্বীপের কাছে সবচেয়ে ভারী ওজনের মোলা মাছ (Mola Fish) মৃত অবস্থায় ভাসতে দেখা গিয়েছিল। যেখানে মাছের দৈর্ঘ্য ছিল ৩.৫৯ মিটার এবং ওজন ছিল ২,৭৪৪ কেজি। এই মাছ এখনো পর্যন্ত বিশ্বের সবচেয়ে ভারী ওজনের মাছ।

মোলা আলেকজান্দ্রিনি সমুদ্রের সবচেয়ে ভারী মাছ। সূত্রের খবর অনুযায়ী, এর আগে সবচেয়ে ভারী মাছ পাওয়া গিয়েছিল ১৯৯৬ সালে জাপানের কামোগাওয়াতে, যার ওজন ছিল ২,৩০০ কেজি। কিন্তু এইবারের পাওয়া মাছটির ওজন আগের চেয়ে প্রায় আধা টন বেশি, যা ২,৭০০ কেজি। দৈত্যাকারের মাছটিকে নিয়ে এখনো গবেষনা চলছে। গবেষকরা বলছে মাছটির মাথায় আঘাত লেগেই মৃত হয়েছে। কোন বোট বা নৌকার সঙ্গে ধাক্কা লাগতে পারে বলে মনে করছে। তবে পুরো বিষয়টি এখনও জানা যায়নি।

মোলার লার্ভা খুব সুন্দর:-

এই মাছের সঙ্গে বিশেষ সম্পর্কিত আরেকটি জিনিস হলো মাছের লার্ভা। যেটি কয়েক বছর আগে পর্যন্ত এটি রহস্য ছিল। এই মাছের লার্ভা খুব ছোট ও তুষারকণার মতো, যেটি দেখতে খুব সুন্দর। স্ত্রী সানফিশ মাছের আরেকটি বিশেষ বৈশিষ্ট্য হলো প্রাণীদের মধ্যে এর প্রজনন ক্ষমতা সবচেয়ে বেশি। এক প্রাপ্ত বয়স্ক এই মাছে প্রায় ৩০০ মিলিয়ন ডিম্বা থাকতে পারে।

 

Related Articles

Back to top button