মাত্র 300 টাকা ধার নিয়ে শুরু করেছিলেন ব্যবসা আজ গড়ে তুলেছেন 1000 কোটি টাকার কোম্পানি

পরিশ্রম করা যদি কোনো মানুষের অভ্যাস হয়ে যায় তবে সফলতা তার ভাগ্যতে এসেই যায়। আর এই কথাটির মর্ম যেদিন মানুষ বুঝতে শিখে যাবে সফলতা অর্জন করা সেই মানুষের জন্য অত্যন্ত সহজ হয়ে উঠবে। আজ আমরা এই আর্টিকেলে আলোচনা করতে চলেছি মিসেজ বেক্টর্স ফুড স্পেশালিস্টের ওনার রজনী বেক্টরকে নিয়ে। ইনি নিজের পরিশ্রম ও বুদ্ধি দ্বারা আজ নিজের কোম্পানিকে কোটি টাকার কোম্পানিতে পরিণত করেছেন।

রজনী বেক্টর হয়তো কখনো ভাবতেও পারেনি যে তার বিস্কুট ও কেক বানাতে পারার কলা তাকে একদিন একটি বড় কোম্পানির মালিক করে তুলবে। জানিয়ে দি তার কোম্পানি ৫০ টিরও বেশি দেশ ও ম্যাকডোনাল্ডস, কেএফসি, পিজা হাট এবং বার্গার কিং এর মতো বড় ফাস্ট ফুড ব্র্যান্ডগুলিকে সেবা প্রদান করে। রজনী বেক্টর শুরু থেকেই একজন পরিশ্রমী রাঁধুনি ও খুব ভাল বেকার ছিলেন। প্রথমে মানুষ তার আইসক্রিম তৈরির রেসিপি-কে খুব পছন্দ করেছিল এবং তার এই কলাকে আগে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য উৎসাহিতও করেছিল।

রজনী প্রাথমিক দিন গুলিতে কোনো চেনা-পরিচিতির থেকে ৩০০ টাকা ধার নিয়ে ওভেন কিনে বিস্কুট তৈরির কাজ শুরু করেছিলেন। তারপর ১৯৭৮ সালে রজনী বেক্টর ২০ হাজার টাকা লোন নিয়ে আইসক্রিম তৈরির ইউনিট স্থাপন করেছিলেন। এরপর রজনীও এই ইউনিটে বিস্কুট ও ব্রেড বানানো শুরু করেন। মানুষ তার বিস্কুট ও আইসক্রিম তৈরির এই কলাকে খুব পছন্দ করেছে।

রজনী তার নিজের রান্নাঘর থেকে বিস্কুট আর আইসক্রিম বানানোর যে কাজটা শুরু করেছিল সেটা সময়ের সাথে সাথে একটি বড় ফ্যাক্টরি পর্যন্ত পৌঁছে গেছিল। সেই থেকে রজনী বেক্টর ক্রেমিকা ফুডস প্রাইভেট লিমিটেড এবং এর সহযোগী কোম্পানি মিসেস বেক্টর ফুডস স্পেশালিটিসকে চালাচ্ছেন।

রজনী বেক্টরের এই কোম্পানিটি ক্রেমিকা ব্রেড সাপ্লায়ার চেইনের অন্যতম বড় কোম্পানিতে পরিণত হয়েছে। ক্রেমিকা তার বিক্রয়ের ৩৫ শতাংশ প্রধান ব্র্যান্ডগুলিতে ব্রেড ও বেস সরবরাহ করে উপার্জন করে। রজনী বেক্টর তার স্বামী ও ছেলেদের সাথে মিলে এই কোম্পানিটিকে চালাচ্ছেন। রজনী বেক্টর একসময় নিজের আবেগের কারণে এই কোম্পানিটির কাজ একা শুরু করলেও আজ তার কোম্পানিতে হাজার হাজার মানুষ কাজ করছে।

Related Articles

Back to top button