প্রথম ভিলা… এখন ম্যানশন, গত ছয় মাসের মধ্যেই মুকেশ আম্বানি দুবাইয়ে কিনলেন দ্বিতীয় বাড়ি

গত ছয় মাসের মধ্যেই মুকেশ আম্বানি দুবাইয়ে

ভারতের অন্যতম শিল্পপতি হলেন মুকেশ আম্বানি (Mukesh Ambani)। সম্পত্তির নিরিখে তিনি বিশ্বের অষ্টম ধনী ব্যাক্তি এবং ভারতের দ্বিতীয় ধনী ব্যাক্তি (2nd Richest Person In India)। তাঁর মোট সম্পদের পরিমান ৮৮.৮ বিনিয়ন ডলার। তাঁর কাছে রয়েছে দামি গাড়ি থেকে বিলাসবহুল বাড়ি। তবুও নিজের সম্পত্তির পরিমাণ দিনে দিনে বাড়িয়ে চলেছেন তিনি। কয়েকমাস আগে দুবাইতে কয়েক কোটি কাটা খরচ করে আকাশ আম্বানির জন্য একটি ভিলা কিনেছিলেন। এবার দুবাইয়ে আরো এক নতুন সম্পত্তি কিনেছে তিনি। এই সম্পত্তি কিনলে নিজের রেকর্ড নিজেই ভাঙলেন। আগের থেকে বেশি অর্থ খরচ করে কিনলেন এই সম্পত্তি। চলুন এ সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নিন।

Mukesh Ambani

গত কয়েকমাস আগে দুবাইতে প্রথম বিলাসবহুল বাংলো (Luxurious Bungalow) কেনেন রিলাইয়েন্স গ্রপের চেয়ারম্যান মুকেশ আম্বানি। এর জন্য প্রায় ৮০ মিলিয়ন ডলার খরচ করেছিল। যা ভারতীয় মুদ্রায় ৬৪০ কোটি টাকা। মিডিয়া সূত্রে খবর, মুকেশ আম্বানি ছোট ছেলে অনন্ত আম্বানির জন্য দুবাইয়ের সবচেয়ে দামি বাড়িটি কিনেছেন। একটি প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, শাহরুখ খান, ডেভিড বেকহ্যামের মতো সুপারস্টারেরা এই বিলাসবহুল ভিলার প্রতিবেশী। তবে নিজের রেকর্ড ভেঙে পাম জুমেইরাহ বিচে ( Palm Jumeirah Beach) আরো এক বিলাস ভিলা কিনলেন এই শিল্পপতি।

কুয়েতি ধনকুবের টাইকুন মোহাম্মদ আলশায়ার পরিবারের কাছ থেকে পাম জুমেইরাহ বিচে ম্যানশন (Manson) কিনলেন মুকেশ আম্বানি। এর আগে ৮০ মিলিয়ন খরচ করে তিনি এখানে আরো একটি ভিলা কিনেছিলেন। গত সপ্তাহেই পূর্বের তুলনায় দ্বিগুন অর্থ খরচ করে ভিলাটি কেনেন তিনি। এর জন্য প্রায় ১৬৩ মিলিয়ন ডলার খরচ করতে হয়েছে। ভারতীয় মূল্যে যা ১৩৫০ কোটি টাকা। পাম জুমেইরাহ বিচে কেনা এটি তাঁর দ্বিতীয় সম্পত্তি।

New villa

সূত্র অনুসারে, আম্বানির নতুন কেনা এই ভিলাটি বিলাশবহু ও বিশাল। এখানে রয়েছে ৮ টি বিলাসবহুল রুম। এর সাথে রয়েছে একটি জিম করার জায়গা ও একটি সিনেমাহল। ইনডোর-আউটডোর পুলের সঙ্গে রয়েছে ১৫টি গাড়ি রাখার মতো বেসমেন্ট। প্রসঙ্গত, দুই বছরে ভিলা কিনতে আম্বানিকে প্রায় ২০০০ কোটি টাকা খরচ করতে হয়েছে। প্রসঙ্গত, শুধু দুবাইতে নয় এর আগে তিনি ইউকেতে বড় ছেলে আকাশ আম্বানির জন্য একটি প্রাসাদ কিনেছিলেন। জানা যাচ্ছে, এরপর তিনি নিউইয়র্কে সম্পত্তি কেনার কথা ভাবছেন।

Dubai

Related Articles

Back to top button