ভারতের এই ৫টি বিলাসবহুল পাঁচ তারকা হোটেলের মালিক মিঠুন চক্রবর্তী

বলিউডের ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির খ্যাতিমান অভিনেতা মিঠুন চক্রবর্তী (Mithun Chakroborty) আজ রাজনীতির জগতে আলাদা পরিচিতি তৈরি করেছেন। যদি তার ব্যক্তিগত জীবন সম্পর্কে বলা হয় তবে তার মোট সম্পদের পরিমাণ প্রায় ৪০ মিলিয়ন ডলার। যা ভারতীয় টাকা অনুসারে আড়াইশ কোটিরও বেশি। বাস্তব জীবনের কথা বলতে গেলে, মিঠুন চক্রবর্তীকে (Mithun Chakroborty) আজ বিলাসবহুল জীবনযাপন করতে দেখা যায়।

তবে প্রথম দিনের কথা বলা হলে, মিঠুন চক্রবর্তী অত্যন্ত দারিদ্র্যের সাথে কাটিয়েছেন। যদিও আজ বলিউডের ধনী অভিনেতাদের তালিকায় তার নামও রয়েছে। মিঠুন চক্রবর্তী তার পুরো আয়ের বেশিরভাগই তার বিলাসবহুল হোটেল থেকে উপার্জন করেন। তার উটিতে একটি বিলাসবহুল হোটেল রয়েছে। যার কারণে তিনি ভালো টাকা আয় করেন।

খবর অনুযায়ী, মিঠুন চক্রবর্তীর ব্যবসা প্রায় ২৫০ কোটি টাকার, তিনি মোনার্ক গ্রুপ অফ হোটেলের মালিকও। তাছাড়াও অনেক শহরেই তাদের বড় বড় হোটেল আছে। উটিতে মিঠুনের এই হোটেলটি পাঁচ তারা বিশিষ্ট। এছাড়াও মহীশূর এবং দক্ষিণের অনেক শহরে তাদের বিলাসবহুল হোটেল রয়েছে। এছাড়া দেশের অনেক শহরেই মিঠুনের বিলাসবহুল ফ্ল্যাট রয়েছে। মুম্বাইতেও তার অনেক ফ্ল্যাট রয়েছে।

মিঠুন তার ছেলেদের সাথে এই ব্যবসা পরিচালনা করেন। উটিতে তার হোটেল মোনার্ক ৫৯টি রুম, স্বাস্থ্য ফিটনেস সেন্টার, ইনডোর সুইমিং পুল ইত্যাদি সব রয়েছে। মুম্বাইয়ের কোলাহল থেকে দূরে, মিঠুন প্রায়ই এখানে ছুটি কাটাতে আসেন।

মিঠুনের মোনার্ক সাফারি পার্ক মসিনাগুড়িতে ১৬টি বাংলো, ৪টি স্ট্যান্ডার্ড রুম, মাল্টিকুইজিন রেস্তোরাঁ, শিশুদের খেলার মাঠ ছাড়াও ঘোড়ায় চড়া এবং জিপে করে জঙ্গলে ঘুরেবেরানোর মতো সুবিধা রয়েছে। এছাড়াও এতে নন এসি লফট, বাংলো রয়েছে। এছাড়াও উটির কটেজে তার বেশিরভাগ চলচ্চিত্রের শুটিংও হয়েছে।

তাই তিনি এই জায়গা ছেড়ে অন্য কোথাও থাকতে চাননি। এই বিষয়টি মাথায় রেখে তিনি সিদ্ধান্ত নেন যে তিনি হোটেলটি উটিতেই তৈরি করবেন। এছাড়া মিঠুন চক্রবর্তী কুকুর খুন ভালোবাসেন। তার একটি বা দুটি নয়, ৭৬টি কুকুর রয়েছে। মিঠুন তাদের রক্ষণাবেক্ষণের জন্যও প্রচুর খরচ করে।

 

Related Articles

Back to top button