একটা গাছ পাল্টে দিয়েছে আম্বানির ভাগ্য বিধাতা, ফাঁস আম্বানির ধনী হওয়ার রহস্য

ভারতের ধনপতিদের ইতিহাসে যার নাম সবার প্রথমে আসে, তিনি হলেন মুকেশ আম্বানি। তিনি এবং তাঁর স্ত্রী নিতা আম্বানি, তাঁদের বিলাসবহুল জীবন যাপনের জন্য প্রায় খবরের শিরোনামে থাকেন। তবে অনেকে মনে করেন তাঁর এই ধনী হওয়ার পিছনে লুকিয়ে আছে ময়ূরপঙ্খী গাছ।

ময়ূরপঙ্খী গাছ বস্তুজমি বা ভিটে মাটিতে থাকলে ঘরের সম্পত্তি আস্তে আস্তে বাড়তে শুরু করে। ঘরের সম্পত্তি ধরে রাখার চেষ্টা করে। গাছটি ব্যয়ের পরিমাণ কিছুটা হলেও কমিয়ে দেয়। কখনো বাড়িতে দরিদ্রতা আসতে দেয় না। গাছটিকে অত্যন্ত সৌভাগ্যবান বলা হয় থাকে।

রিপোর্টার মুতাবিক খবর অনুযায়ী শোনা যায়, মুকেশ আম্বানির বাড়িতে এই গাছ রয়েছ। তিনি জোড়াই জোড়াই এই গাছ রোপন করেছেন। তাঁর বিপুল পরিমাণ সম্পত্তির পিছনে লুকিয়ে আছে এই গাছটি। ময়ূরপঙ্খী গাময়ূরপঙ্খী গাছছকে বিদ্যা মাতাও বলা হয়ে থাকে। পাতি বাংলা ভাষায় বলা হয়ে থাকে ঝাউ গাছ।

Related Articles

Back to top button