এক সময় ৯-এর দশকে বলিউড কাঁপানো অভিনেত্রীর বর্তমান ছবি দেখে চেনা দায়,দেখুন তো চিনতে পারছেন কীনা

৯০ দশকের জনপ্রিয় অভিনেত্রীর তালিকায় অন্যতম একটি নাম হলো মমতা কুলকর্ণির। তিনি তার কেরিয়ারে একের পর এক হিট ফিল্মে কাজ করেছেন। এছাড়া তিনি বিভিন্ন বড় বড় অভিনেতাদের সাথেও কাছ করেছেন। একটা সময় এমনও ছিল যখন লোকে তার সৌন্দর্য ও অভিনয়ের জন্য পাগল ছিল। কিন্তু হটাৎ একটা সময় পর মমতা বলিউড থেকে নিখোঁজ হয়ে যায়। তার করা শেষ ফিল্মটি ছিল নাসিব। কিন্তু আজও তার ভক্তদের মনে প্রশ্ন রয়েছে যে বলিউডের এত জনপ্রিয় অভিনেত্রী কেন বলিউডকে বিদায় জানিয়ে দিল ? এছাড়া এখন তিনি কোথায় আছেন? তাকে এখন দেখতে কেমন লাগে? আজ আমরা আমাদের আর্টিকেলের এই সব প্রশ্নের উত্তর দেব এবং মমতার বর্তমান ছবিও আপনাদের দেখাব।

img 20220616 102406

বলিউডকে বহু যুগ আগে বিদায় জানিয়ে দেওয়া মমতা কুলকার্নি সম্প্রতি হটাৎ আলোচনার বিষয় হঠেছেন। আসলে ব্যাপারটা হলো মমতার বর্তমান কয়েকটি ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় বেশ ভাইরাল হচ্ছে। ৫০ বছর বয়সী মমতার বর্তমান ছবি গুলি দেখে অনেকেই তাকে চিনতে পারেনি। সৌন্দর্য ও অভিনয়ের জন্য জনপ্রিয় মমতা কুলকার্নির এ কেমন হাল? ভক্তরা তাকে দেখে অবাক হয়ে গেছে। কিছু কিছু ইউজার তাকে সোশ্যাল মিডিয়ায় দেখে খুব খুশি হয়েছেন এবং কিছু ইউজার তার বর্তমান রূপ দেখে তাকে নিয়ে ট্রোল করা শুরু করেছেন।

 

কেন বলিউড ছেড়ে দিয়েছিলেন মমতা ?

মমতা কুলকার্নি যখন বলিউড থেকে হটাৎ নিখোঁজ হয়ে গেছিল তখন ভক্তদের থেকে শুরু করে বলিউডের প্রতিটি ব্যক্তির মনেই প্রশ্ন ছিল যে কেন তিনি বলিউডকে বিদায় জানিয়ে দিয়েছিলেন। তবে জানিয়ে দি বলিউড কে বিদায় জানানোর কিছু সময় পর মমতার ব্যাপারে একটি খবর সামনে এসেছিল যার বিষয় হয়তো খুব কম লোক জানে। একটি সূত্র থেকে জানা গেছিল যে তিনি ভিকি গোস্বামী নামে এক ড্রাগ মাফিয়াকে বিয়ে করেছিলেন এবং ভারত ছেড়ে চলে গেছিলেন। আর বর্তমানে তিনি কেনিয়াতে বসবাস করেন।

 

মমতার স্বামী ভিকি গুজরাতের আহমেদাবাদের এক পুলিশ অফিসার আনন্দগিরি গোস্বামীর ছেলে ছিলেন এবং দীর্ঘ সময় ধরে ড্রাগের ব্যবসার সাথে জড়িয়ে ছিলেন তিনি। ২০১৬ সালে মুম্বইয়ের থানে পুলিশ ১২ এপ্রিল দুটি সাদা গাড়িকে আটক করেছিল এবং গাড়ি থেকে প্রায় ২-৩ কেজি ড্রাগ উদ্ধার করা হয়েছিল। অর্থাৎ প্রায় ৮০ লক্ষ টাকার ড্রাগ ছিল গাড়িতে। গাড়ি থেকে ময়ূর ও সাগর নামে দুজন ব্যক্তিকেও গ্রেপ্তার করেছিল পুলিশ। আর তদন্তের পর আরো ১০ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল।

Related Articles

Back to top button