এই গুলো হচ্ছে ভারতের সবথেকে দামি স্কুল, জানুন কি বিশেষ রয়েছে এই স্কুলগুলিতে

প্রতিটি পিতা-মাতা সবসময় চেয়ে থাকে তাদের সন্তান যেন খুব ভালো মানুষ হয়ে থাকে। তারা তাদের সন্তানকে সর্বোত্তম শিক্ষা দিতে পারে। যাতে সেই সন্তানটি বড় হয়ে গৌরব নিয়ে আসে। তবে সাধারণ পরিবারে আর্থিক অবস্থার জন্য বড় স্কুলে ভর্তি করে দেওয়ার সামর্থ্য অনেক সময় বাবা-মায়ের থাকে না। কিন্তু অভিভাবকরা সব সময় ভালো প্রাইভেট টিউটর দিতে চান। কিন্তু আজ আপনাদের কিছু অবাক করা কিছু স্কুলের কথা বলবো, সেখানে ফিসের পরিমাণ এত বেশি, যা একজন সাধারণ ব্যক্তি সারা বছরেও উপার্জন করতে পারে না।

১. সিন্ধিয়া স্কুল ( গোয়ালিয়ায় ) :

মহারাজা মাধো রাও ১৮৯৭ সালে  সিন্ধিয়া স্কুলটি তৈরি করেছিলেন। এই স্কুলটি ১১০ একর জুড়ে বিস্তৃত। স্কুলটির চারিপাশে সুন্দর পাহাড় দিয়ে ঘেরা রয়েছে। এই স্কুলে শুধু ছেলেরাই ভর্তি হয়ে থাকে। তবে স্কুলের পাশে একটি গার্লস স্কুল রয়েছে। সিন্ধিয়া স্কুলে ১০ জন শিশুর জন্য, একজন শিক্ষককে নিযুক্ত করা হয়। এই স্কুলের ফি হল ১২ লক্ষ টাকা। এই স্কুলে পড়াশোনা করেছেন মুকেশ আম্বানি সালমান খান আরবাজ খান প্রমুখ বড় বড় ব্যক্তিরা।

২. মেয়ো কলেজ ( আজমির) –

ষষ্ঠ আর্ল রিচার্ড বার ১৮৭৫ সালে কলেজ নির্মিত করেন। এটি ছেলেদের স্কুল। এটি ভারতের সবচেয়ে পুরনো বোর্ডিংয়ের মধ্যে একটি। এটি ৩৮৭ একর জমি জুড়ে বিস্তৃত। এখানে প্রতি বছর ৭৫০ জন শিশুকে শিক্ষা প্রদান করা হয়। এই স্কুলে ভারতীয় ছাত্রদের ফি ৬ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা। বিদেশি ছাত্রদের জন্য ১৩ লক্ষ টাকা।

৩. উডস্টক স্কুল ( মুসৌরি ) –

এটি ১৮৫৪ সালে স্থাপন করা হয়। এটি উত্তরাখণ্ড রাজ্যের মুসৌরিতে অবস্থিত। এটি ভারতে সবচেয়ে ব্যয়বহুল স্কুল। এই স্কুলের ফি ১৬ লক্ষ টাকা।

৪. ইকোন মন্ডিয়াল ওয়ার্ল্ড স্কুল ( মুম্বাই ) –

এটি এই শহরে খুবই সুপরিচিত স্কুল। এই স্কুলটি ২০০৪ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়। এই স্কুলটি আইবি (ইন্টারন্যাশনাল ব্যাকালোরেট) বোর্ড দ্বারা স্বীকৃত। এই স্কুলের ফি ৯,৯০,০০০ টাকা।

Related Articles

Back to top button