ঐশ্বর্য রায়ের পাশে দাঁড়িয়ে থাকা এই মেয়েটি আজ বলিউডের নামিদামি অভিনেত্রী, টেলিভিশন শো সহ ওয়েব সিরিজে কুড়িয়েছেন দর্শকদের খাতি নাম

হিন্দি টেলিভিশন ইন্ডাস্ট্রির (Hindi television Industry) একজন টপ জনপ্রিয় ও হাইপেড অভিনেত্রী হলেন জেনিফার উইংগেট (Jennifer Winget) । তার অভিনয়ের ও সৌন্দর্য্যের ভক্তরা গোটা গোটা দেশের কোনায় কোনায় ছড়িয়ে রয়েছেন। তিনি তার কেরিয়ারে প্রচুর সিরিয়াল, ফিল্ম, ওয়েব সিরিজে কাজ করে আজ গোটা দেশের মানুষের সামনে নিজেকে জনপ্রিয় অভিনেত্রী হিসেবে প্রতিষ্ঠা করেছেন।

জানিয়ে দি যে জেনিফার উইংগেট (Jennifer Winget) নিজের কেরিয়ারের শুরু করেছিলেন ১০ বছর বয়সে চাইল্ড আর্টিস্ট হিসাবে। তিনি ফিল্ম ‘আকেলে হাম আকেলে তুম’ ফিল্মের মাধ্যমে নিজের কেরিয়ারের শুরু করেছিলেন। এরপর জেনিফার ১২ বছর বয়সে ‘রাজা কি আয়েগি বরাত’ ফিল্মেও কাজ করেছিলেন। জেনিফার চাইল্ড আর্টিস্ট হিসাবে অনেক বড় বড় স্টারদের সাথে কাজ করেছেন। তিনি ঐশ্বর্য রায় বচ্চন, রানী মুখার্জি, আমির খান, মনীষা কোরালা-এর মতো স্টারদের সাথে বড় পর্দায় কাজ করেছেন। জানিয়ে দি ঐশ্বর্য (Aiswarya Rai Bachchan) ও অভিষেকের ফিল্ম ‘ কুছ না কহো’-তে জেনিফার ‘পূজা’ নামের চরিত্রটিতে অভিনয় করেছিলেন।

জেনিফার টিভিতেও ছোটবেলা থেকে কাজ করছেন। ৩৬ বছর বয়সী জেনিফার উইংগেট সিরিয়াল ‘সরস্বতীচন্দ্র-তে-তে কুমুদ দেশাই, বেহাদ-এ মায়া মালহোত্রা, বেপানহা-তে জোয়া সিদ্দিকীর রোলে অভিনয় করে দর্শকদের মন জয় করে নিয়েছিলেন। বেহাদ সিরিয়ালের পর তিনি এই সিরিয়ালের সিক্যুয়াল বেহাদ-২-তে নজর এসেছিলেন। এতে তার কোস্টার ছিলেন আশিস চৌধুরী ও শিভিন নারাং। বর্তমানে জেনিফার বিভিন্ন ওয়েব সিরিজেও কাজ করছেন।

জেনিফারের পার্সোনাল লাইফের কথা বলতে গেলে তিনি মুম্বাইয়ে অর্ধেক মারাঠি এবং অর্ধেক খ্রিস্টান পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তার বাবার নাম হেমন্ত উইংগেট এবং মায়ের নাম প্রভা উইংগেট। তার বাবা রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজে কাজ করতেন এবং মা একজন হাউসওয়াইফ। তার বড় ভাইয়ের নাম মুসা উইংগেট। ২০০৫ সালে তিনি তার সহ-অভিনেতা করণ সিং গ্রোভারের সাথে ডেটিং শুরু করেছিলেন। করণের সাথে টিভি শো ‘কসৌটি জিন্দেগি কি’-এর সেটে তার আলাপ হয়েছিল এবং ধীরে ধীরে তাদের বন্ধুত্ব প্রেমে পরিণত হয়েছিল। ৯ই এপ্রিল ২০১২-তে করণ ও জেনিফার একে অপরের সাথে গাঁটছড়া বেঁধেছিলেন। কিন্তু বিয়ের ২ বছর পর ২০১৪ সালে দুজনের বিবাহ বিচ্ছেদ হয়ে গেছিল।

Related Articles

Back to top button