Indian Railways: এক ধাক্কায় ৩০ শতাংশ কমতে চলেছে এই টুরিস্ট ট্রেনের ভাড়া, কারণ জেনে চমকে যাবেন আপনিও

এক ধাক্কায় ৩০ শতাংশ কমতে চলেছে

বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম রেলওয়ে ব্যাবস্থা ভারতীয় রেলওয়ে (Indian Railway)। প্রতিদিন লক্ষ লক্ষ মানুষ রেল পথে যাতায়াত করে থাকেন কাজের উদ্দেশে। রেলওয়ে যাতায়াতের মাধ্যমকে উন্নত করতে নানা পদক্ষেপ গ্রহণ করে। রেলওয়ের এমনই এক নয়া পদক্ষেপ ছিল ‘ভারত গৌরব ট্রেনের’ (Bharat Gourav Train) সূচনা। এই ট্রেনটিতে ভারতের প্রথম বেসরকারি উদ্যোগে চালিত ট্রেন। চলতি বছরেই চালু হয়েছিল এই ট্রেনের যাত্রা। তবে এবারে এই ট্রেনের টিকিট মূল্য একধাপে অনেকটা কমবে (Ticket Fares of Bharat Gaurav Trains) বলে জানা যাচ্ছে। এর কারণ কি? চলুন প্রতিবেদন থেকে জেনে নিন।

Bharat Gourav Train

ভারতের ঐতিহ্য, সংস্কৃতি ও গৌরবময় ঐতিহাসিক স্থানগুলোকে দেশের মানুষ এবং সারা বিশ্বের সামনে তুলে ধরতে রেল বোর্ড চালু করেছিল ‘ভারত গৌরব ট্রেন'(Bharat Gaurav Train) । এই ট্রেনের প্রধান উদ্দেশ্য ট্যুরিস্ট স্পটগুলি ঘুরে ঘুরে দেখানো। এখনো পর্যন্ত আইআরসিটিসি (IRCTC) অনেকগুলি ভ্রমণ প্যাকেজ আনা হয়েছিল। তবে যাত্রী কম থাকার দুটি প্যাকেজ বাতিল করা হয়েছিল। এখন জানা যাচ্ছে, ভারত গৌরব ট্রেনের ভাড়া কমবে ২০-৩০%।

অভ্যন্তরীণ পর্যটন ব্যাবস্থা আরো উন্নত করতে ও পর্যটন কেন্দ্রগুলি প্রচারের লক্ষ্যে রেল বোর্ড চালু করেছিল এই ট্যুরিস্ট ট্রেনে (Tourist Train)। তবে এর ভাড়া খুবই উচ্চ হওয়ার কারণে, তা ছিল মধ্যবিত্তের নাগালের বাইরে। এই ট্রেনে ১৮ দিনের ট্যুরের জন্য AC-3 টিয়ারের ভাড়া প্রায় ৬২,০০০। যা মধ্যবিত্তদের কাছে অনেকটাই বেশি। ফলে এই ভাড়া কমানো অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিন্ধান্ত নেবে আইআরসিটিসি। যদিও মন্ত্রণালয়ের চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত এখনো পাওয়া যায়নি।

Express train

প্রসঙ্গত, শ্রী জগন্নাথ যাত্রা রেল, রামায়ণ সার্কিট ভারত গৌরব ট্রেনের যাত্রা বালিত করেছে। কেননা যাত্রী কম। উচ্চ ভাড়ার কারণে প্রথম থেকেই ট্রেনে যাত্রী কম হতো। এ নিয়ে এর আগে রেল বোর্ডকে একাধিক চিঠি করেছিল আইআরসিটিসি। এতে বলা হয়েছিল যাত্রী কম থাকার কারণে ট্যুর অপারেটরের রাজস্ব ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছে। আগে ভারত গৌরব ট্রেনের স্লিপার ক্লাসের জন্য একদিনের ভাড়া ছিল জনপ্রতি ৯০০ টাকা এবং AC-3 টিয়ারের জন্য প্রতিদিন ১,৫০০ টাকা।

Train

Related Articles

Back to top button