মাত্র ৬ দিনেই কয়েক কোটি টাকা আয় করে নতুন রেকর্ড গড়ল পদ্মা সেতু

পদ্মা সেতু (Padma Bridge) এখন বাংলাদেশের (Bangladesh) কাছে ঐতিহ্য হয়ে দাঁড়িয়েছে। বহু মানুষ এই পদ্মা সেতুর উপর দিয়ে পারাপারের জন্য মুখিয়ে রয়েছেন। উদ্বোধন হওয়ার পর থেকেই মানুষের মধ্যে কৌতূহলের শেষ নেই। পাশাপাশি এই পদ্মা সেতু এখন বাংলাদেশের (Bangladesh) অর্থনীতিকেও অনেকটা শক্তিশালী করেছে। পদ্মা সেতু হল বাংলাদেশের (Bangladesh) সবচেয়ে বড় সেতু।

Padma Bridge

এর দৈর্ঘ্য হচ্ছে ৬ কিলোমিটার। এই সেতু (Padma Bridge) তৈরি করতে সময় লেগেছে ১১ বছর। এই সেতু ঢাকার সঙ্গে বাংলাদেশের (Bangladesh) ২১টি জেলার সংযোগ স্থাপন করেছে। এছাড়াও পশ্চিমবঙ্গের সঙ্গে যোগাযোগের ক্ষেত্রে এই পদ্মা সেতু (Padma Bridge) আলাদা তাৎপর্য তৈরি করেছে। জানা যাচ্ছে এই পদ্মা সেতু তৈরি করার জন্য খরচ হয়েছে মোট ৩৫ হাজার কোটি টাকা।

তবে এই বিপুল খরচ হলেও ইতিমধ্যেই বিপুল পরিমাণ অর্থ রোজগারও করতে শুরু করেছে এই সেতু। উদ্বোধনের পর প্রথম দিনেই এই সেতু থেকে টোল ট্যাক্স হিসাবে আয় হয়েছে ২ কোটি ৯ লাখ ৪০ হাজার ৩০০ টাকা। তৃতীয় দিনে পদ্মা সেতুর টোল থেকে আদায় হয়েছে ১ কোটি ৯৪ লাখ ৫৮ হাজার ১০০ টাকা। এই সময়ে সেতুর উপর দিয়ে গাড়ি পারাপার করেছে ১৪ হাজার ৪৯৩টি।

পদ্মা সেতু উদ্বোধনের পাশাপাশি এই সেতুতে যাতায়াত করার জন্য প্রথম টোল দেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তার গাড়ি এবং কনভয়ের সমস্ত গাড়ি মিলে মোট টোলের পরিমাণ ছিল ১৬ হাজার ৪০০ টাকা। বাংলাদেশ সরকারের এই সেতু থেকে প্রথম বছরেই ৫০০ কোটি টাকা আয় করার লক্ষ্য রয়েছে।

Padma Bridge

সেতু পারাপারের জন্য কত টাকা টোল দিতে হচ্ছে

তাহলে জেনে নেওয়া যাক কোন গাড়ির ক্ষেত্রে কত টাকা টোল দিতে হচ্ছে এই সেতু পারাপারের জন্য। এই সেতু পারাপারের জন্য মোটরসাইকেলকে টোল দিতে হবে ১০০ টাকা। গাড়ি বা জিপের ক্ষেত্রে টোল দিতে হবে ৭৫০ টাকা। পিক-আপ ভ্যানের ক্ষেত্রে খরচ ১২০০ টাকা। মাইক্রোবাসের ক্ষেত্রে খরচ ১৩০০ টাকা। অন্যান্য বাসের ক্ষেত্রে আয়তন অনুযায়ী খরচ ১৪০০ টাকা এবং ২০০০ টাকা।

Related Articles

Back to top button