বিয়ের সময় অবশ্যই হবে কাঁদতে নাহলে…. ভারতের এই প্রতিবেশী দেশে বিয়ের ক্ষেত্রে রয়েছে আজব এক প্রথা

ভারতে যখন বিবাহ সম্পূর্ন হয় এবং তারপর যখন কন্যাকে বাপের বাড়ি থেকে শশুর বাড়ি বিদায় দেওয়া হয় তখন সাধারণত দেখা যায় মেয়েটি তার বাবা-মাকে স্বামীর বাড়ি চলে যায় বলে কান্নাকাটি করে (bride cry after marriage goodbye ritual) । এই প্রথা বহুকাল ধরে চলে আসছে। কিন্তু আপনি জেনে অবাক হবেন যে এমন নিয়ম চীন (China) দেশেও রয়েছে। চীনে (China) এমন একটি জায়গা রয়েছে যেখানে বউকে বিদায়ের সময় কাঁদতেই হয়। তবে যদি কোনো স্ত্রীর বিদায়ের সময় কান্না (bride cry after marriage goodbye ritual) না পায় তখন মেয়েটিকে মেরে মেরে কাঁদানো হয়। কিন্তু প্রশ্ন হচ্ছে এমন অদ্ভুত নিয়মের কারণ কী? আমাদের দেশের তো বিদায়ের সময় মেয়েরা নিজের ইচ্ছায় কান্না পেলে কাঁদে আর না পেলে কাঁদে না। তাহলে আসুন চায়নার এই অদ্ভুত নিয়মের কারণ কী ?

Vidai

রিপোর্ট থেকে জানা গেছে যে চীনের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় প্রদেশ সিচুয়ানে তুজিয়া উপজাতির মানুষ বসবাস করে। আর প্রায় হাজার হাজার বছর ধরে এই মানুষগুলো এখানেই বসবাস করে চলেছে। এই জায়গার নিয়ম হলো কোনো মেয়ের বিয়ের পর যখন বিদায় হয় তখন মেয়েটির কান্নাকাটি করা আবশ্যক। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, চীনের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় প্রদেশ সিচুয়ানে তুজিয়া উপজাতির মানুষ বসবাস করে। হাজার বছর ধরে এই মানুষগুলো এখানে বসবাস করে আসছে। এখানে যদি কোন কনেকে বিয়ে করা হয়, তবে তার জন্য সেই সময় কান্নাকাটি করা আবশ্যক।

আর এই প্রথা বহুকাল ধরে চলে আসছে এখানে। রিপোর্টে বলা হয়েছে যে ১৭ শতকে এই প্রথা সর্বোচ্চ পর্যায়ে ছিল। আর এটি ৪৭৫ বিসি থেকে ২২১ বিসি- এর মধ্যে শুরু হয়েছিল। সেই সময় জাও রাজ্যের রাজকুমারীর বিয়ে হয়েছিল ইয়ান রাজ্যে। বিয়ের পর যখন তিনি বিদায় নিচ্ছিলেন তখন তার মা কাঁদলেন এবং মেয়েকে তাড়াতাড়ি বাড়ি ফিরতে বললেন। তখন থেকেই এখানে এই প্রথা শুরু হয়।

এখন নিশ্চই আপনার মনে প্রশ্ন আসছে যে কান্না করা কেন আবশ্যক ? আসলে যেই মেয়েরা বিদায়ের সময় কাঁদে না তাদের এখানকার লোকেরা খারাপ প্রজন্ম হিসাবে গণ্য করে ও গোটা গ্রামের লোক সেই পরিবারের মজাক ওড়ায়। তাই এই মোজাকের হাত থেকে বাঁচতে যেইসব মেয়েদের বিদায়ের সময় কান্না পায় না তাদের মেরে জোর করে কাঁদানো হয়।

Vidai

দক্ষিণ-পশ্চিম প্রান্তের বিদায়ের সময় শুধু নতুন বউকে কাঁদতে হয়। কিন্তু পশ্চিমি প্রান্তের নিয়ম একটু আলাদা। এখানে জুয়ো টাং নামের একটি প্রথা রয়েছে। এই প্রথায় বিয়ের এক মাস আগে নতুন বউকে একটি হলে বসে ১ ঘন্টা ধরে কাঁদতে হয়। এর ১০ দিন পর নতুন বউয়ের মা, তারপর তার ১০ দিন পর দাদু, দিদিমা, বোন, মাসি এবং অন্যান্য মহিলারা যুক্ত হয় এবং একসাথে বসে কান্না করে। এছাড়া একসাথে কান্না যখন করে তখন ক্রাইং ম্যারেজ নামক একটি গান চালানো হয়।

Related Articles

Back to top button