একের পর এক ছবি ফ্লপ, সংসার চালাতে এত কম দামে গাড়ি বেচে দিলেন ঋত্বিক

সংসার চালাতে এত কম দামে গাড়ি বেচে দিলেন ঋত্বিক

বলিউডের (Bollywood) অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেতা হলেন হৃত্বিক রোশন (Hrithik Roshan)। অনেক হিট ছবি তিনি মানুষকে উপহার দিয়েছেন। তবে বর্তমানে অভিনেতার সময় খুব খারাপ যাচ্ছে। কিছুদিন আগে অভিনেতার ‘বিক্রম বেধা’ ছবিটি মুক্তি পেয়েছিল। ছবিটি নিয়ে আশাবাদী ছিলেন অভিনেতা, তবে আশাহত করে এটি দারুণ ফ্লপ হয়। প্রসঙ্গত, আর মাধবন অভিনীত দক্ষিণী ফিল্ম ‘বিক্রম বেধা’ ছবির রিমেক একটি। এই ছবি ইন্ডাস্ট্রিতে ভালো ব্যাবসা করলেও, হৃতিক রোশনের হিন্দি ছবিটি ভালো ব্যাবসা করতে পারেননি। ফলে অভিনেতার আর্থিক সংকট দেখা দিয়েছে। এজন্য তিনি নিজের পছন্দের গাড়িও বিক্রি করে দিচ্ছেন। আজকের প্রতিবেদন থেকে এ নিয়ে বিস্তারিত জেনে নিন।

 

ভারতের বাজারে এমন অনেক গাড়ি আছে, যেগুলো সেকেন্ড হ্যান্ড গাড়ি। দামেও অনেক কম। এই গাড়ির মধ্যে রয়েছে অনেক তারকার গাড়িও, যা খুব কম দামে পাবেন। প্রসঙ্গত, অভিনেতা হৃত্বিক রোশনের কাছে রয়েছে নামী দামী কোম্পানির গাড়ি। রয়েছে মার্সিডিজও (Mercedes)। সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়া একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। যেখানে দেখা যাচ্ছে অভিনেতা তার প্রিয় মার্সিডিজ গাড়ি বিক্রি করে দিচ্ছেন তাও জলের দরে। দাম শুনলে আপনিও অবাক হবেন। ভিডিও প্রকাশ হওয়ার পর রীতিমতো সোশ্যাল মিডিয়াতে ঝড় উঠেছে।

 

সম্প্রতি এক ব্লগার তাঁর ইনস্টাগ্রাম আইডিতে একটি ভিডিও পোস্ট করেছেন। ওই ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে একজন গাড়ি বিক্রেতা গাড়ি বিক্রি করছে। সেই গাড়িটির বিশেষত্ব রয়েছে। গাড়িটি বলিউড অভিনেতা হৃতিক রোশনের, ওই বিক্রেতা এমনটাই জানিয়েছেন। ওই ব্লগারের সঙ্গে বিক্রেতা অনেক্ষন কথা বলেন গাড়িটি নিয়ে। বিখ্যাত মার্সিডিজ কোম্পানির গাড়ি এটি, যার মডেল মেব্যাক এস৫০০ লাক্সারি সেডান। অভিনেতা ২০১৬ সালে এটি কিনেছিলেন এবং বেশ যত্নেও রেখে ছিলেন। কিন্তু পরিস্থিতির কারণে এটি খুব কম দামে বিক্রি করে দিচ্ছেন।

গাড়িটি যে হৃত্বিক রোশনের তা নিয়ে প্রশ্ন করা হলে বিক্রেতা অভিনেতার সঙ্গে গাড়ির একটি ছবি দেখান। যেটি অভিনেতা গাড়ি কেনার সময় সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেছিলেন ২০১৬ সালে। কিন্তু এখানে একটি প্রশ্ন থেকে যায়। তা হলো ভিডিওটিতে দেখা গাড়িটির রং কালো। অন্যদিকে অভিনেতার সঙ্গে ছবিতে যে গাড়িটি রয়েছে তার রং সাদা। তবে হতে পারে গাড়ি কেনার পর অভিনেতা এর রং পরিবর্তন করিয়ে নিয়েছিলেন। অন্যদিকে দুটি গাড়ির ডিজাইনের মধ্যেও পার্থক্য দেখা গিয়েছে। এই গাড়িটির মার্কেট মূল্য আড়াই কোটি টাকা। যা সেকেন্ড হ্যান্ড গাড়ি হিসাবে ৯০ লক্ষ টাকায় বিক্রি করা হচ্ছে।

Related Articles

Back to top button