বেঙ্গালুরুতে ছোট্ট একটি দোকান থেকে শুরু করেছিলেন ব্যবসা, আজ 20 হাজার কোটি টাকার কোম্পানিতে করেছেন পরিণত

ঘড়ির নাম নিলেই সবার প্রথমে একটাই নাম মাথায় আসবে সেটি হল এইচএমটি (HMT) ঘড়ি. এরপরে যে নামটি আসবে সেটি হল টাইটান। এই কোম্পানির ঘড়ি ছোটরা থেকে বয়স্ক সবাই পছন্দ করে। আজ জেনে নিন কিভাবে ভারতের সবচেয়ে জনপ্রিয় ঘড়ি কোম্পানি টাইটান হয়ে উঠলো। আসুন বিস্তারিত আলোচনা করা যাক।

১৯৮০ দশকে এইচএমটি ঘড়ি খুবই জনপ্রিয় ছিল। এটি ভারত সরকার অধীনে একটি কোম্পানি ছিল। HMT পুরো নাম ছিল হিন্দুস্থান মেশিন টুলস লিমিটেড। এই কোম্পানিটি ১৯৫৩ সালে শুরু হয়েছিল। এর আগে এই ঘড়ি বেশির ভাগ সময় বিদেশ থেকে আনা হতো।

তবে সেগুলি ভারতে পাচার করা হতো অনেক সময়। সেই ঘড়ি বিক্রি হতো। সেই কারণে টাটা গ্রুপের সেন্ট্রাল ম্যানেজমেন্ট ক্যাডারের পদে থাকা জারেক্সেস দেশাই কোম্পানির জন্য একটি নতুন ব্যবসা খোঁজ করছিলেন। তখনই ভারতে ঘড়ির তৈরির কথা মাথায় আসে তাঁর। টাইটান চালু করার জন্য টাটা গ্রুপ ছোট করে কোম্পানি চালু করে।

এরনাম দেওয়া হয় কোয়েস্টার ইনভেস্টমেন্ট। তবে সংস্থাটিকে টাটা গ্রুপ থেকে আলাদা করে রাখা হয়েছিল। এই সংস্থার সঙ্গে হাত মিলিয়েছিল তামিলনাড়ু ইন্ডাস্ট্রিয়াল ডেভেলপমেন্ট কোম্পানি। এরপর এই কোম্পানির নাম দেওয়া হয় টাইটান কোম্পানি। এই কোম্পানির কাজ সঠিকভাবে শুরু হলে কোয়েস্টার ইনভেস্টমেন্ট সংস্থাকে টাটা গ্রুপ কিনে নেয়। প্রথমদিকে টাইটান কোম্পানি শুধু ঘড়ি তৈরি করলেও এখন অন্যান্য পণ্য তৈরি করে থাকে।

Related Articles

Back to top button