শরীরে ট্যাটু বানাবার আগে ও পরে অবশ্যই মাথায় রাখুন এই বিষয়গুলি, না হলে গুনতে হতে পারে মাশুল

শরীরে ট্যাটু বানাবার আগে ও পরে অবশ্যই মাথায় রাখুন

বর্তমানে ট্যাটু (Tattoo) একটা আর্ট হয়ে দাঁড়িয়েছে। শরীরের সৌন্দর্য আরো বাড়াতে দেহের বিভিন্ন অংশে ট্যাটু করিয়ে থাকে অনেকেই। এই তালিকায় রয়েছেন খেলোয়াড় থেকে শুরু করে অভিনেতা (Actor) সকলেই। সেই প্রাচীন কাল থেকেই দেহের মধ্যে নানা আঁখিবুকি কাটার রীতি চলে আসছে। যা আজ আর উন্নত হয়েছে। বর্তমান প্রজন্মের কাছে খুবই জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে এটি। আপনিও যদি ট্যাটু করাতে চান, তবে মেনে চলতে হবে কিছু নিয়ম। কী সেই নিয়ম? চলুন প্রতিবেদন থেকে বিস্তারিত জেনে নিন।

Tatto

ট্যাটু করানোর জন্য দেহের যেকোনো জায়গা বেঁচে নেওয়া হয়। তবে কোথায় ট্যাটু করাবেন তা আগে থেকেই ঠিক করে নিতে হবে। কেননা একবার ট্যাটু করিয়ে নিলে তা তুলে ফেলা প্রায় অসম্ভব। ট্যাটু মুছে ফেলার সুযোগ খুব কম আছে। ট্যাটু করানোর এক সপ্তাহ আগে থেকে পর্যাপ্ত পরিমাণ জল খেতে হবে। কেননা ট্যাটু করার জন্য ত্বক আর্দ্র রাখা প্রয়োজনীয়। আর্দ্রতা ত্বককে নরম রাখে ও শরীরকে রাখে স্বাস্থ্যকর। বিশেষ বিষয় হলো, ট্যাটু করার আগে মদ্যপান বা কপি পান না করাই ভালো। এগুলি রক্তপাত হওয়ার আশঙ্কা বাড়িয়ে দেয়।

ট্যাটু করানোর সময় বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ জিনিস মাথায় রাখতে হবে। এতে স্বাস্থ্য ভালো থাকবে। প্রথমেই ট্যাটু নতুন সূচ দিয়ে ব্যাবহার করছে কিনা তা লক্ষ রাখতে হবে। নতুন সূচ ব্যাবহার না করলে শরীরে অন্য কোনো রোগ বা জীবাণু প্রবেশ করতে পারে। যা স্বাস্থ্যের পক্ষে ক্ষতিকর। আগে ব্যাবহার হয়েছে এমন সূচ ব্যাবহার করলে মারাত্মক বিপদও ঘটে যেতে পারে। ফলে অবশ্যই নতুন সূচ দিয়ে ট্যাটু করবেন।

Tatto Design

ট্যাটু করার পর অনেকের চামড়ায় সমস্যা দেখা দেয়। এই সমস্যা এড়াতে কিছু জিনিস মনে রাখতে হবে। ট্যাটু করা জায়গাটি অযথা ঘষাঘষি করবেন না। ট্যাটুর করার পর কিছু দিন সাঁতার কাটা বা গরম জলে স্নান করবেন না। ট্যাটুর জায়গাটি যাতে কোনোভাবে সংক্রমণ না হয়, সেক্ষেত্রে জায়গাটি পরিষ্কার করতে হবে। পরিষ্কার করার আগে অ্যান্টিব্যাক্টিরিয়াল সাবান দিয়ে ভালো করে হাত ধুয়ে নিতে হবে। অনেক সময় ট্যাটু করার পর ওই জায়গায় ক্রিম বা লোশন লাগানোর পরামর্শ দেন বিশেষজ্ঞরা।

Tips for Tatto

Related Articles

Back to top button