Business Plan: গাধার দুধ বিক্রি করতে ছেড়ে দিয়েছেন IT চাকরি, ৪২ লাখে কিনেছেন ২০টি গাধা, রয়েছে বড় পরিকল্পনা

আমরা যখন গাধা প্রাণীটিকে দেখি বা গাধা প্রাণীটির কথা আমাদের মাথায় আসে তখন আমাদের একটাই কথা মনে হয় যে এই প্রাণীটি একটি বেকার প্রাণী এবং এটি কোনো কাজে লাগে না। তবে কর্ণাটকের শ্রীনিবাস গৌরা নামক এক ব্যক্তি গাধাকে নিয়ে মানুষের চিন্তাধারাকে সম্পূর্ন পরিবর্তন করে দিয়েছে। ইনি গাধাদের দুর্দশা দেখে গাধা পালন (donkey farming)করার সিদ্ধান্ত নেন এবং আজ গাধাদের দ্বারা তিনি মাসে লাখ লাখ (earn money) টাকা উপার্জন করছেন। এমনকি এই কাজ করার জন্য তিনি তার আইটি-এর জব পর্যন্ত ছেড়ে দিয়েছেন।

নিউজ এজেন্সি এএনআই-এর একটি রিপোর্ট থেকে জানা গেছে যে কর্নাটকে থাকা শ্রীনিবাস রাজ্যের প্রথম ব্যক্তি যিনি ডংকি ফার্ম (donkey farming) খুলেছে। প্রথম প্রথম এই ফার্ম খোলার জন্য লোকেরা তাকে নিয়ে অনেক হাসি-ঠাট্টা করেছিল। কিন্তু আজ তিনি এই ফার্ম দ্বারা মোটা রকম টাকা আয় করছেন (earn money)। তিনি গাধাদের জন্য একটি সেন্টার তৈরি করেন এবং গাধাদের সংরক্ষণের ব্যবস্থা করেন।

শ্রীনিবাস জানিয়েছেন যে আজ তার কাছে ২০ টা গাধা আছে এবং তিনি গাধা আর সেন্টারের পিছনে প্রায় ৪২ লাখ টাকা পর্যন্ত নিয়োগ করেছেন। শ্রীনিবাস গাধীর দুধ বিক্রি (donkey milk sale) করার পরিকল্পনা করেন। কারণ গাধার দুধ অনেক উপকারী ও এই দুধ ঔষধ সৃষ্টির কাজেও ব্যবহৃত হয়।

শ্রীনিবাস আরো জানিয়েছেন যে গাধার দুধের সাপ্লাই তিনি সুপার মার্কেট, মল ইত্যাদি জায়গায় করেন। আর খুব শীঘ্রই তিনি বিউটি প্রোডাক্ট তৈরি করা কোম্পানি গুলিতেও এই দুধ সাপ্লাই করবেন। এমনকি তার হাতে এখন ১৭ লাখ টাকার দুধ সাপ্লাইয়ের অর্ডারও রয়েছে। সবচেয়ে অবাক করার বিষয় হলো গাধার ইউরিনও ৫০০-৬০০ টাকায় বিক্রি হয়। আর গাধার গোবরও খাদ বানানোর কাজে ব্যবহৃত হয়।

 

গাধাদের সেবা করার জন্য ও গাধাদের নিয়ে ব্যবসা করার জন্য শ্রীনিবাস বেশ আলোচনার বিষয় হয়ে উঠেছেন। শ্রীনিবাস ব্যাঙ্গালুরুর পাশে রামনগরার বাসিন্ধা এবং গাধার ফার্মটা তিনি মাঙ্গালুরুর পাশের অঞ্চলে খুলেছেন। শ্রীনিবাস অনেক কাজের মাধ্যমেই সফলতা অর্জন করার চেষ্টা করেছেন। এমনকি তিনি একটি সফ্টওয়্যার ফার্মে পর্যন্ত কাজ করেছিলেন। তবে অবশেষে এই গাধার ফার্মের ব্যবসায় তিনি সফলতা অর্জন করেন এবং আলোচনার বিষয় হয়ে ওঠেন।

Related Articles

Back to top button