একসময় স্কুটার দিয়ে শুরু করেন ব্যবসা! আজ ৬০ হাজার কোটি টাকার কোম্পানির মালিক

ভারত (India) ছাড়াও অনেক দেশে এখনও অনেকের কাছেই পুরনো স্কুটার রয়েছে। যার সাথে জড়িয়ে আছে অনেক স্মৃতি। ভারতে রাহুল বাজাজকে বলা হয় স্কুটারের রাজা। বাজাজ চেতক (Bajaj Chetak) ছিল ভারতে রাহুল বাজাজের ডিজাইন করা প্রথম স্কুটার। রাহুল বাজাজ এই স্কুটারটির নাম রেখেছেন চেতক মহারানা প্রতাপের ঘোড়ার নামে।

img 20220924 081656

১৯৮০ সালের মধ্যে, বাজাজ কোম্পানি বৃহত্তম স্কুটার প্রস্তুতকারক হয়ে ওঠে। রাহুল বাজাজ ৪৯ বছর ধরে বাজাজ গ্রুপের চেয়ারম্যান ছিলেন। তিনি তার ৪৯ বছরের কর্মজীবনে বাজাজ গ্রুপকে একটি নতুন উচ্চতা এবং একটি নতুন মাত্রা দিয়েছেন। আজ রাহুল বাজাজের সাফল্যের গল্প বলা হবে।

রাহুল বাজাজের জীবনী

রাহুল বাজাজ ১৯৩৮ সালের ১০ জুন কলকাতায় (Kolkata) জন্মগ্রহণ করেন। তিনি দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ের সেন্ট স্টিফেন কলেজে উচ্চশিক্ষা করেন। এই কলেজ থেকেই রাহুল বাজাজ ১৯৫৮ সালে অর্থনীতিতে অনার্স ডিগ্রি লাভ করেন। এরপর মুম্বাই বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আইনের ডিগ্রি নেন। এই দুটি ডিগ্রির পরে, রাহুল বাজাজ হার্ভার্ড বিজনেস স্কুল থেকে এমবিএ সম্পন্ন করেন।

এভাবেই শুরু হয় বাজাজ গ্রুপের ব্যাবসা

বাজাজ গ্রুপটি ১৯২৬ সালে যমুনা লাল বাজাজ শুরু করেন। যমুনা লাল বাজাজ ছিলেন রাহুল বাজাজের দাদা। বাজাজের প্রথম কোম্পানি বাণিজ্যিক বিভাগে কাজ শুরু করে। তিনি তার কঠোর পরিশ্রম এবং নিষ্ঠার সাথে বাজাজকে ৭২ মিলিয়ন থেকে ৪৬.১৬ বিলিয়ন কোম্পানিতে পরিণত করেছেন।

বাজাজ স্কুটারটি ১৯৭২ সালে চালু হয়েছিল

১৯৬৪ সালে, রাহুল বাজাজ অটোতে যোগ দেন। তিনি ১৯৬৮ সাল পর্যন্ত বাজাজ কোম্পানির সিইও ছিলেন। বাজাজ কোম্পানি ১৯৭২ সালে বাজাজ স্কুটার লঞ্চ করে। এই স্কুটারটি লঞ্চ হওয়ার সাথে সাথে লোকেরা এটিকে খুব পছন্দ করেছিল।

img 20220924 081711

কোম্পানিটির টার্নওভার ১০ হাজার কোটি টাকার বেশি

১৯৬৫ সালে, বাজাজ কোম্পানির টার্নওভার ৩ কোটিতে পৌঁছে যায়। এবং ২০০৮ সালে এই কোম্পানির টার্নওভার ছিল ১০ হাজার কোটি টাকার বেশি। এই সবই সম্ভব হয়েছে রাহুল বাজাজের কঠোর পরিশ্রমের কারণে।

Related Articles

Back to top button