রেলযাত্রীদের জন্য সুখবর, আসানসোল স্টেশনে মনেরঞ্জনের জন্য থাকছে এই ব্যাবস্থা

ভারতবর্ষের ব্যস্ততম রেলওয়ে স্টেশনগুলির অন্যতম হল আসানসোল রেলওয়ে জংশন (Asansol Railway Junction). পশ্চিমবঙ্গের পশ্চিম বর্ধমান জেলার আসানসোল সদর মহকুমার পূর্ব রেলওয়ে জোনের বিভাগগুলির অন্তর্গত এই স্টেশনটি হাওড়া-দিল্লি (Howrah – Delhi) মেন লাইনে অবস্থিত। দেড়শো বছরেরও বেশি পুরানো এই স্টেশনটি। সম্প্রতিকালে ভারতীয় রেল কর্তৃপক্ষ একটি বিশেষ উদ্যোগ নিয়েছেন স্টেশনটিকে নিয়ে। যেখানে তারা সমগ্র পূর্ব রেলওয়ের মধ্যে আসানসোল স্টেশনটিকে একটি বিশ্বমানের রেল স্টেশনে পরিণত করতে চাইছেন। এই নতুন উদ্যোগে তারা দৈনন্দিন যাত্রীদের সুবিধার্থে পুরো স্টেশন জুড়ে অডিও সিস্টেম ইনস্টল করতে চলেছেন।

Asansol Railway Station

প্রায় প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষ ট্রেন ধরতে স্টেশনে উপস্থিত হন এবং অল্পসময়ের জন্য হলেও তাদের অপেক্ষা করতে হয় ট্রেনের জন্য। তাই যাত্রীদের সেই অপেক্ষার সময়টুকু যাতে বিরক্তিকর না হয়ে সুমধুর হয়ে ওঠে সেদিকেই এবার জোড় দিয়েছেন রেল পর্ষদ। তাই অডিও সিস্টেম বসানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ফলে আগামীদিনে ট্রেনের (Train) জন্য অপেক্ষারত সময়গুলি যাত্রীরা পুরানোদিনের গান শুনে সহজেই কাটাতে পারবেন। তবে শুধু গান নয় যাত্রীদের প্রয়োজনীয় সচেতন মূলক বার্তা শোনানো হবে এবং বিভিন্ন বেসরকারি সংস্থার বিজ্ঞাপনেরও প্রচার করা হবে।

কলকাতা ভিত্তিক একটি সংস্থার উপর এই অডিও সিস্টেমগুলি বসানোর দায়িত্ব দিয়েছেন রেল কর্তৃপক্ষ। আসানসোল ছাড়াও রানিগঞ্জ এবং দুর্গাপুরেও এই সিস্টেমটি ইনস্টল করবে এই সংস্থা। পুরো প্ল্যাটফর্ম,ওয়েটিং হল, রিটায়ারিং রুম, টিকিট কাউন্টার, রিজার্ভেশন কাউন্টার, খাবার প্লাজা, উইমেন রিটার্নিং রুমসহ আরও অনেক জায়গায় এই সিস্টেম বসানো হবে।

Indian Rail

আসানসোল রেলওয়ে ডিভিশনের, ডিভিশনাল কমার্শিয়াল ম্যানেজার শান্তনু চক্রবর্তী (Shantunu Chakraborty) জানিয়েছেন, “অডিওর মাধ্যমে রেলওয়ের বিভিন্ন সচেতনতার প্রচারও করা হবে যেমন – টিকিট না নিয়ে যাত্রা করা অপরাধ, টিকিট না নিয়ে স্টেশনে প্রবেশ করা যাবে না , টিকিট দালালদের কাছ থেকে নেওয়া যাবে না , পুরুষরা মহিলাদের বগিতে প্রবেশ করবে না, স্টেশনের পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতার দিকে বিশেষ নজর দিতে হবে, অচেনা লোকের কাছ থেকে যাতায়াতের সময় কিছু নেওয়া উচিত নয়, যদি কোনও ভবঘুরে শিশু স্টেশনে ঘোরাফেরা করে অবিলম্বে আরপিএফকে খবর দিতে হবে। এছাড়া মহিলা নিরাপত্তা বিষয়ক আরও অনেক তথ্য দেওয়া হবে।” সেইসঙ্গে শান্তনু বাবু মনে করছেন এতে যাত্রীরা নিরাপদ থাকবে এবং তাদের মধ্যে সচেতনতা ছড়িয়ে পড়বে ও অনেক উপকারী প্রমানিত হবে। চলতি মাসের শেষদিকেই সব স্টেশনগুলিতে এই সিস্টেম ইন্সটলেশন করা হবে।

Related Articles

Back to top button