লালন তিতিরের বিয়ের অনুষ্ঠানে এই ঘটনা ঘটাতে চলেছে অঙ্কুর, উদ্বিগ্ন দর্শকেরা

স্মৃতি শক্তি ফিরে এলেও, এখন ফুলঝুরি নয়, তিতিরকেই ভালোবাসে লালন। এখানেই শেষ নয়, শীঘ্রই হয়ত তিতিরের সঙ্গে বিয়ের পিঁড়িতেও বসতে চলেছে লালন তিতির। আমঝে টিআরপি তালিকায় প্রথম দিকে থাকলেও, বর্তমান সময়ে লালনের এই চরিত্র বদলের কারণে, এই ধারাবাহিক থেকে মুখ ফিরিয়ে নিচ্ছে দর্শকরা। যার ফলে গত কয়েক সপ্তাহ ধরে টিআরপিতে বেশ খানিকটা নিচে গিয়েছে স্টার জলসার ধারাবাহিক ‘ধূলোকণা’ (dhulokona)।

এই ধারাবাহিকে দেখানো হয়েছিল বাড়ির কাজের মেয়ে ফুলঝুরির সঙ্গে বাড়ির ড্রাইভার লালনের প্রেম। কিন্তু সেই প্রেমে আসতে থাকে একের পর এক বাঁধা। শুধু ভালোবাসাতেই নয়, তাঁদের বিয়েতে একাধিকবার বাঁধা হয়ে দাঁড়িয়েছিল ওই বাড়িরই মেয়ে চড়ুই। মাঝখান থেকে লালনের গান শুনে সে আবার ভালোবেসে বিয়ের স্বপ্ন দেখেছিল লালনকে। এমনকি বিয়ের মন্ডপে ফুলঝুরিকে সরিয়ে সে লালনকে বিয়ে করে তাঁর বাড়িতেও গিয়েছিল জোর করে।

img 20221130 160958

যদিও সেই বিয়ে বেশিদিন টেকেনি। কারণ গল্পে সেইসময় এন্ট্রি নিয়েছিল অঙ্কুর, যেকিনা বিয়ে ভেঙ্গে যাওয়া ফুলঝুরিকে বিয়ে করতে গিয়ে তাঁর মুখ থেকে লালনকে ভালোবাসার কথা জানতে পারে। ফুলঝুরির ভালোবাসার কথা শুনে, বুদ্ধি করে চড়ুইকে লালনের জীবন থেকে সরিয়ে, এবং নিজের বিয়ের স্বপ্নে ইতি টেনে লালন ফুলঝুরির মিল করিয়ে দেয়।

এই অবধি সবকিছু ঠিকঠাক থাকলেও, লালন ফুলঝুরির সুখের সংসারে কাঁটা হয়ে লালনকে মারার পরিকল্পনা করে চড়ুইয়ের মা। কিন্তু লালনের মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়লেও, কিছুদিন পর এক বাড়িতে আয়ার কাজ করতে গিয়ে সেখানে লালনকে খুঁজে পায় ফুলঝুরি। সেখানে আবার স্মৃতি হারিয়ে ওই বাড়িরই মেয়ে তিতিরকে ভালোবেসে বসে লালন। ফুলঝুরি সবটা খুলে বলায়, তিতির একটা নকল বিয়ের আয়োজন করে লালনের স্মৃতি ফেরানোর জন্য। কিন্তু সেই বিয়ের আসরে ফুলঝুরিকে দেখেও লালনের স্মৃতি ফিরে না আসায় লিপস্টিক দিয়ে তিতিরকে সিঁদুর পরিয়ে বিয়ে করে লালন।

img 20221130 161028

এরপর এক গানের অনুষ্ঠানে গিয়ে একসঙ্গে গান গাইতেই সবকিছু মনে পড়ে যায় লালনের, আর ফুলঝুরিকে নিয়ে ফিরে আসে নিজের বাড়ি। কিন্তু বাড়ি এসেও লালনের মন পড়ে থাকে তিতিরের কাছে। বারবার সে তিতিরের কথা বলতে থাকে, এমনকি তিতিরদের বাড়িও যেতে চায়। এইভাবে চলতে চলতে অবশেষে তিতিরদের বাড়িতেই লালনকে ফিরিয়ে দিয়ে আসে ফুলঝুরি। এবার এই অভাগী ফুলঝুরির জীবনে আবারও দেবদূতের মত আগমন ঘটে অঙ্কুরের, সে আজও ফুলঝুরিকে একইরকম ভালোবাসে।

অঙ্কুরও চেষ্টা করে লালনকে বুঝিয়ে পুরনো কথা মনে করানোর। কিন্তু দেখা যায়, লালন ফুলঝুরি নন, তিতিরকে বিয়ে করে তাঁর সঙ্গেই থাকতে চায়। এই অবস্থায় দর্শকদের ধারণা, একবার ভগবানের মত এসে লালন ফুলঝুরিকে যে অঙ্কুর মিলিয়ে দিয়েছিল, সে যখন আবারও ফিরে এসেছে, তাহলে এবার হয়ত তিতির লালনের বিয়েতে কিছু একটা ঘটাতে চলেছে অঙ্কুর। বেইমান লালনকে উচিত শিক্ষা দিয়ে কিছু একটা করতে পারে অঙ্কুর, এমনটা আশা করছে দর্শকরা।

Related Articles

Back to top button