বলি অভিনেতা অনিল কাপুরের স্ত্রী-র সৌন্দর্যের কাছে পাত্তা পাবেনা হেমা মালিনীও, দেখুন ছবি

বলিউডের একজন সিনিয়র অভিনেতা হলেন অনিল কাপুর (Anil Kapoor). এই ইন্ডাস্ট্রিতে তাঁর নিজস্ব একটি পরিচয় রয়েছে। তিনি বহু সুপারহিট ছবি দর্শককে উপহার দিয়েছেন। তবে আজকাল সেভাবে আর অভিনয় করতে দেখা যায় না এই অভিনেতাকে। তবে তাঁর জনপ্রিয়তা আজও অব্যাহত রয়েছে। তিনি শরীর চর্চার দিকেও বেশ যত্নবান, তাঁর ফিটনেস শরীর তা প্রমাণ করে।

বর্তমানে তাঁর বয়স ৬৫, তবে তিনি এতোই ফিট যে তাঁকে একজন যুবকের মতো দেখতে লাগে। তাঁর ব্যক্তিগত জীবনের কথা বলতে গেলে বলতে হয়, তাঁর সংসারে রয়েছেন স্ত্রী ও তিন সন্তান। তাঁর স্ত্রীর নাম সুনিতা কাপুর (Sunita Kapoor)। তাঁর তিন সন্তানের নাম সোনাম কাপুর(Sonaam Kapoor), রহিয়া কাপুর(Rhea Kapoor) এবং হর্ষবর্ধন কাপুর( Harshvardhan Kapoor)। তবে আপনাদের জানিয়ে রাখি তিনি প্রেম করে বিয়ে করেছেন অর্থাৎ তাঁর স্ত্রী প্রথম জীবনে ছিল তাঁর প্রেমিকা। তাঁদের দুজনের মিষ্টি ও মজার প্রেমের গল্প রয়েছে, যা আজকের প্রতিবেদনে আপনাদের জানাবো।

অনিল কাপুরের প্রেমের জীবন ছিল খুবই মজার

অনিল কাপুরের জীবনে প্রেমের কথা বলতে গেলে যার নাম উঠে আসে তিনি হলেন তাঁর স্ত্রী সুনিতা। এই দুজনের প্রেমের গল্পটি সিনেমার মতো ছিল। যখন তাদের প্রথম সম্পর্ক গড়ে ওঠে, তখন অনিল কাপুর তার ক্যারিয়ার নিয়ে সংগ্রামে রত ছিলেন। সেসময়ে সুনিতা একজন বিখ্যাত মডেল ছিলেন। প্রথমবার দেখেই তিনি সুনিতার প্রেমে পড়ে যান এবং তার সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করেন। তবে প্রথম দিকে সুনিতার সঙ্গে কথা বলার জন্য তাকে অনেক বাধার মুখোমুখি হতে হয়েছিল।

তিনি তার সাথে দেখা করার জন্য বন্ধুদের সাহায্য নিতেন। শুধু তাই নয় তিনি তার বন্ধুদের কাছ থেকেই সুনিতার নাম্বারটি পেয়েছিলেন। তারপরই শুরু হয়েছিল তাঁদের দুজনের প্রেমের গল্প। তাঁদের মধ্যে কথা শুরু হয়, তারপর দুজনের বন্ধুত্ব গড়ে ওঠে এবং তা থেকে কখন যে দুজন দুজনের প্রেমে পড়ে যান তা নিজেরাও বুঝতে পারেন না। তাঁরা দুজনেই জুটিয়ে প্রেম শুরু করেন এবং একে ওপর কে অনেক ভালোবাসা দিতে শুরু করেন।

অনিল কাপুরের স্ত্রী সুনিতার সৌন্দর্য অনেক হিরোইনকে হার মানায়।

অনিল কাপুর তাঁর স্ত্রী অর্থাৎ সেই সময়ের প্রেমিকা সুনীতার সঙ্গে দেখা করতে চেয়েছিলেন। তারপর সুনিতা তাঁকে জিজ্ঞাসা করেছিলেন যে তিনি কতক্ষণে যেই জায়গায় তাঁদের দেখা করার কথা ছিল সেই জায়গায় পৌঁছাতে পারবেন। এরপর থেকে তাঁরা একে অপরের সাথে দেখা করতে শুরু করেন এবং বিভিন্ন জায়গায় দুজনে একসঙ্গে ঘুরতে যেতে শুরু করেন। এরপর একদিন তিনি সুনিতাকে বিয়ের প্রস্তাব দিয়ে বসেন। তাঁদের অনেক দিন প্রেমের সম্পর্ক থাকার পর ১৯৮৪ সালেএকে অপরকে বিবাহ করেন। ওই বছরই তিনি চলচ্চিত্র ‘মশাল’ এর মধ্যে দিয়ে জনপ্রিয় হয়ে ওঠেন এবং বহু জনপ্রিয় সাথে তিনি চলচ্চিত্রে কাজ করতে শুরু করেন। ক্যারিয়া নিয়ে সংগ্রাম রত অবস্থায় প্রেমের শুরু করেন এবং বিয়ের পর একজন সফল অভিনেতা হিসেবে আবির্ভূত হন। এই অভিনেতা তাঁর অভিনয় দক্ষতা দিয়ে আজও মানুষের কাছে জনপ্রিয় হয়ে আছেন।

Related Articles

Back to top button