রেজিস্ট্রেশনে খরচ ২০ লাখ, রঙের খরচ ১ কোটি, দেশের সবথেকে দামি গাড়ি হাতে পেলেন মুকেশ আম্বানি

পৃথিবীর ১০ জন সবচেয়ে বড়লোক ব্যবসায়ীদের তালিকায় নাম রয়েছে ভারতীয় ব্যবসায়ী মুকেশ আম্বানির। তিনি নিজের কঠোর পরিশ্রম দ্বারা আজ এই জায়গায় পৌঁছাতে পেরেছেন। আজ আম্বানি পরিবার খুব সৌখিন ও লাক্সারি জীবনযাপন করেন। এই লাক্সারি জীবনযাপনের জন্য আম্বানি ও তার পরিবার প্রায় আলোচনার বিষয় হয়ে ওঠেন।

আম্বানি পরিবারের কাছে পৃথিবীর সমস্ত দামি জিনিসের কালেকশন রয়েছে। যেমন কার কালেকশন। আম্বানিদের কাছে পৃথিবীর সবচেয়ে দামি দামি কারের কালেকশন রয়েছে। এমনকি সম্প্রতি তিনি Rolls Royce Cullinan নামে একটি দামি কার কিনেছেন। বলা হচ্ছে যে এই কারটি ভারতের সবচেয়ে দামি কার। আসুন মুকেশ আম্বানির এই কারটির বিষয় সংক্ষেপে জেনেনি।

মুকেশ আম্বানি এই গাড়িটি চলতি বছর কিনেছিলেন এবং এখন গাড়িটির ডেলিভারি পেলেন তিনি। সূত্র থেকে জানা গেছে এই গাড়িটির জন্য অনেক টাকা খরচ করে তিনি কিনেছেন নতুন নম্বর। এছাড়া একগুচ্ছ কাস্টমাইজেশনও করিয়েছেন তিনি। এমনকি ব্যক্তিগত সুরক্ষাবাহিনীর সাথে রাস্তায় দেখা গেছে সম্প্রতি গাড়িটিকে।

একটি রিপোর্ট থেকে জানা গেছে যে এই গাড়িটির দাম হলো ৬.৮ কোটি টাকা। তবে যেহুত মুকেশ আম্বানি অনেক কিছু কাস্টমাইজেশন করিয়েছে তার জন্য এই গাড়িটির দাম বেড়ে গিয়ে মোট খরচ হয়েছে ১৩.১৪ কোটি টাকা। ঠিক কি কি কাস্টমাইজেশন করা হয়েছে এই গাড়িতে সেই বিষয় এখন কোনো তথ্য জানা যায়নি।

তবে এই গাড়ির রঙের পিছনেই ১ কোটি টাকা খরচ হয়েছে এবং বাইরে থেকে বোঝা যাচ্ছে গাড়িতে ২১ ইঞ্চির টায়ার লাগানো হয়েছে। এই টায়ারের দাম অনলাইন জানা যায়নি, একমাত্র শো রুম থেকেই এর দাম জানা সম্ভব হবে। জানিয়ে দি, এর আগেও আম্বানিদের গ্যারাজে ছিল একাধিক Rolls Royce Cullinan। আর এই গাড়ি কাস্টমাইজেশনের অসংখ্য অপশানও রয়েছে।

এছাড়া আরেকটি বিষয় জানিয়ে দি, আম্বানিরা এই নতুন গাড়ির জন্য ০০০১ নম্বর ব্যাবহার করেছেন। আর vip নম্বর পাওয়ার জন্য আম্বানিকে RTO অফিসে ৪ লাখ টাকা খরচও করতে হয়েছে। আর নম্বর রেজিস্ট্রেশনের জন্য ১২ টাকা খরচ হয়েছে। আসলে নতুন সিরিজের নম্বর শুরু করার জন্য ট্রান্সপোর্ট কমিশনারের কাছ থেকে লিখিত অনুমতি নিতে হয়েছে যার কারণে রেজিস্ট্রেশনের খরচ ৪ গুন বেশি বেড়ে গেছে বলে জানিয়েছে RTO।

 

এছাড়া রিপোর্ট থেকে এটাও জানা গেছে যে আম্বানি এই গাড়ির জন্য ২০ লাখ টাকার একককালীন কর প্রদান করেছেন। অর্থাৎ ২০৩৭ সালের জানুয়ারি পর্যন্ত এই গাড়ির রেজিস্ট্রেশন বৈধ থাকবে। সুরক্ষার জন্য নাকি আরো ৪০০০০ টাকা অতিরিক্ত কর দেওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে। জানিয়ে দি আগেও আম্বানিকে গ্যারেজে ছিল ২টি Rolls Royce Cullinan। আর Rolls Royce Cullinan ছাড়া আম্বানিকে গ্যারেজে রয়েছে Rolls Royce Phantom Drophead Coupe ও Phantom Extended Wheelbase। এই গাড়ির দাম প্রায় 13 কোটি টাকা।

Related Articles

Back to top button