পড়াশোনার জন্য বিক্রি করে দিয়েছিলেন ঘরবাড়ি, আজ নিজের দমে তৈরি করেছেন ৭,৫০০ কোটি টাকার কোম্পানি

কোভিডের পর থেকে গোটা পৃথিবীতে অনলাইন ক্লাসের ক্রেজ বেড়ে গেছে। এগুলিকে আলাদা আলাদা কোম্পানি দ্বারা পরিচালনা করা হয়। এই কোম্পানি গুলির মধ্যে ফিজিক্সওয়াল্লা নামে একটি কোম্পানি ভারতীয় ইউনিকর্ণ কোম্পানির তালিকায় ১০১ ফুটবোর্ডে পৌঁছে গেছে। এই কোম্পানিটি একটি স্টার্টআপ কোম্পানি।

এই কোম্পানিটির আগমন ঘটেছিল ২০১৭ সালে। আর যিনি এই কোম্পানিটিকে শুরু করেছিলেন তার নাম হলো আলাখ পাণ্ডে (Alakh Pandey)নামক ব্যক্তি। ইনি পেশায় একজন শিক্ষক ও তিনি বাচ্চাদের টিউশন পড়াতেন। লোকডাউনের পর তার মাথায় এসেছিল বাচ্চাদের অনলাইন ক্লাসের মাধ্যমে পোড়ানোর বুদ্ধি। আর এই বুদ্ধি দ্বারা তিনি আজ ৭৭৭ কোটি টাকার কোম্পানি তৈরি করে ফেলেছেন।

অভিনেতা হতে চাইতেন আলাখ

অলাখ পান্ডে (Alakh Pandey) সবসময়ই একজন অভিনেতা হওয়ার স্বপ্ন দেখতেন।এমনকি তিনি তার স্কুল ও কলেজ জীবনে প্রচুর নাটকে কাজও করেছেন।কিন্তু যেহুত আলাখ একজন গরিব পরিবারের ছেলে ছিলেন সেহেতু তাকে আর্থিক অভাবের কারণে অষ্টম শ্রেণীতে পড়ার সময় থেকেই টিউশন পড়ানো শুরু করতে হয়েছিল।

আলাখ যখন একাদশ শ্রেণিতে পড়তেন তখন তিনি নবম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের টিউশনি দিতেন। জানিয়ে দি আলাখ ছোটবেলা থেকেই মেধাবী ছিলেন। মাধ্যমিক পরীক্ষায় তিনি ৯১% নম্বর নিয়ে পাশ করেছিলেন এবং দ্বাদশ শ্রেণীর পরীক্ষায় তিনি ৯৩.৫% নম্বর নিয়ে পাশ করেছিলেন।

স্কুলের পড়া শেষ হওয়ার পর আলখ একটি কোচিং সেন্টারে শিক্ষকতার কাজ শুরু করেছিলেন। এই টিউশন সেন্টারে পড়ানোর জন্য তিনি প্রতি মাসে তিন হাজার টাকা করে বেতন পেতেন। এর পরে আলাখ পান্ডে তার বিটেক পড়াশোনা করার জন্য এইচবিটিআই কানপুরে ভর্তি হয়েছিলেন এবং ২০১৫ সালে তিনি তার বিটেক ডিগ্রি পেয়েছিলেন।

লেকচারের ভিডিও বানিয়ে আপলোড করতেন

কলেজের পড়া শেষ করার পর আলাখ পান্ডে সেই কলেজেই ছাত্রদের শিক্ষক হিসাবে পড়াতে শুরু করেছিলেন। এছাড়া তিনি তার ক্লাসের প্রতিটি ভিডিও সুট করে তার ইউটিউব চ্যানেলে ভিডিও গুলি ছাড়তেন। তিনি তার ইউটিউব চ্যানেলের নাম রেখেছিলেন ফিজিক্সওয়াল্লা। এই চ্যানেলটি ২০১৭ সালে চালু করা হয়েছিল।

এর পর, অলাখ পান্ডে সরকারি চাকরির জন্য প্রস্তুতি নেওয়া শিক্ষার্থীদের জন্য ভিডিও তৈরি করতে শুরু করে দিয়েছিলেন। এই কারণে ধীরে ধীরে ফিজিক্সওয়াল্লা চ্যানেলের ভিউ ও সাবস্ক্রাইবার বাড়তে শুরু করেছিল। এরপর আলাখ বুঝতে পেরেছিলেন যে তিনি এই ফিল্ডে আরও ভালো করে কাজ করতে পারেন।

ফিজিক্সওয়াল্লা অ্যাপের দ্বারা শুরু করেছিলেন কোম্পানি

তার ভিডিও গুলি জনপ্রিয় হওয়ার পর ৩ বছর ধরে তিনি একটানা ইউটিউব চ্যানেলে ভিডিও আপলোড করতেন। তবে করোনা মহামারির সময় আসল সফলতা অর্জন করেছিলেন আললাখ পান্ডে। কজ আলাখ JEE ও NEET পরীক্ষার জন্য প্রস্তুটি নেওয়া শিক্ষার্থীদের জন্য প্রশ্ন সমাধান করার একটি অ্যাপ তৈরি করেছেন। এই অ্যাপে শিক্ষার্থীরা কম ফিস দিয়ে অনলাইন কোচিংয়ের সুবিধা নিতে পারে।

এইভাবে আলাখ পান্ডে ঘরে বসে বাচ্চাদের পদার্থবিদ্যা ও রসায়নের অনলাইন ক্লাস দেওয়া শুরু করেছিলেন। এরপর অনেক শিক্ষার্থীরা তার অনলাইন ক্লাসে যোগ দিতে শুরু করেছিল। এইভাবে মাত্র কয়েক দিনে, প্রায় ৫০ লাখ মানুষ আলাখ পান্ডের তৈরি অ্যাপটি ডাউনলোড করেছিল। এছাড়া আলাখের ইউটিউব চ্যানেলেও প্রায় ৬৯ লাখের বেশি সাবস্ক্রাইবার রয়েছে।

আলাখ পান্ডের ফিজিক্সওয়াল্লার বিপুল সাফল্য দেখে আনাকাডেমি নামক একটি প্ল্যাটফর্ম তাকে বার্ষিক ৪ কোটি টাকার একটি প্যাকেজ দেয়, যাতে আলাখ তাদের সাথে যুক্ত হয়ে যায়। কিন্তু আলাখ কোম্পানির প্রস্তাব ফিরিয়ে দেন কারণ তিনি জানতেন যে ফিজিক্সওয়াল্লার কোনো প্ল্যাটফর্মের প্রয়োজন নেই কারণ তিনি বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছেন।

২০২০ সালে আলাখ পান্ডে কোম্পানি এক্ট এর অধীনে ফিজিক্সওয়ালা চ্যানেলকে রেজিস্টার করিয়ে ছিলেন এবং তার চ্যানেলটিকে একটি কোম্পানিতে রূপান্তরিত করেছিলেন। এরপর ধীরে ধীরে অনেক বিখ্যাত ব্যক্তিরা আলাখের কোম্পানির সাথে যোগ দিতে শুরু করেন ও কোম্পানির জনপ্রিয়তা বৃদ্ধি পেতে থাকে।

আজ এই কোম্পানির সাথে প্রায় ১৯০০ জনেরও বেশি লোক যুক্ত রয়েছেন। যার মধ্যে ৫০০ জন শিক্ষক রয়েছেন এবং ১০০ জন টেক প্রফেশনালস রয়েছে। আপনি জেনে অবাক হবে যে এই কোম্পানিটি ইউনিকর্ণ তালিকায় ১০১ নম্বরে থাকা সত্ত্বেও কোম্পানির নেটওয়ার্ট ১.১ বিলিয়ান ডলার।

আলাখ পান্ডের কোম্পানি দাবি করেছে যে ২০২০ থেকে ২০২১ সালের মধ্যে ফিজিক্সওয়াল্লা চ্যানেল বা অ্যাপ থেকে কোচিং নেওয়া ছাত্রদের মধ্যে ১০ জন মেডিক্যাল ও ইঞ্জিনিয়ারিং পরীক্ষায় সফল হয়েছেন। শুধু তাই নয় দেশের ৬ জন মেডিকেল স্টুডেন্টের মধ্যে ১ জন ফিজিক্সওয়ালার সাথে যুক্ত রয়েছে। আর ১০ ইঞ্জিনিয়ারিং স্টুডেন্টের মধ্যে ১ জন তাদের অ্যাপ থেকে কোচিং নেয়।

এই কোম্পানিটি ২০২১ সালে প্রায ২৪.৫২ কোটি টাকার ব্যবসা করেছিল। আর কোম্পানিবলাভ করেছিল ৬.৯৩ কোটি টাকা। একটি ছোট ঘরে টিউশনি পড়ানো আলাখ পান্ডে নিজের পরিশ্রম ও শিক্ষার জোরে আজ কোটি কোটি টাকার কোম্পানির মালিক হতে পেরেছেন।

 

 

 

Related Articles

Back to top button