সম্রাট পৃথ্বীরাজ এর ফ্লপের পর কী সত্যিই ‘ধুম 4’ থেকে বাদ পড়ল অক্ষয় কুমারের নাম, জানুন বিস্তারিত

গত ৩ জুন ২০২২-এ অক্ষয় কুমারের অভিনীত ফিল্ম ‘সম্রাট পৃথ্বিরাজ’ মুক্তি পেয়েছিল। ফিল্মটি প্রথম কিছুদিন ভালো চললেও তারপর খুব একটা আয় করতে করতে পারছে না। যার ফলে বোঝাই যাচ্ছে যে ফিল্মটি দর্শকদের ভালো লাগেনি ও ফিল্মটি বক্স অফিসে ফ্লপ প্রমাণিত হতে চলেছে। জানিয়ে দি ফিল্মটি ভালো খারাপ দুই ধরণের প্রতিক্রিয়াই পেয়েছে। আর ফিল্মের পাওয়া নেগেটিভ প্রতিক্রিয়ার পর থেকে অক্ষয়ের কেরিয়ার নিয়ে উঠতে শুরু করেছে প্রশ্ন। এমনকি অক্ষয়ের আপকামিং ফিল্ম গুলিকে নিয়ে ক্রিটিক্স খুব একটা ভালো রিভিউ দেয়নি। যার ফলে অভিনেতার ফিল্ম কেরিয়ার বিপদের সম্মুখীন হয়েছে।

Film samrat prithviraj

এমনকি কিছু সময় পূর্বে মিডিয়া রিপোর্ট থেকে জানা গেছিল যে যশরাজের ফিল্ম ধুম-৪ এ অক্ষয় কুমারকে মুখ্য চরিত্রে দেখা যাবে। কিন্তু সম্রাট পৃথ্বিরাজ ফিল্মটি ফ্লপ হওয়ার পর মিডিয়া রিপোর্ট থেকে খবর পাওয়া গেছে যে অক্ষয় কুমারকে ফিল্ম ‘ধুম-৪’ থেকে বাতিল করে দেওয়া হয়েছে। সূত্র অনুযায়ী ধুম-৪ নেগেটিভ চরিত্র পালন করার কথা ছিল অক্ষয় কুমারের। যদিও যশরাজ এখনো অক্ষয় কুমারকে বাতিল করা হচ্ছে কিনা এই বিষয়টি নিয়ে কিছু জানায়নি।

Akshay Kumar

বক্স অফিসের বিজনেস অনুসারে, অক্ষয় কুমারের ফিল্ম সম্রাট পৃথ্বিরাজ ফিল্মটি মুক্তির ১১তম দিনে মাত্র ১.২ কোটি টাকা আয় করেছে। ফিল্মটির এত কম আয় সত্যিই আশ্চর্যজনক বিষয়। জানিয়ে দি গত কিছু সময় ধরে অক্ষয় কুমারের ফিল্ম ক্রমাগত একের পর এক ফ্লপ হয়েই চলেছে। প্রথমে বেল বটম ফ্লপ হলো, তারপর বচ্চন পান্ডে এবং এখন সম্রাট পৃথ্বীরাজ।একটানা একেরপর এক ফিল্ম ফ্লপ হওয়ায় অক্ষয়কে নিয়ে আলোচনা শুরু হয়েছে যে বোধহয় অক্ষয়ের কেরিয়ার এবার শেষ হতে চলেছে।

২০০৮ সালে অক্ষয় যশরাজের ফিল্ম ‘টাশান’-এ কাজ করেছিলেন এবং সেই ফিল্মটি বক্স অফিসে ফ্লপ প্রমাণিত হয়েছিল। আজ ১৩ বছর পর অক্ষয় আবার যশরাজের ফিল্ম সম্রাট পৃথ্বিরাজ করলেন এবং এটিও বক্স অফিসে ফ্লপ প্রমাণিত হলো।

Akshay Kumar and manushi chilar

সম্রাট পৃথ্বীরাজ ফিল্মে প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন অক্ষয় কুমার। এই ফিল্মে মুখ্য অভিনেত্রীর ভূমিকা পালন করেছেন পূর্ব মিস ওয়ার্ল্ড মানুশি ছিল্লার। এছাড়া সঞ্জয় দত্ত, সোনু সুদ, আশুতোষ রানা ও সাক্ষী তানওয়ারকেও এই ফিল্মে অভিনয় করতে দেখা গেছে। পরিচালক চন্দ্রপ্রকাশ দ্বিবেদীর এই ফিল্ম পরিচালনা করছে। আর এই ফিল্মটির বাজেট ছিল ৩০০ কোটি টাকা। এই ফিল্মটিকে প্রোডিউস করেছে যশ রাজ ফিল্মস।

 

Related Articles

Back to top button