সত্যিই কী 6G এলে শেষ হয়ে যাবে স্মার্টফোনের ভবিষ্যৎ?2030-এ কীভাবে করবে মানুষেরা কাজ, ভবিষ্যৎবাণী করলেন Nokia CEO

মোবাইল নেটওয়ার্কের প্রযুক্তি গুলি দিন দিন নিজেকে উন্নত করেই চলেছে। প্রথমে 1G, 2G, 3G, 4G, 5G আবার এখন আসতে চলেছে 6G। Nokia কোম্পানির ceo আসন্ন 6G ও স্মার্টফোন নিয়ে একটি বড় ভবিষ্যৎবাণী করেছেন। তিনি জানিয়েছেন নাকি ২০৩০ সালের মধ্যে নাকি হবে সমস্ত স্মার্ট ফোনেট সমাপ্তি। এই কথাটির মানে কি? এছাড়া তিনি আরো কি কি বলেছেন সেটা সংক্ষেপে জানতে আর্টিকেলটি পড়ুন শেষ পর্যন্ত।

কথোপকথনের জন্য পমোবাইল নামক ডিভাইসটি তৈরি করা হয়েছিল। মানুষের মধ্যে এই ডিভাইসটি প্রায় কয়েক দশক ধরে রয়েছে। এমনকি সময়ের সাথে সাথে মোবাইল গুলিকে বেশ উন্নতমানের তৈরিও করা হয়েছে। তবে অনুমান করার হচ্ছে কিছু বছর মোবাইল ডিভাইসটিও ইতিহাসের অংশ হয়ে যাবে। মোবাইল বা স্মার্ট ফোন হলো একটি দ্রুত বর্ধনশীল পণ্য। আজ থেকে ১৫-২০ বছর আগে স্মার্ট ফোন শুধু মানুষের কল্পনায় ছিল কিন্তু আজ মানুষ এটি ব্যবহার করছে। এই ডিভাইসটির যেমন দ্রুত বিকাশ ঘটেছে, অনুমান করা হচ্ছে খুব দ্রুত এটি ইতিহাসের খাতায় নাম লেখাবে।

Nokia-র ceo পেক্কা লুন্ডমার্ক, ডাভোসে চলমান ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরামে তিনি তার অনুমানের কথা জানিয়েছেন যে তিনি মনে করেন ২০৩০ সালে যখন 6G প্রযুক্তি মার্কেটে আসবে তার আগেই মানুষ স্মার্ট ফোন ব্যবহার করা বন্ধ করে দিয়ে স্মার্ট চশমা ও অন্যান্য স্মার্ট বা এডভান্স ডিভাইস গুলি ব্যবহার করা শুরু করে দেবে। অর্থাৎ তিনি বলতে চেয়েছেন যে আমরা যে স্মার্টফোনগুলি ব্যবহার করছি সেগুলি আর সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত ইন্টারফেস হবে না। এর মধ্যে অনেক কিছুই সরাসরি আমাদের শরীরে আসতে শুরু করবে। তবে তিনি স্পেসিক কোনো ডিভাইসকে উল্লেখ করেননি।

একটি রিপোর্ট থেকে জানা গেছে ইলন মাস্কের নিউরালিংক কোম্পানি 6G প্রযুক্তির উপর কাজ করছে এবং বর্তমানে মস্তিষ্কের কম্পিউটার ইন্টারফেসও প্রস্তুত করছে। গতবছর মাস্ক এই জিনিসটির ফুটেজও প্রকাশ করেছিলেন এবং দেখিয়েছিলেন যে কিভাবে একটি পুরুষ ম্যাকাকের মস্তিষ্কে চিপ সেট করা হয়েছে এবং সে মাইন্ড পং খেলছিল। যদিও ল্যাঙ্গুর জয়স্টিক চালানোর জন্য প্রশিক্ষিত ছিল কিন্তু এই পরীক্ষার সময় তাকে আনপ্লাগ করা হয়েছিল। ম্যাকাক নিজের মস্তিষ্কের সাহায্য প্যাডেলটিকে হ্যান্ডেল করছিলেন ও তার মনে হয়েছিল যে জয়স্টিকের দ্বারা তিনি এটি করতে পেরেছেন।

আর যদি 6G এর কথা বলা হয় তবে জানিয়ে দি 6G বিষয় অনেক কিছুই এখনো পরিষ্কারভাবে জানা যায়নি। তবে ভারতের প্রধান মন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি জানিয়েছেন 6G এর জন্য টাস্কফোর্স তৈরি করা হয়েছে। আপাতত এখন ভারতে 5G প্রযুক্তি চালু করার চেষ্টা চলছে এবং আসা করা যাচ্ছে ২০২২ এর শেষে আমরা 5G প্রযুক্তি দেখতে পাবো।

 

Related Articles

Back to top button