সৌন্দর্যের দিক থেকে একাধিক বলি অভিনেত্রীকে টেক্কা দেবে ভোজপুরি সুপারস্টার রবি কিষাণ এর মেয়ে, দেখুন ছবি

ভোজপুরী ইন্ডাস্ট্রির সুপারস্টার রবি কিষান ৫২ বছর বয়সে পা দিলেন।। তিনি ১৯৬৯ সালের ১৭ জুলাই উত্তর প্রদেশের জৌনপুর জেলার বিসুই নামক গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি সুপারস্টারের পাশাপাশি একজন ভালো বাবা। রবি কিষান সম্পর্কে কম-বেশি সকলেরই জানা, তবে তার পরিবার সম্পর্কে অনেকেই জানেন না। আসুন আজ তাঁর ব্যক্তিগত জীবন সমন্ধে জেনে নিন।


তাঁর স্ত্রীর নাম প্রীতি কিষান। তিনি এক পুত্র সহ তিন কন্যার বাবা। বড় মেয়ের নাম রিভা। তাঁর ওপর দুই মেয়ের নাম যথাক্রমে তানিস্ক ও ঈশিতা এবং ছেলের নাম সাক্ষম।মাঝে মধ্যেই রবি কিষান, বাবা ও মেয়ের সুন্দর মুহূর্তের ছবি সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করেন। খুবই সুন্দরী তাঁর মেয়ে রিভা। বাবার মতোই রিভা অভিনয়ের পথেই পা বাড়িয়েছেন। ‘সব কুশল মঙ্গল’ চলচ্চিত্র, যেটি ২০২০ সালের জানুয়ারিতে মুক্তি পেয়েছিল, সেই সিনেমা দিয়ে মেয়ে রিভার প্রথম আত্মপ্রকাশ ঘটে। এই ছবিতে অক্ষয় খান্না এবং প্রিয়াঙ্ক শর্মার সঙ্গে তাঁকে কাজ করতে দেখা গেছে।

রবি কিষানের বড় মেয়ের বয়স এখন ২৪। তিনি অনেক গ্ল্যামারাস এবং সুন্দরী। মাঝে মধ্যেই তাঁর গ্ল্যামারাস লুক সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করেন তিনি। বড় মেয়ে রিভাকে নিয়ে তিনি একটি সাক্ষাৎকারে বলেন, তাঁর সিনেমা দেখেই মেয়ের শৈশব কেটেছে এবং জন্মগত ভাবেই তিনি একজন শিল্পী। তাই অভিনয় জগতে ভবিষৎ তাঁর উজ্জ্বল হবে।

মেয়ের প্রথম ছবির প্রিমিয়ারের সময় মৃত্যু ঘটে তাঁর বাবার, সে কারণে মেয়ের ছবির প্রিমিয়ারে পৌছেতে পারেননি রবি কিষান। তবে পৌঁছাতে না পারার কারণে তিনি টুইট করে মেয়ে রিভার কাছে ক্ষমাও চেয়েছিলেন। মেয়ে রিভার সাথে একসাথে স্ক্রিন শেয়ার স্বপ্ন দেখেন রবি কিষান। রবি কিষান একটি সাক্ষাৎকারে জানিয়ে ছিলেন, যখন তাঁর বড় মেয়ে রিভা জন্মগ্রহণ করে, তখন স্ত্রীকে কোনো বড় হাসপাতালে ভর্তি করার সামর্থ্য তাঁর ছিল না। তবে রিভার জন্মের পর তাঁর ভাগ্যের বদল ঘটে।

রিভা আমেরিকার অ্যাক্টিং ইনস্টিটিউট থেকে অভিনয়ের প্রশিক্ষণ নিয়েছেন এবং বিখ্যাত অভিনেতা নাসিরউদ্দিন শাহের প্লে গ্রুপে এক বছর অভিনয় করেছেন তিনি। অভিনয়ের পাশাপাশি নাচেও তিনি দক্ষতা অর্জন করেছেন।আড়াই বছর ধরে নাচের প্রশিক্ষণ নিয়েছেন তিনি। বলিউডে অভিষেক নিয়ে রিভা জানিয়েছেন, তিনি তাঁর বাবার বন্ধু মঈন বেগের থেকে বলিউডে কাজ করার সুসংবাদটি পেয়েছেন। যখন এই সুসংবাদটি পেয়েছিলেন তখন তিনি আমেরিকাতে ছিলেন। ফোনের মাধ্যমেই তিনি এই সুসংবাদটি পেয়েছিলেন।

বলিউড ইন্ডাস্ট্রিতে নিজের জায়গা করেনিতে অনেক লড়াই করতে হয়েছে রবি কিষানকে। তিনি ১৯৯১ সালে মুক্তি প্রাপ্ত ‘পিতাম্বর’ ছবিতে কাজ করেছেন। তবে ছবিটি দিয়ে তাঁর ভাগ্যের পরিবর্তন ঘটেনি। এরপর তিনি ‘উধার কি জিন্দেগি’ কাজ করার সুযোগ পান, যে ছবিতে একটি মুখ্য ভূমিকায় কাজলকে অভিনয় করতে দেখা গেছে। শুধু তাই নয় তিনি শারুক খান অভিনীত ‘আর্মি’ ছবিতেও কাজ করেছেন। এই দুটি সিনেমায় তাঁর ভাগ্যের বদল ঘটায়। ২০০৩ সালে মুক্তি প্রাপ্ত ‘তেরে নাম’ ছবিটিতে তিনি সালমান খানের সাথে কাজ করার সুযোগ পান। এতে পণ্ডিত রামেশ্বরের ভূমিকায় তাঁকে অভিনয় দেখা গেছে। হিন্দি ছাড়াও তিনি অনেক ভোজপুরীতে সিনেমাতে কাজ করেছেন। তাঁর অভিনীত প্রথম ভোজপুরী সিনেমা হলো ‘সাইয়ান হামার’। ভোজপুরী ভাষায় এখনো পর্যন্ত তিনি ৩৫০ টির বেশি ছবিতে অভিনয় করেছেন।

Related Articles

Back to top button