ছবিতে দেখতে পাওয়া এই মেয়েটি আজ বলিউড ইন্ডাস্ট্রির বড় নাম, মাত্র ৬ বছর বয়সে শুরু করেছিলেন ক্যারিয়ার

বলিউড ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি হোক বা টলিউড ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির অভিনেতা-অভিনেত্রী কিংবা ফেমাস সেলিব্রিটিদের বিষয় তাদের ভক্তরা খুঁটিনাটি জানতে চায়। সেটা কর্ম জীবন সংক্রান্ত খবর হোক কিংবা ব্যক্তিগত জীবন সংক্রান্ত খবর। তাই বলা যেতে পারে এই সেলিব্রিটিরা সবসময় আলোচনার বিষয় হয়ে থাকে। তাই প্রায়ই সোশ্যাল মিডিয়ায় সেলিব্রিটিদের অনেকরকম ছবিও ভাইরাল হতে থাকে। বিশেষ করে তাদের ছোটবেলার ছবি না পুরনো দিনের ছবি। এছাড়া অনেকসময় সেলিব্রিটিরাও তাদের ভক্তদের উদ্দেশ্যে অনেক সময় নিজেদের ছোটবেলার ছবি বা পুরনো ছবি শেয়ার করে থাকে।

বর্তমানে বলিউডের একজন খুব ফেমাস সেলিব্রিটির ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হচ্ছে। আর এই ছবির মহিলাটিকে ভক্তদের পক্ষে চেনা হয়ে উঠছে চ্যালেঞ্জের বিষয়। এই মহিলা একজন সিঙ্গার যিনি চাইল্ড আর্টিস্ট হিসেবে বলিউডে এন্ট্রি মেরেছিলেন ও আর এই সিঙ্গারের নাম সবচেয়ে বেশি শোনা গানের গায়িকাদের তালিকায় টপে রয়েছে। কী এখনো চিনতে পারলেন না? জানিয়ে দি আমরা বলিউডের বিখ্যাত সিঙ্গার আল্কা ইয়াগনিকের (Alka Yagnik ) বিষয় কথা বলছি। আসুন এনার বিষয় কিছু অজানা তথ্য জেনেনি। আল্কা ইয়াগনিক ১৯৬৬ সালের ২০ মার্চ ধর্মেন্দ্র শঙ্কর এবং শুভার বাড়িতে জন্মগ্রহণ করেছিলেন। আল্কার মা নিজেও একজন বড় গায়িকা ছিলেন। এমতাবস্থায় ছোটবেলা থেকেই আল্কা তার মায়ের কাছে গান শিখতে শুরু করেছিলেন। তার মায়ের মতো আল্কাও সঙ্গীতের প্রতি আসক্ত ছিলেন এবং মাত্র ৬ বছর বয়স থেকে তিনি অল ইন্ডিয়া রেডিওতে গান গাওয়া শুরু করেছিলেন।

আল্কা ইয়াগনিকের (Alka Yagnik)মা শুভা সেইসময় জানতেন যে তার মেয়ে প্রতিভাবান এবং সে ভবিষ্যতে একজন বড় গায়িকা হতে পারবে। এমতাবস্থায় আল্কাকে ভালো সুযোগ খুঁজে দেওয়ার খোঁজে থাকতেন আল্কার মা। আল্কার বয়স যখন ১০ বছর তখন শুভা তাকে নিয়ে মুম্বাই গেছিলেন। এরপর আল্কা শিশুশিল্পী হিসেবে গান গাইতেন এবং মায়ের সঙ্গে রিয়াজ করতেন। একবার কলকাতার এক ডিস্ট্রিবিউটরের মাধ্যমে রাজ কাপুরের সঙ্গে মা শুভার দেখা হয়েছিল। রাজ কাপুর যখন আল্কার কণ্ঠস্বর শুনেছিলেন তিনি খুব মুগ্ধ হয়েছিলেন এবং তিনি অবিলম্বে আল্কাকে লক্ষ্মীকান্ত পেয়ারেলালের কাছে পাঠিয়েছিলেন। আর রাজ কাপুরই একমাত্র ব্যক্তি যিনি আল্কার প্রতিভাকে স্বীকৃতি দিয়েছিলেন।

Alka yagnik

লক্ষ্মীকান্ত পেয়ারেলালও আল্কার কণ্ঠে খুব মুগ্ধ হয়েছিলেন এবং তাকে রেকর্ডিং শিল্পী রূপে অন্তর্ভুক্ত করেছিলেন। এরপর ধীরে ধীরে গানের জগতে যুক্ত হন আল্কা। ‘টিপ টিপ বরসা পানি’, ‘চুরা কে দিল মেরা’, ‘লাডকি বাদি অঞ্জনি হ্যায়’, ‘বাজিগর ও বাজিগর’, ‘আয় মেরে হামসাফর’, ‘আইসি দিওয়াঙ্গি’-এর মতো গান গেয়ে মানুষকে তার কণ্ঠের জন্য পাগল করে তোলেন তিনি। আর আল্কার ব্যক্তিগত জীবনের কথা বলতে গেলে ১৯৮৯ সালে নীরজ কাপুরের সাথে লাভ ম্যারেজ হয়েছিল আল্কার কিন্তু কিছু সময়ের পরে তাদের দুজনের মধ্যে মতপার্থক্য হয়ে শুরু করেছিল। দুজনেই আজ প্রায় ২৭ বছর ধরে একেঅপরের আলাদা থাকেন তবে তাদের ডিভোর্স হয়নি ও তাদের মধ্যে আজও সম্পর্ক ভালো রয়েছে।এছাড়া দুজনের একটি মেয়েও রয়েছে যার নাম সায়েশা কাপুর।

Related Articles

Back to top button