বিনা কারণে ৬ মাসের গর্ভবতী কে Twitter থেকে বরখাস্ত করলেন Elon Musk, আদালতে দেখে নেবার চ্যালেঞ্জ ছুঁড়লেন মহিলা

টুইটারে অপারেশন ক্লিন চালানো কোম্পানির নতুন বস এলন মাস্ক আবার কোর্ট-কাছারির চক্করে পরতে পারেন। আসলে সম্প্রতি এক প্রেগনেন্ট মহিলা যাকে ছাঁটাই-এর স্বীকার হতে হয় টুইটারের কোম্পানির চাকরি থেকে তিনি তার চাকরি চলে যাওয়ার পর টুইটার একাউন্ট থেকে টুইট করে লেখেন যে ‘see you in court’। যদিও টুইটার শানেন লু-এর এই টুইটটি টুইটার থেকে ডিলিট করে দেওয়া হয়েছে।

টুইটারের ডিল হয়তো ফাইনাল হয়ে গেছে ও তার নতুন কর্তা এখন এলন মাস্ক হয়ে গেছেন কিন্তু এই ডিলে হওয়া আপস এন্ড ডাউন্সের সময় মাস্ক কোর্ট-কাছারির চক্করেও ফেঁসে গেছিল। ডেলাওয়ের কোর্টের আদেশ অনুযায়ী বর্তমান শর্তগুলো অনুযায়ী এলন মাস্ককে এই ডিলটা পূরণ পর্যন্ত করতে হয়েছিল। এরপর যখন কোম্পানি টুইটারের কন্ট্রোল নিজের হাতে পায় তখন তিনি অত্যন্ত বেশি মাত্রায় ছাটাই শুরু করে দেয়। এই ছাটাইয়ের প্রসেস চলাকালীন টুইটার, সিইও পরাগ আগারওয়াল সমেত আরো তিনজন শীর্ষ কর্মকর্তাদের বাইরের রাস্তা দেখিয়ে দেয়।

এলন মাস্ক এখানেই থেমে থাকেননি। তিনি টুইটার আইএনসি-তে অর্ধেক স্টাফদের উপর কাঁচি চালিয়েছেন অর্থাৎ ছাটাই করে দিয়েছেন। আপাতত কোম্পানিতে এখন ৩৭০০ জন কাজ করছেন। এইসবের মধ্যে একজন প্রেগনেন্ট কর্মচারী মহিলা শানেন লু এই ছাটাইয়ের স্বীকার হন। যার পর এই মহিলা টুইটারে অনেকগুলো টুইট করে লেখেন যে তিনি এলন মাস্কের উপর কেস করবেন ও তাকে কোর্টে টেনে নিয়ে যাবেন তার প্রতিজ্ঞা করেন। শানেন লু এতদিন টুইটারে ডেটা সাইন্স ম্যানেজারের পদটি সামলাছিলেন।

ডেইলিমেইলের রিপোর্ট অনুসারে শেনান লু আগে ফেসবুকের মূল সংস্থা মেটাতে কাজ করতেন। এরপর ২০২২ সালের জানুয়ারিতে তিনি টুইটারের কাজে প্রবেশ করেছিলেন। তবে এখন তিনি সত্যি টুইটারে মামলা করবেন কি না তা স্পষ্ট নয়? তার অনেক টুইট তার অ্যাকাউন্ট থেকে মুছে ফেলা হয়েছে। কিন্তু ইনসাইডারের বরাত দিয়ে প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে যে শ্যানেন লু টুইটে লিখেছেন যে ‘আমার টুইটারে কাজের যাত্রা এমন এক সময়ে শেষ হয়েছে যখন আমি ৬ মাসের গর্ভবতী। আমি ছুটিতে আছি।’ পরের টুইটে লু লিখেছেন ‘আপনাদের সবার সঙ্গে কাজ করে দারুণ লেগেছে আমার। আমি এই ডেটা সায়েন্স টিমের নেতৃত্ব করতে পেরে অত্যন্ত কৃতজ্ঞ। এটি একটি মজাদার যাত্রা ছিল’।

শ্যানন আরেকটি টুইটে লিখেছেন ‘এখানে নিশ্চিতভাবে পক্ষপাত করা হয়েছে। আর আমি তাই এর বিরুদ্ধে লড়াই করবো। আমার পারফরমেন্স গত ৩ মাসে অনেক ভালো ছিল। অন্যান্য পুরুষ ম্যানেজারদের কাছের রেটিং বরং এতো ভালো ছিল না।’ উনি এরপর লেখেন ‘see you in court’। আর উল্লেখযোগ্য বিষয় হলো এলন মাস্ক ৪৪ বিলিয়ন ডলার খরচ করে টুইটারকে কিনে নেওয়ার পর গত শুক্রবার প্রায় ৫০ শতাংশ কর্মচারীদের ছাটাই করে দিয়েছিল। যদিও তার পরে আবার কিছু কর্মচারীদের কাজে ফেরত আসার জন্যও বলা হয়েছিল।

শ্যানন একা একমাত্র মহিলা নয় যাকে তার কঠিন সময়ে এলন মাস্কের তুঘলকি ফরমানের স্বীকার হতে হয়েছে। সম্প্রতি টুইটারে কাজ করা মহিলা Rachel Bonn যিনি ৮ মাসের গর্ববতী মহিলা তাকেও চাকরি থেকে বরখাস্ত করা হয়েছে এবং তিনিও তার রাগ টুইটারে প্রবেশ করেছে। সানফ্রান্সিসকো অফিসে কন্টেন্ট মার্কেটিং ম্যানেজার হিসেবে কর্মরত ছিলেন তিনি। তিনি তার ৯ মাসের বাচ্চাকে হাতে নিয়ে একটি ফটো শেয়ার করে টুইটে লিখেছিলেন যে টুইটার আসলে টুইটার ছিল।

Related Articles

Back to top button