১১ লক্ষ টাকা খরচ করে মানুষ থেকে কুকুর হলেন এই ব্যাক্তি, দেখে চেনা অসম্ভব

প্রায় সব মানুষের জীবনেই কিছু না কিছু শখ থাকে। তা সে পাহাড়ি এডভেঞ্চার হোক বা দুর্লভ জিনিস সংগ্রহ করা। কারো আবার থাকে পশুপাখির শখ, আর সেদিক থেকে দেখলে কুকুরের নাম আসে সবার প্রথমে। আর আসবে নাই বা কেন, এইরকম বিশস্ত, প্রভুভক্ত প্রাণী আর কটাই বা আছে। তাই কমবেশি সকলেই নিজের কাছে একটা কুকুর রাখতে চায় তা সে রাস্তার দেশীয় কুকুরই হোক বা বিদেশী জার্মান শেফার্ড। কিন্তু মানুষ কুকুর লালন পালন করলেও কোনোদিন কি মানুষ নিজেকে তার প্ৰিয় প্রাণীর জায়গায় দেখতে চেয়েছেন? উত্তর অবশ্যই না হবে। কিন্তু সম্প্রতি এমনই একটি অদ্ভুত ঘটনা ঘটিয়েফেলেছেন এক জাপানি যুবক। জেনে নিন বিস্তারিত।

মানুষ হয়ে জন্মালেও ছেলেবেলা থেকেই পশুদের জীবন আকৃষ্ট করেছিল জাপানের ব্যাক্তি টোকোকে। পশুদের মতই জীবন যাপন করতে চেয়েছিলেন তিনি। তবে কুকুরের প্রতি ভালোবাসাটা একটু বেশি ছিল তার। তাই লক্ষ্ লক্ষ টাকা খরচ করে সম্প্রতি নিজেকে বদলে ফেলেছেন আস্ত একটি কুকুরে। এরজন্য টোকো পেশাদার লোকেদের সাহায্যও নিয়েছেন। সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়েছে টোকোর কুকুররুপী ভিডিওটি।

টোকো তার এই উদ্ভট শখ পূরণ করতে কিন্তু কোনোরকম শারীরিক মোডিফিইকেশন করেন নি। বরং অত্যন্ত নিখুঁত আলট্রা রিয়ালিস্টিক কুকুরের পোশাক বানিয়েছেন যা তাকে মানুষ থেকে কুকুর করে তুলেছে। আর নিজেকে কুকুর বানাতে টোকো জাপানের নামী কস্টিউম ডিজাইনিং সংস্থা জেপেটের সাথে যোগাযোগ করেছিলেন এবং তাদেরকেই কুকুরের পোশাক তৈরীর অর্ডারটি দিয়েছিলেন। সেইসাথে তিনি শর্ত রেখেছিলেন এমন পোশাক তাকে বানিয়ে দিতে হবে, যাতে কোনোভাবেই না বোঝা যায় তিনি একজন কুকুরের ছদ্দবেশী মানুষ।

টোকোর কথা মত হুবহু কুকুরের পোশাক তৈরী করে দিয়েছিল ডিজাইনিং সংস্থাটি। আর এরজন্য তারা পারিশ্রমিক বাবদ ২ মিলিয়ন ইয়েন অর্থাত্ ভারতীয় মুদ্রায় ১১লাখ ৬৩ হাজার টাকা তার কাছে চেয়েছিলেন। অবশ্য শখ পূরণ করতে কোনোরকম দ্বিধা বোধ করেননি টোকো। তাঁর পোশাক তৈরী করতে সিন্থেটিক পশম ব্যবহার করেছিল জেপেট। এমনকি ক্ষুদ্র থেকে ক্ষুদ্রতম ডিটেলসটিও যত্ন সহকারে করেছিলেন তারা।

ওয়ার্কশপের কর্মীদের পোশাকটি তৈরী করতে প্রায় ৪০ দিন সময় লেগেছিল। সেইসঙ্গে টোকো তার নতুন জীবনের আপডেট দেওয়ার জন্য ইউটিউবে একটি চ্যানেলও তৈরি করেছেন।সেখানে কুকুরের ভিডিওটি তিনি পোস্ট করেছেন এবং ক্যাপশনে লিখেছেন “আপনি কি কখনও পশু হতে চেয়েছেন? আমি করেছি। আমি আমার স্বপ্নকে এভাবেই বাস্তব করেছি,”

Related Articles

Back to top button