মা হওয়ার পর বদলে গেছে অনেক কিছু! তবে আবারও ছেলেকে সঙ্গে নিয়ে শুটিং ফ্লোরে ফিরছেন শুভশ্রী

বহুদিন পর আবার নিজের চেনা ছন্দে শুটিং ফ্লোরে ফিরছেন শুভশ্রী গঙ্গোপাধ্যায় ।গর্ভাবস্থা থেকে বর্তমান এক বছর বয়সী ইউভানকে নিয়ে সব সময়ই তিনি সোশ্যাল মিডিয়ায় অ্যাক্টিভ। জীবনের খুঁটিনাটি সমস্ত বিষয়কে তিনি শেয়ার করেন দর্শকদের সাথে। প্রথম থেকেই দেখা গেছে গর্ভাবস্থাকালীন নিজের প্রতি যথেষ্ট যত্নবান ছিলেন শুভশ্রী। দীর্ঘ সময়ের জন্য শুটিং থেকে বিরতি নিয়েছিলেন।এরপর কেটে গেছে বেশ কয়েকটা সময়।

করোনা কালীন পরিস্থিতিতে অভিনয়জগতে তার আঁচ এসে পড়েছিল। সব মিলিয়ে কাজ থেকে তিনি বেশ কিছুদিন ব্রেক নিয়েছিলেন। তবে এবার শীঘ্রই আবার শুটিং ফ্লোরে ফিরছেন শুভশ্রী গঙ্গোপাধ্যায়। যদিও জি বাংলায় ডান্স বাংলা ডান্স এর মাধ্যমে টেলিভিশনে প্রত্যাবর্তন করেছেন শুভশ্রী। তবে সম্প্রতি বড় পর্দায় কামব্যাক করছেন ইউভানের মাম্মা। এর আগে বিভিন্ন সাক্ষাৎকারে শুভশ্রী বলেছেন অভিনেত্রী হয়ে ওঠাটা এখন অতটা গুরুত্বপূর্ণ নয়।

এখন একমাত্র উদ্দেশ্য ইউভানের সাথে আমি কতটা সময় কাটাতে পারছি । একজন অভিনেত্রীর আগে তিনি একজন মা এই কথাটা বারবার করে বলে এসেছেন পরিচালক রাজ চক্রবর্তী ঘরণী শুভশ্রী গঙ্গোপাধ্যায় । ছেলের জন্য তিনি নিবেদিত প্রাণ। তাই গত এক বছর ধরে লাইট-ক্যামেরা- অ্যাকশন সমস্ত লাইমলাইট সবকিছু ছেড়ে শুধুমাত্র ছেলের সাথেই সময় কাটিয়েছেন। তবে এবার তিনি শীঘ্রই পরিচালক সপ্তাশ্ব বসুর হাত ধরে ফিরতে চলেছেন বড় পর্দায়। তাঁর নতুন সিনেমা ‘ ডক্টর বক্সি’ র শুটিং শীঘ্রই শুরু হচ্ছে।

জানা যাচ্ছে সিনেমাটি একটি মেডিকেল থ্রিলার। সিনেমায় চিকিৎসাব্যবস্থার গাফিলতি দেখানো হবে। যেখানে আমরা চিকিৎসকদের ভগবানের সাথে তুলনা করি সেখানে চিকিৎসকরা কিভাবে এটাকে শুধুমাত্র রোজগারের পথ হিসেবে দেখছে এবং সাধারন মানুষরা কিভাবে বিপাকে পড়ছে মূলত এই বিষয়বস্তুগুলি সিনেমাটিতে তুলে ধরা হবে । বর্তমান প্রেক্ষাপটে দাঁড়িয়ে চিকিৎসকদের বিরুদ্ধে সাধারণ মানুষের লড়াই এর গল্প ‘ডক্টর বক্সী’ ।এই ছবিটিতে শুভশ্রী গঙ্গোপাধ্যায় সাথে অভিনয় করতে দেখা যাবে পরমব্রত চট্টোপাধ্যায় কে।

চিকিৎসকের ভূমিকায় দেখা যাবে তাঁকে। উল্লেখ্য এটি পরিচালক সপ্তাশ্ব বসুর চতুর্থ ছবি। এর আগে তিনি ‘প্রতিদ্বন্দ্বী’ বলে একটি ছবি করেন, যা বেশ জনপ্রিয় হয়েছিল। তবে গল্পে যে শুধুমাত্র চিকিৎসা ব্যবস্থার গাফিলতিতে তুলে ধরা হবে তা নয় । যেহেতু এটি একটি মেডিকেল থ্রিলার তাই প্রতিপদেই রহস্যের মোড়ক থাকছে গল্পে । সিনেমায় শুভশ্রী গঙ্গোপাধ্যায় ট্রাভেল ব্লগারের চরিত্রে অভিনয় করবেন । একটি হেরিটেজ হোটেলে ঘুরতে গিয়ে একটি খুনের ঘটনার সাথে জড়িয়ে পড়েন শুভশ্রী এবং সেখানেই ডক্টর বক্সী অর্থাৎ পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়ের সাথে আলাপ হয় ।

এই খুনের ঘটনার সাথে চিকিৎসা ব্যবস্থার কোনো যোগসূত্র আছে কিনা সেটাই হলো গল্পের আসল চমক । এই বিষয় বস্তুকে কেন্দ্র করেই গল্প এগোবে। উল্লেখ্য গল্পে আরো একটি চমক থাকছে বনি সেনগুপ্ত চরিত্র নিয়ে। এই প্রথমবার তিনি জেল খাটা আসামি একটি নেগেটিভ চরিত্রে অভিনয় করবেন। দীর্ঘ এক বছর পর আবার শুটিং ফ্লোরে ফিরে খুবই উচ্ছ্বসিত শুভশ্রী গঙ্গোপাধ্যায়। তিনি বলেন এতদিন ছেলের সাথে সময় কাটিয়ে আবার যে তিনি কাজে ফিরছেন এতে খুবই খুশি। তবে এখন দুটো দিকই ব্যালেন্স করতে হবে ছেলে এবং কাজ।

তবে যতই কাজ থাকুক না কেন তাঁর কাছে সব সময় প্রাধান্য পাবে ছেলে ইউভান। তাই প্রথমবার ছেলেকে সঙ্গে নিয়ে শুটিং করবেন তিনি। নিজের চরিত্র নিয়েও যথেষ্ট উচ্ছ্বসিত শুভশ্রী। তিনি বলেন, “এর আগে এরকম চরিত্রে দর্শকরা আমাকে দেখেননি । চরিত্রটির মধ্যে বেশ অনেকরকম শেড ও আছে । ছেলের প্রসঙ্গে শুভশ্রী আরো বলেন, “যেহেতু আউটডোর শুটিং করতে হবে তাই ছেলেকে নিয়ে করতে হবে । ওকে ছাড়া আমি থাকতে পারবো না। আমি চাই শুটিং পরিবেশে ও বড় হোক। “

Related Articles

Back to top button