ভারতের একাধিক বিলাসবহুল ব্যাক্তির বাড়ির দাম কয়েকটি দেশের GDP এর সমান, তালিকায় রয়েছে আম্বানি থেকে আদানি’র নাম

ভারতবর্ষ বিশ্বের তৃতীয় বৃহত্তম ধনকুবেরের দেশ হিসেবে বিবেচিত হয়৷ ভারতে বেশ কিছু বিলিয়নিয়ার ব্যক্তি রয়েছেন। এইসব ব্যাক্তিদের ইনকাম এতোই বেশী যে তাঁদের উপার্জন শুনে অনেক বড় বড় ধনী ব্যাক্তিদেরও চোখ কপালে উঠে যায়। এইসব বিলিয়নেয়াররা যেমন ইনকাম করেন, তেমনই নিজেদের শখ আল্হাদের পিছনে খরচ করেন।

একটি সুন্দর বাড়ির শখ কম বেশি সকল মানুষেরই থাকে। তবে এইসব ধনোকুবেররা তাঁদের শখের বাড়ি তৈরী করতে যে পরিমান টাকা ব্যয় করেছেন, তা সাধারণ লোকের কল্পনার বাইরে। আজ আপনাদের এইসব ধনকুবেরদের ব্যায়বহুল বাড়িগুলির সমন্ধে জানাবো,যার দাম সত্যিই অবাক করার মত।এই বাড়িগুলো দেশের জিডিপির মত বড় বড়। আসুন জেনে নিন –

• ভারতীয় ধনকুবের এবং রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজের মালিক মুকেশ আম্বানির বাড়ি ‘অ্যান্টিলিয়া’, শুধু ভারতের নয় এমনকি পুরো বিশ্বের অন্যতম ব্যায়বহুল বাড়ি। বিলাসবহুল এই বাড়িটি মুম্বাইয়ের বিখ্যাত আভিজাত্যপূর্ণ এলাকা অল্টামাউন্ট স্ট্রিটের ওপর তৈরি। ২৭ তলার অভিনব ডিজাইনের এই বিল্ডিংটি প্রায় দেড় একর জায়গার ওপর তৈরি এবং এর উচ্চতা প্রায় ৫৬৮ ফুট। বাড়িটি তৈরী করেছিল শিকাগোর বিখ্যাত নির্মাণ সংস্থা ‘ওয়েল এন্ড পার্কিন্স’। এই বিলাসবহূল বাড়িটিতে আছে সিনেমা হল,সেলুন,জিম, বিশাল সুইমিংপুল,তিনটি হেলিপ্যাড,গাড়ি পার্কিং এরিয়া এবং আরও অনেক কিছু। এই বাড়িটির আনুমানিক দাম ৬ হাজার থেকে ১২ হাজার কোটি টাকা।

• ভারতের দ্বিতীয় বিলাসবহুল এবং ব্যয়বহুল বাড়ি ‘জে কে হাউস’। যার মালিক রেমন্ড গ্রুপের চেয়ারম্যান গৌতম সিংহানিয়া। এটিও মুম্বাইয়ের অল্টামাউন্ট স্ট্রিটে অবস্থিত এবং এর দাম প্রায় ৬,৫০০ কোটি টাকা। ৩০ তলার এই ইমারতে রয়েছে, একটি আধুনিক আবাসিক স্থান, বিশাল সুইমিংপুল, সিনেমা হল, অত্যাধুনিক জিম,স্পা, হেলিপ্যাড, কার পার্কিং ইত্যাদি। এছাড়া বাড়ির প্রত্যেক সদস্যের জন্য আলাদা আলাদা ফ্লোর।

• ভারতের সবথেকে দামি বাড়ির তালিকায় অনিল আম্বানির বাড়ি রয়েছে তৃতীয় স্থানে। বাড়িটি মুম্বাইয়ের বিখ্যাত পালি হিল এলাকায় অবস্থিত। ১৭ তলার এই বাড়িটি ১৬ হাজার বর্গফুট জায়গা নিয়ে তৈরি। এই বিশাল সম্পত্তির মধ্যে আধুনিক থেকে আধুনিকতর সমস্ত সুযোগ-সুবিধা মজুত রয়েছে। আভিজাত্যের দিক থেকে যা হার মানিয়ে দেয় যেকোনো সাত তারা হোটেলকে। অনিল আম্বানির এই বাড়িটির মূল্য ৫০০০ কোটি টাকা।

• মুম্বাইয়ের মালাবার হিলে অবস্থিত ‘জাটিয়া হাউস’ ভারতের চতুর্থ ব্যায়বহুল বাড়ি হিসাবে ধরা হয়। এই বাড়িটি আদিত্য বিড়লা গ্রূপের চেয়ারম্যান কে এম বিড়লার। তাঁর পুরো নাম হলো কুমার মঙ্গলম বিড়লা। বিশাল এই প্রাসাদটি ৩০,০০০ বর্গফুট এলাকা জুড়ে রয়েছে। বাড়িটির চারপাশ সবুজ বাগানে ঘেরা। সেইসঙ্গে সুন্দর একটি আঙিনা রয়েছে আর আছে একটি পুকুর। এছাড়া বাড়িটির ভিতরে রয়েছে ২০ টি অত্যাধুনিক বিলাসবহুল বেড রুম সহ অন্যান্য সুযোগ সুবিধা। এই বাড়িটির দাম ৪৫০ কোটি টাকা।

• এরপরই তালিকায় নাম আছে বলিউড কিং খানের বিখ্যাত বাড়ি ‘মান্নাতের’। যা মুম্বাইয়ের বান্দ্রায় অবস্থিত। শাহরুখ খানের স্ত্রী গৌরী খান নিজে এই বাড়িটির ইন্টেরিয়র ডিজাইন করেছিলেন। বিশাল এই বাংলোটিতে রয়েছে একাধিক বেড রুম, লাইব্রেরি, জিম,ব্যক্তিগত অডিটোরিয়াম এবং অন্যান্য অনেক সুবিধা। এছাড়া বিখ্যাত আর্টিস্ট এমএফ হোসেনের পেইন্টিং সহ অনেক শিল্প বস্তু এবং বহুমূল্য সব প্রাচীন জিনিস দিয়ে বাড়িটি সাজানো হয়েছে। ৬ তলার এই বাংলোটির মূল্য প্রায় ২০০ কোটি টাকা।

• ভারতের ব্যয়বহুল বাড়ির তালিকায় ষষ্ঠ স্থানে রয়েছে জিন্দাল হাউস। বিখ্যাত রাজনীতিবিদ- শিল্পপতি নবীন জিন্দাল এই বাড়ির মালিক, বাড়িটি ৩ একর জায়গা জুড়ে বিস্তৃত এবং দিল্লির লিফি লুটিয়েন্স বাংলো জোনে অবস্থিত। যা রাজধানী শহরের অন্যতম ব্যয়বহুল এলাকা। বাড়িটির মূল্য ১৫০ কোটি টাকা।

• শিল্পপতি রতনটাটার বাড়িটিও ব্যায়বহুল বাড়ির তালিকায় রয়েছে। মুম্বাইয়ের কোলাবায় অবস্থিত সুন্দর সাদা রঙের বাংলোটি প্রায় ১৩ হাজার বর্গফুট এলাকা জুড়ে বৃস্তিত। রতন টাটার বাংলোটির দাম আনুমানিক ১৫০ কোটি টাকা।

• এসআর গ্রুপের কর্তা রুইয়া ভাইদের মালিকানাধীন বাড়ি ‘রুইয়া হাউস’। বিশাল এই প্রাসাদটি দিল্লিতে প্রায় আড়াই একর জমির উপর অবস্থিত।বাড়িটির মূল্য ১২০ কোটি টাকা।

• বলিউডের বিগ বি, অমিতাভ বচ্চন, মুম্বাইয়ের জুহুতে ‘জলসা’ নামের একটি সুন্দর বাড়ির মালিক। এই দ্বিতল ‘বাড়িটি ১০,১২৩ বর্গফুটের একটি বিশাল এলাকা জুড়ে তৈরী। কিংবদন্তি অভিনেতার বাড়ি ‘জলসা’র মূল্য প্রায় ১২০ কোটি টাকা।

• কিংফিশারের মালিক বিজয় মাল্যও দেশের সবথেকে দামি বাড়িগুলির একটির মালিক। বেঙ্গালুরুতে অবস্থিত ‘হোয়াইট হাউজ ইন দ্য স্কাই’ নামের বাড়িটির মূল্য প্রায় ১০০ কোটি টাকা। সেইসাথে ৩৫ তলা উঁচু বাড়িটি প্রায় ৪০ হাজার বর্গফুট এলাকার উপর অবস্থিত।

Related Articles

Back to top button