কপিল শর্মা শো এতে বারবার আমন্ত্রণ পাওয়া সত্ত্বেও ফিরিয়ে দিয়েছেন প্রস্তাব, তালিকায় সামিল রয়েছে মোদি থেকে একাধিক অভিনেতা

ছোটপর্দায় জনপ্রিয় অনুষ্ঠান হল কপিল শর্মার শো। এই শোতে অভিনেতা-অভিনেত্রী থেকে শুরু করে ক্রীড়াবিদ কম বেশি সবাই এই অনুষ্ঠানে আসার জন্য উৎসুক হয়ে থাকেন। অনুষ্ঠানটিতে হাসি মজা ঠাট্টা হয়ে থাকে। বলিউডের অভিনেতা-অভিনেত্রীরা এসে তাঁদের সিনেমার প্রমোশনও করে থাকেন। এরম একটা অনুষ্ঠানে এমন কিছু মানুষ রয়েছে যারা এই অনুষ্ঠানে আসার জন্য অস্বীকার করেছেন। আজ তাঁদেরই কথা আলোচনা করবো।

এখানে শাহরুখ খান থেকে অমিতাভ বাচ্চান বা সালমান খান বা ক্রিকেটার সবাই এই অনুষ্ঠানে এসেছেন। কপিল শর্মার সঙ্গে হাসি ঠাট্টাও করেছেন। কিন্তু আজ এমনই এক পাঁচ তারকা বা ক্রিকেটারের কথা বলবো যারা এই অনুষ্ঠানে এখনো পর্যন্ত আসেননি।

প্রথমেই বলবো রজনীকান্তের কথা। তাঁর মতে অনুষ্ঠানে খুবই নিম্ন স্তরের ইয়ার্কি করা হয় অভিনেতা এবং অভিনেত্রীদের সঙ্গে। তিনি এই কারণে পছন্দ করেন না এই অনুষ্ঠানে যোগদান দেওয়ার জন্য।

লতা মঙ্গেশকার: তাঁর গানে মুগ্ধ কম বেশি সবাই। তবে তিনি হাসি-ঠাট্টা এগুলো খুব একটা পছন্দ করেন না বলে তিনি এখনও পর্যন্ত কপিল শর্মা শোতে উপস্থিত হননি।

মহেন্দ্র সিং ধোনি: ভারতীয় ক্রিকেটের ক্যাপ্টেন ছিলেন মহেন্দ্র সিং ধোনি। তাছাড়া ধোনির স্ত্রী সাক্ষীর সাথে কপিল শর্মার শোএর প্রোডিউসারের ভালো বন্ধুত্ব রয়েছে। কিন্তু প্রোডিউসারের সাথে কপিল শর্মার ঝামেলা হওয়ার জন্য প্রোডিউসার অনুষ্ঠান থেকে সরে যায়। অনেকে মনে করেন এই কারণেই ধোনি উপস্থিত হননি।

শচীন টেন্ডুলকার: কপিল শর্মার খুব ভালো বন্ধু হলেন শচীন টেন্ডুলকার। কিন্তু শচীন টেন্ডুলকার অতটা মজা করতে পারেন না বলে, তাই তিনি মনে করেন তিনি অনুষ্ঠানে যোগদান করলে সবাই খুব বোর হবেন। তাই তিনি অনুষ্ঠানে এখনো পর্যন্ত উপস্থিত হননি।

আমির খান: কাপিল শর্মার সাথে তাঁর সম্পর্ক অনেকদিনের। কিন্তু তিনি কখনোই কোন মুভির প্রমোশনের জন্য এই অনুষ্ঠানে আসেননি। তাছাড়া আমির খান কোন পুরস্কার বিতরণী সভায় যাওয়া পছন্দ করেন না।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী: কপিল শর্মা তাঁর শোতে আসার জন্য বহুবার অনুরোধ করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে। কিন্তু সব সময় সবসময় মোদিজি এটাই বলেছেন তিনি যখন প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে অবসর নেবেন তখনই তিনি অনুষ্ঠানে আসবেন।

 

Related Articles

Back to top button